বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট ১৬ বছর পর ডেনমার্ককে হারিয়ে শেষ ষোলো’তে অস্ট্রেলিয়া চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে হারিয়েও তিউনিসিয়ার কান্না রাউজানে ডাকাতির ঘটনায় র‌্যাবের হাতে আরো এক ডাকাত আটক রাউজানে স্কুল থেকে ফেরার পথে ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় যুবক কারাগারে রাউজানে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার ‘আওয়ামী লীগ গরীব দুখী মেহনতি মানুষের কল্যানে রাজনীতি করে’ -কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি মুহিব ডিমলায় বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা রিজার্ভ কমে ৩৩ বিলিয়নে নেমেছে নিউজিল্যান্ডদের কাছে সিরিজ হারল ভারত তিন নারী রেফারি, ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ কীর্তি সুরেশের বিয়ে প্রফেসর মযহারুল ইসলাম ॥ শ্রদ্ধাঞ্জলি সিটি করপোরেশনে মহামারি বিশেষজ্ঞ পদসৃষ্টির প্রস্তাব পেয়েছি : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সফরে আসছে ভারত

৩০৩ দিন নাশকতা করেছে আ.লীগ: রিজভী

৩০৩ দিন নাশকতা করেছে আ.লীগ: রিজভী
বক্তব্য রাখছেন রুহুল কবির রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ ১৯৯১ থেকে ৯৬ সাল পর্যন্ত ১৭৩ দিন এবং ২০০১ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত ১৩০ দিন হরতাল-অবরোধের নামে সন্ত্রাস নৈরাজ্য নাশকতা করেছে। এতে মোট ৩০৩ দিনের হিসাব দেন রিজভী।

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাজধানীর নয়া পল্টনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এসব কথা বলেন।

লিখিত বক্তব্যে রিজভী উল্লেখ করেন, মানুষের জীবন নিয়ে অপরাজনীতি বিএনপি করে না। এই আওয়ামী লীগ অতীতে আন্দোলনের নামে যাত্রীবাহী বাসে গান পাউডার দিয়ে আগুন লাগিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে।

তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় ২০০৪ সালের ৪ জুন শাহবাগে বাসে আগুন দিয়ে ১১ যাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে মামলা হয় আওয়ামী লীগের দু’জন কেন্দ্রীয় নেতার নামে। তদন্তে তারা দোষী সাব্যস্ত হলেও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে ২০১৩ সালে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নানক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আজমসহ ১৮ জনকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

রিজভীর মন্তব্য, আদেশটি দেন ঢাকার মহানগর হাকিম কেশব রায় চৌধুরী। আজও বিচার পেলো না গান পাউডারে বাস পোড়ায় নিহতরা।

রিজভী বলেন, লগি-বৈঠার তাণ্ডবে মানুষ হত্যা করে লাশের ওপর নৃত্য করেছে। অতীতের ধারাবাহিকতায় নিরপরাধ মানুষকে নৃশংস পন্থায় হত্যাকাণ্ড চালানো হচ্ছে। এর দায় চাপিয়ে আন্দোলনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও বিএনপিকে দমন করার অপরাজনীতি ব্যর্থ হবে। বাংলাদেশের মানুষ এত বোকা নেই।

তিনি বলেন, ২০১৩-২০১৫ পর্যন্ত গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন নস্যাৎ করার জন্য আওয়ামী লীগ ও তাদের পোষ্যরা যাত্রীবাহী বাসে পেট্রল বোমা, ট্রেনে আগুন, রেলপথে নাশকতা, উপাসনালয়ে হামলাসহ বিভিন্ন স্থানে সন্ত্রাস চালিয়ে তিন বছরে ১৭২ জনের প্রাণহানি ঘটায়। একই সময়কালে আহত হয় তিন হাজার ৮৬ জন। ২০১৩ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে তিন হাজার ২৫২টির বেশি যানবাহন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার তথ্য রয়েছে। ট্রেনে হামলা হয়েছিল ২৯ বার। আওয়ামী লীগের প্রতিটি অগ্নিসন্ত্রাস গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে নির্মমভাবে ভেঙে দেওয়ার চক্রান্ত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *