ঢাকা ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সাকিবের বলে পাঁচ ছক্কা হাঁকালেন পুরান

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৩:১১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৪৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্পোর্টস ডেস্ক :
আবুধাবি টি-টেন লিগে বল হাতে বেদম মার খেলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। টাইগার তারকার এক ওভারে ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্সের অধিনায়ক নিকোলাস পুরান ৫ ছক্কায় ৩০ রান নিয়েছেন।

বুধবার (৩০নভেম্বন) আবুধাবি টি-টেন লিগে শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিল সাকিবের দল বাংলা টাইগার্স।

ডেকানের ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বোলিংয়ে আসেন অধিনায়ক সাকিব। সেই ওভারের প্রথম তিন বলে তিন ছক্কা হাঁকিয়ে বসেন পুরান। চতুর্থ বলে অবশ্য ডট দেন সাকিব, তবে ওভারের বাকি দুই বলে আবারো দুই ছক্কা খেয়ে বসেন এই তারকা অলরাউন্ডার। ফলে এক ওভারে পাঁচ ছক্কায় মোট ৩০ রান খরচ করেন সাকিব।

এর আগে পাকিস্তানি ইফতিখার আহমেদের ২১ বলে ৩ চার আর ৫ ছক্কায় ৫৪ রানের ইনিংসে ভর করে ১০ ওভারে ৭ উইকেটে ১০৮ রান তুলে তারা। সাকিব ব্যাট হাতে ৯ বলে ২ চার আর ১ ছক্কায় করেন ১৭।

জবাবে কোহলার-ক্যাডমোর আর নিকোলাস পুরানের জোড়া হাফসেঞ্চুরিতে ৬.১ ওভারেই বিনা উইকেটে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্স। ক্যাডমোর ২১ বলে ৫ চার, ৪ ছক্কায় ৫০ আর পুরান ১৬ বলে ১ চার আর ৭ ছক্কায় খেলেন ৫০ রানের হার না মানা ইনিংস।

সাকিব এক ওভারে ৩০ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। তার করা ইনিংসের পঞ্চম ওভারে চতুর্থ বলটি ছাড়া বাকি পাঁচ বলেই ছক্কা হাঁকান নিকোলাস পুরান।

সাকিবের বাংলা টাইগার্স লিগে ৬ ম্যাচ খেলে জিতেছে মাত্র দুটিতে। তারা আছে তালিকার সাত নম্বর অবস্থানে।

নিউজটি শেয়ার করুন

সাকিবের বলে পাঁচ ছক্কা হাঁকালেন পুরান

আপডেট সময় : ০৩:৫৩:১১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক :
আবুধাবি টি-টেন লিগে বল হাতে বেদম মার খেলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। টাইগার তারকার এক ওভারে ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্সের অধিনায়ক নিকোলাস পুরান ৫ ছক্কায় ৩০ রান নিয়েছেন।

বুধবার (৩০নভেম্বন) আবুধাবি টি-টেন লিগে শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিল সাকিবের দল বাংলা টাইগার্স।

ডেকানের ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বোলিংয়ে আসেন অধিনায়ক সাকিব। সেই ওভারের প্রথম তিন বলে তিন ছক্কা হাঁকিয়ে বসেন পুরান। চতুর্থ বলে অবশ্য ডট দেন সাকিব, তবে ওভারের বাকি দুই বলে আবারো দুই ছক্কা খেয়ে বসেন এই তারকা অলরাউন্ডার। ফলে এক ওভারে পাঁচ ছক্কায় মোট ৩০ রান খরচ করেন সাকিব।

এর আগে পাকিস্তানি ইফতিখার আহমেদের ২১ বলে ৩ চার আর ৫ ছক্কায় ৫৪ রানের ইনিংসে ভর করে ১০ ওভারে ৭ উইকেটে ১০৮ রান তুলে তারা। সাকিব ব্যাট হাতে ৯ বলে ২ চার আর ১ ছক্কায় করেন ১৭।

জবাবে কোহলার-ক্যাডমোর আর নিকোলাস পুরানের জোড়া হাফসেঞ্চুরিতে ৬.১ ওভারেই বিনা উইকেটে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর্স। ক্যাডমোর ২১ বলে ৫ চার, ৪ ছক্কায় ৫০ আর পুরান ১৬ বলে ১ চার আর ৭ ছক্কায় খেলেন ৫০ রানের হার না মানা ইনিংস।

সাকিব এক ওভারে ৩০ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। তার করা ইনিংসের পঞ্চম ওভারে চতুর্থ বলটি ছাড়া বাকি পাঁচ বলেই ছক্কা হাঁকান নিকোলাস পুরান।

সাকিবের বাংলা টাইগার্স লিগে ৬ ম্যাচ খেলে জিতেছে মাত্র দুটিতে। তারা আছে তালিকার সাত নম্বর অবস্থানে।