ঢাকা ০৪:০৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

শাহজাদপুরের চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে মালামাল লুট 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২৭:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ৫০৭ বার পড়া হয়েছে

শাহজাদপুরের চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে মালামাল লুট

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
শাহজাদপুর উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের রতনকান্দি গ্রামে ভাতের সাথে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে একই পরিবারের ১০ জনকে অসুস্থ করে সোনার গহনা, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন লুটের ঘটনা ঘটেছে । অসুস্থ ১০ জনকে কে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেস্কে ভর্তি করা হয়েছে । থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে । এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ।
জানা গেছে, উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের রতনকান্দি উত্তরপাড়া গ্রামের সাদেকুলের বাড়িতে গত সোমবার রাতে কে বা কারা ভাতের সাথে চেতনানাশক ঔষধ মিশিয়ে দেয় । সেই ভাত খেয়ে বাড়ির সদস্যরা ঘুমিয়ে পড়ে । এক পর্যায়ে মঙ্গলবার সকালে পাশের বাড়ির লোকজন তাদের সাড়া না পেয়ে এগিয়ে এসে দেখে সবাই অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। এক পর্যায়ে সাদিয়া (৩০), রাজিয়া (২৫), মিনা (৪৫), রওশন(৩০), রীনা (৬০), রহিমা (৭০), মান্নান (৬০), রহিম (৪০), সাদেকুল (৫০) ও মাদরাসার ছাত্র শাওন (১২) উদ্ধার করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয় ।
হাসপাতালে চিকিৎসারত সাদিয়া খাতুন জানান, ‘আমরা রাতে ভাত খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি । সকালে দেখি তাদের ঘর থেকে ৫/৬ টি মোবাইল , সোনার গহনা ও নগদ টাকা নিয়ে যায় ।’
ওয়াডের ইউপি মেম্বর আব্দুর রাজ্জাক জানান, ‘ভাতের সাথে চেতনা নাশক ঔষধ খাওয়ানো হয়েছে । বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ।
গ্রামের ফিরোজ হোসেন জানান, ‘এ ঘটনায় জিতেন শাহজাদপুর থানায় অভিযোগ অভিযোগ দায়ের করেছে ।’
শাহজাদপুর থানার ওসি অপারেশন আব্দুল মজিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে । এ ঘটনা নিয়ে এলাকায়
বইছে আলোচনার ঝড় ।

নিউজটি শেয়ার করুন

শাহজাদপুরের চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে মালামাল লুট 

আপডেট সময় : ০৮:২৭:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২
শাহজাদপুর উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের রতনকান্দি গ্রামে ভাতের সাথে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে একই পরিবারের ১০ জনকে অসুস্থ করে সোনার গহনা, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন লুটের ঘটনা ঘটেছে । অসুস্থ ১০ জনকে কে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেস্কে ভর্তি করা হয়েছে । থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে । এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ।
জানা গেছে, উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের রতনকান্দি উত্তরপাড়া গ্রামের সাদেকুলের বাড়িতে গত সোমবার রাতে কে বা কারা ভাতের সাথে চেতনানাশক ঔষধ মিশিয়ে দেয় । সেই ভাত খেয়ে বাড়ির সদস্যরা ঘুমিয়ে পড়ে । এক পর্যায়ে মঙ্গলবার সকালে পাশের বাড়ির লোকজন তাদের সাড়া না পেয়ে এগিয়ে এসে দেখে সবাই অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। এক পর্যায়ে সাদিয়া (৩০), রাজিয়া (২৫), মিনা (৪৫), রওশন(৩০), রীনা (৬০), রহিমা (৭০), মান্নান (৬০), রহিম (৪০), সাদেকুল (৫০) ও মাদরাসার ছাত্র শাওন (১২) উদ্ধার করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয় ।
হাসপাতালে চিকিৎসারত সাদিয়া খাতুন জানান, ‘আমরা রাতে ভাত খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি । সকালে দেখি তাদের ঘর থেকে ৫/৬ টি মোবাইল , সোনার গহনা ও নগদ টাকা নিয়ে যায় ।’
ওয়াডের ইউপি মেম্বর আব্দুর রাজ্জাক জানান, ‘ভাতের সাথে চেতনা নাশক ঔষধ খাওয়ানো হয়েছে । বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ।
গ্রামের ফিরোজ হোসেন জানান, ‘এ ঘটনায় জিতেন শাহজাদপুর থানায় অভিযোগ অভিযোগ দায়ের করেছে ।’
শাহজাদপুর থানার ওসি অপারেশন আব্দুল মজিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে । এ ঘটনা নিয়ে এলাকায়
বইছে আলোচনার ঝড় ।