ঢাকা ০৫:০০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বাবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩৭:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩
  • / ৪৬৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিনোদন ডেস্ক : 

নিজের বাবার যৌন হেনস্থার শিকার হতে বলেন সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মুখ খুলেছেন ভারতের তামিল অভিনেত্রী ও জাতীয় মহিলা কমিশনের সদস্য হিসেবে সদ্য নির্বাচিত খুশবু সুন্দর।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন কীভাবে তিনি তার বাড়ির মধ্যেই যৌন হেনস্থার শিকার হতেন, তাও নিজের বাবার দ্বারা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে খুশবু জানান, মাত্র ৮ বছর বয়স থেকে তার বাবা তার উপর যৌন নির্যাতন চালিয়ে এসেছেন। দীর্ঘদিন এই বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেন নি। অবশেষে ১৫ বছর বয়সে গিয়ে তিনি বিষয়টা নিয়ে মুখ খোলেন।

বাবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

মোজো স্টোরির জন্য দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, আমার মনে হয় যখন একটি শিশুর ওপর নির্যাতন চালানো হয় তখন সেই ক্ষতটা তার সঙ্গে আজীবন থেকে যায়। সেটা ছেলে, মেয়ে নির্বিশেষে সবার জন্যই প্রযোজ্য। আমার মাকে বিয়ের পর থেকে ভীষণ অত্যাচার সইতে হয়েছে। আমার বাবা এমন একজন মানুষ ছিলেন যিনি ভাবতেন বউ পেটানো বুঝি তার জন্মগত অধিকার। মেয়েকে যৌন হেনস্থা করাও বুঝি তার অধিকারের মধ্যেই পড়ে। আমার ওপর যৌন অত্যাচার শুরু হয় যখন আমার বয়স মাত্র ৮! ১৫ বছর বয়সে গিয়ে আমি এই বিষয়টা নিয়ে কিছু বলার সাহস জুগিয়ে উঠতে পারি।

তার ভয়ের জায়গা ছিল, হয়তো তার কথা কেউ বিশ্বাস করবে না। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমার একটাই ভয় ছিল, আমি ভাবতাম মাকে বললে বুঝি মা বিশ্বাস করবে না, কারণ আমি মাকে এমন অবস্থায় থাকতে দেখেছি যেখানে তার অটুট বিশ্বাস ছিল যে, যাই হয়ে যাক আমার স্বামী ঈশ্বরতুল্য। কিন্তু যখন আমার ১৫ বছর বয়স হলো তখন আমি ঠিক করি যে অনেক হয়েছে আর না। এরপর থেকে আমি তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে শুরু করি।’

বাবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

এরপর থেকে অবর্ণনীয় দুঃখ-কষ্ট নেমে আসে মা-মেয়ের জীবনে। তার ভাষায়, ‘আমার তখন ১৬ বছরও হয়নি, তখন তিনি (বাবা) আমাদের ছেড়ে চলে যান। একবারও ভাবেননি যে পরদিন থেকে আমরা কী খাব, কোথায় থাকব।’

অভিনেত্রী খুশবু সুন্দরের রাজনৈতিক জীবনের হাতেখড়ি হয় ডিএমকে পার্টির হাত ধরে। পরবর্তীতে তিনি দলবদল করে কংগ্রেসে যান এবং সবশেষে সরকারি দলের টিকিটে সংসদ নির্বাচন করেন। যদিও সেবার তিনি তার সাবেক দলের প্রার্থীর বিপক্ষে ভোটে পরাজিত হন। শিশুশিল্পী হিসেবে হিন্দি ছবিতে অভিনয় শুরু করলেও পরবর্তীতে জনপ্রিয়তা পান দক্ষিণী ছবিতে।

নিউজটি শেয়ার করুন

বাবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

আপডেট সময় : ১০:৩৭:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩

বিনোদন ডেস্ক : 

নিজের বাবার যৌন হেনস্থার শিকার হতে বলেন সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মুখ খুলেছেন ভারতের তামিল অভিনেত্রী ও জাতীয় মহিলা কমিশনের সদস্য হিসেবে সদ্য নির্বাচিত খুশবু সুন্দর।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন কীভাবে তিনি তার বাড়ির মধ্যেই যৌন হেনস্থার শিকার হতেন, তাও নিজের বাবার দ্বারা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে খুশবু জানান, মাত্র ৮ বছর বয়স থেকে তার বাবা তার উপর যৌন নির্যাতন চালিয়ে এসেছেন। দীর্ঘদিন এই বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেন নি। অবশেষে ১৫ বছর বয়সে গিয়ে তিনি বিষয়টা নিয়ে মুখ খোলেন।

বাবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

মোজো স্টোরির জন্য দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, আমার মনে হয় যখন একটি শিশুর ওপর নির্যাতন চালানো হয় তখন সেই ক্ষতটা তার সঙ্গে আজীবন থেকে যায়। সেটা ছেলে, মেয়ে নির্বিশেষে সবার জন্যই প্রযোজ্য। আমার মাকে বিয়ের পর থেকে ভীষণ অত্যাচার সইতে হয়েছে। আমার বাবা এমন একজন মানুষ ছিলেন যিনি ভাবতেন বউ পেটানো বুঝি তার জন্মগত অধিকার। মেয়েকে যৌন হেনস্থা করাও বুঝি তার অধিকারের মধ্যেই পড়ে। আমার ওপর যৌন অত্যাচার শুরু হয় যখন আমার বয়স মাত্র ৮! ১৫ বছর বয়সে গিয়ে আমি এই বিষয়টা নিয়ে কিছু বলার সাহস জুগিয়ে উঠতে পারি।

তার ভয়ের জায়গা ছিল, হয়তো তার কথা কেউ বিশ্বাস করবে না। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমার একটাই ভয় ছিল, আমি ভাবতাম মাকে বললে বুঝি মা বিশ্বাস করবে না, কারণ আমি মাকে এমন অবস্থায় থাকতে দেখেছি যেখানে তার অটুট বিশ্বাস ছিল যে, যাই হয়ে যাক আমার স্বামী ঈশ্বরতুল্য। কিন্তু যখন আমার ১৫ বছর বয়স হলো তখন আমি ঠিক করি যে অনেক হয়েছে আর না। এরপর থেকে আমি তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে শুরু করি।’

বাবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

এরপর থেকে অবর্ণনীয় দুঃখ-কষ্ট নেমে আসে মা-মেয়ের জীবনে। তার ভাষায়, ‘আমার তখন ১৬ বছরও হয়নি, তখন তিনি (বাবা) আমাদের ছেড়ে চলে যান। একবারও ভাবেননি যে পরদিন থেকে আমরা কী খাব, কোথায় থাকব।’

অভিনেত্রী খুশবু সুন্দরের রাজনৈতিক জীবনের হাতেখড়ি হয় ডিএমকে পার্টির হাত ধরে। পরবর্তীতে তিনি দলবদল করে কংগ্রেসে যান এবং সবশেষে সরকারি দলের টিকিটে সংসদ নির্বাচন করেন। যদিও সেবার তিনি তার সাবেক দলের প্রার্থীর বিপক্ষে ভোটে পরাজিত হন। শিশুশিল্পী হিসেবে হিন্দি ছবিতে অভিনয় শুরু করলেও পরবর্তীতে জনপ্রিয়তা পান দক্ষিণী ছবিতে।