ঢাকা ০৯:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কমেছে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৪১:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম এক শতাংশের বেশি কমেছে। কারণ করোনা মহামারির কঠোর নীতির কারণে সেপ্টেম্বরেও চীনে চাহিদা কম ছিল। বিশ্বে সবচেয়ে বেশি জ্বালানি তেল আমদানি করে চীন।
সোমবার (২৪ অক্টোবর) সকালের দিকে ডিসেম্বরের জন্য ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ব্যারেল প্রতি ১ ডলার বা ১ দশমিক ১ শতাংশ কমে ৯২ দশমিক ৫০ ডলারে দাঁড়ায়। তাছাড়া ইউএস ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের দাম ব্যারিলপ্রতি ১ দশমিক শূন্য ৩ ডলার বা ১ দশমিক ২ শতাংশ কমে ৮৪ দশমিক শূন্য ২ ডলারে দাঁড়ায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চীন সেপ্টেম্বরে দৈনিক ৯ দশমিক ৭৯ মিলিয়ন ব্যারেল ক্রুড তেল আমদানি করে, যা গত বছরের চেয়ে দুই শতাংশ কম। যদিও আগস্টের চেয়ে বেশি।

এএনজেড বিশ্লেষকরা জানান, সেপ্টেম্বরে তেল আমদানিতে সাম্প্রতিক পুনরুদ্ধার হ্রাস পেয়েছে। কারণ করোনা সম্পর্কিত লকডাউনের কারণে চাহিদা কমায় স্বাধীন শোধনাকারীরা বর্ধিত কোটা ব্যবহার করতে ব্যর্থ হয়েছে।

এদিকে পূর্বাভাসের চেয়ে চীনের জিডিপি বেড়েছে। সোমবার প্রকাশিত তথ্যে দেখা গেছে, চীনের অন্যান্য অর্থনৈতিক পরিসংখ্যানও শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। শি জিনপিং তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতা গ্রহণের একদিন পরেই এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।
দেশটির জাতীয় পরিসংখ্যান বিভাগ জানিয়েছে, এক বছর আগের চেয়ে তৃতীয় প্রান্তিকে চীনের জিডিপি বেড়েছে ৩ দশমিক ৯ শতাংশ। এর আগে রয়টার্সের জরিপে বলা হয়, এই সময়ে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ। সূত্র : ব্লুমবার্গ।

নিউজটি শেয়ার করুন

কমেছে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম

আপডেট সময় : ০২:৪১:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম এক শতাংশের বেশি কমেছে। কারণ করোনা মহামারির কঠোর নীতির কারণে সেপ্টেম্বরেও চীনে চাহিদা কম ছিল। বিশ্বে সবচেয়ে বেশি জ্বালানি তেল আমদানি করে চীন।
সোমবার (২৪ অক্টোবর) সকালের দিকে ডিসেম্বরের জন্য ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ব্যারেল প্রতি ১ ডলার বা ১ দশমিক ১ শতাংশ কমে ৯২ দশমিক ৫০ ডলারে দাঁড়ায়। তাছাড়া ইউএস ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের দাম ব্যারিলপ্রতি ১ দশমিক শূন্য ৩ ডলার বা ১ দশমিক ২ শতাংশ কমে ৮৪ দশমিক শূন্য ২ ডলারে দাঁড়ায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চীন সেপ্টেম্বরে দৈনিক ৯ দশমিক ৭৯ মিলিয়ন ব্যারেল ক্রুড তেল আমদানি করে, যা গত বছরের চেয়ে দুই শতাংশ কম। যদিও আগস্টের চেয়ে বেশি।

এএনজেড বিশ্লেষকরা জানান, সেপ্টেম্বরে তেল আমদানিতে সাম্প্রতিক পুনরুদ্ধার হ্রাস পেয়েছে। কারণ করোনা সম্পর্কিত লকডাউনের কারণে চাহিদা কমায় স্বাধীন শোধনাকারীরা বর্ধিত কোটা ব্যবহার করতে ব্যর্থ হয়েছে।

এদিকে পূর্বাভাসের চেয়ে চীনের জিডিপি বেড়েছে। সোমবার প্রকাশিত তথ্যে দেখা গেছে, চীনের অন্যান্য অর্থনৈতিক পরিসংখ্যানও শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। শি জিনপিং তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতা গ্রহণের একদিন পরেই এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।
দেশটির জাতীয় পরিসংখ্যান বিভাগ জানিয়েছে, এক বছর আগের চেয়ে তৃতীয় প্রান্তিকে চীনের জিডিপি বেড়েছে ৩ দশমিক ৯ শতাংশ। এর আগে রয়টার্সের জরিপে বলা হয়, এই সময়ে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ। সূত্র : ব্লুমবার্গ।