শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীতে কুখ্যাত ভূমি প্রতারক ফারজানাসহ আটক-৩ রাজশাহীতে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন কলমাকান্দায় সচেতনতা তৈরিতে বৈঠক শ্রীমঙ্গলে তিন দিনব্যাপী পিঠা উৎসব শুরু শ্রীমঙ্গলে টপসয়েল কাটার দায়ে ১ জনের ৫০ হাজার টাকা দন্ড রাস্তাঘাটের ব্যাপক উন্নয়নের পাশাপাশি দুর্ঘটনা অনেক বেড়েছে : সংসদে হানিফ সোনার চামচে রাজ-পরীমণির ছেলের মুখে ভাত! বাংলাদেশ সফরে ইংল্যান্ডের দল ঘোষণা চীন বাংলাদেশের বৃহৎ অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক অংশীদার : বাণিজ্যমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণে সরকার কাজ করছে : স্পিকার হিরো আলমের অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই : ইসি রাশেদা দেশে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২০৩১৬ : সংসদে শিক্ষামন্ত্রী রাজউকে অনলাইনে নকশার আবেদন ৩৪ হাজার : সংসদে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আইএমএফের ঋণের প্রথম কিস্তি পেল বাংলাদেশ নোবিপ্রবিতে আট দাবিতে তৃতীয় দিনও আন্দোলন অব্যহত

অ্যাপল বদলাচ্ছে আইফোনের চার্জার

অ্যাপল বদলাচ্ছে আইফোনের চার্জার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
অবশেষে হাল ছাড়ল অ্যাপল। আইফোনে চার্জ দেয়ার জন্য আর আলাদা চার্জারের ব্যবস্থা রাখতে পারবে না তারা। ইউরোপীয় ইউনিয়নের শর্তের সামনে মাথা নোয়াতে বাধ্য হলো বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী মুঠোফোন উৎপাদন কোম্পানিটি। ‘স্মার্টফোনের এক ধরনের চার্জার’ নীতি মেনে আইফোনের পরবর্তী সংস্করণগুলোতে সি পোর্টের চার্জারে চার্জ দেয়ার ব্যবস্থা থাকবে।

এত দিন অ্যাপলের নিজস্ব লাইটেনিং পোর্টে চার্জ দিতে হত আইফোনে। তবে মঙ্গলবার অ্যাপলের মার্কেটিং ডিরেক্টর গ্রেগ জস উইয়াক জানিয়েছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন স্মার্টফোনের চার্জার সংক্রান্ত যে নীতি এনেছে, তা মানতে বাধ্য হয়েছে তারা।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন আগেই জানিয়েছিল সব স্মার্টফোনের চার্জার একই রকম হতে হবে। এই নিয়ম আগামী বছরের শুরু থেকেই কার্যকর হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞদের অনুমান। তাই আইফোন নির্মাতারা আগে থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন। তারা জানিয়েছেন, আইফোন ১৫ হতে চলেছে অ্যাপলের প্রথম আইফোন, যাতে সি পোর্ট চার্জার ব্যবহার করা যাবে।
যদিও বিশেষজ্ঞদের একাংশ এও মনে করছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের নির্দেশ কার্যকর হতে হতে আরও এক বছর লেগে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে হয়তো ২০২৪ সাল থেকেই ‘সব স্মার্টফোনের এক ধরনের চার্জার’ নীতি সব দিক থেকে কার্যকর হবে।

আলাদা চার্জিং পোর্টের জন্য আইফোনে চার্জ দিতে অনেক ক্ষেত্রেই বিপদে পড়তে হয় ব্যবহারকারীদের। তবে এটাও ঠিক অন্যান্য স্মার্টফোনের থেকে অ্যাপলকে স্বতন্ত্রও করে তার চার্জিং পোর্ট। তা ছাড়া এতে ব্যবসারও সুবিধা হয়। কারণ চার্জার হারালে বা খারাপ হলে অ্যাপল থেকেই চার্জার কিনতে হয় আইফোন ব্যবহারকারীকে।

সম্প্রতি অ্যাপল তাদের ম্যাকবুক এবং আইপ্যাডের চার্জিংয়ের জন্যও সি পোর্ট বিশিষ্ট চার্জারের ব্যবহার শুরু করেছে। তবে অ্যাপলের চার্জিং পোর্ট বদলের ঘোষণায় আরও একটি প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। ব্যবহারকারীরা জানতে চেয়েছেন, সি পোর্ট বিশিষ্ট চার্জারের ব্যবহার কি শুধু ইউরোপেই সীমাবদ্ধ থাকবে? না কি মহাদেশের গণ্ডি পেরিয়ে অন্যত্রও একই নিয়ম চালু হবে?
উল্লেখ্য, ইউরোপ ছাড়া অন্যান্য দেশও ইদানীং সব ফোনের একই চার্জার নীতি কার্যকর করার কথা ভাবতে শুরু করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *