ঢাকা ০৯:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

শাহজাদপুরে পরকীয়া প্রেমিকের নিক্ষেপ করা এসিডে ঝসলে গেলো সাবেক স্বামীর শরীর!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৬:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৯০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের উল্টাডাব গ্রামে সাবেক স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকের নিক্ষেপ করা এসিডে ঝলসে গেছে শরিফুল (২৫) নামের এক যুবকের শরীর। শংকাজনক অবস্থায় শরিফুলকে উদ্ধার করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। যুবক শরিফুল উল্লাডাব গ্রামের শুকুর মোল্লার ছেলে বলে জানা গেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি গত রোববার গভীর রাতে ঘটেছে বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী ও এসিডদগ্ধ শরিফুলের আত্মীয় স্বজনেরা জানায়, উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের উল্টাডাব গ্রামের শুকুর মোল্লার ছেলে শরিফুলের স্ত্রী ১ সন্তানের জননী আখি খাতুন (২০) অসুস্থ্য হবার সুবাদে পার্শ্ববর্তী চরকৈজুরী এলাকার পল্লী চিকিৎসক রাণীকোলা গ্রামের ওসমান গণীর ছেলে আব্দুস সবুরের স্মরনাপন্ন হলে তাদের পরিচয় পরিণয় ও একপর্যায়ে তারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এরপর পল্লী চিকিৎসক ও আখি পালিয়ে বিয়ে করে। এ খবর জানতে পেরে আখির সাবেক স্বামী শরিফুলের পরিবারের পক্ষ থেকে আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এরপর ক্ষিপ্ত হয়ে শরিফুলের লোকজন পল্লী চিকিৎসক সবুরকে মারপিট করলে সবুর থানায় অভিযোগ দাখিল করে। এ নিয়ে আখির সাবেক স্বামী শরিফুল ও বর্তমান স্বামী সবুর এবং উভয় পরিবারের মধ্যে বিরোধ চরম আকার ধারণ করে। এক পর্যায়ে গত রোববার রাতে শরিফুল দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে তার ওপর এসিড নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে এসিডদগ্ধ শরিফুল জানান, ‘রবিবার রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরতে নিলে ২টি মোটরসাইকেল যোগে সবুর ও শাহাজাদা এসে আমার সামনে গতিরোধ করে অতর্কিত আমার শরীরে এডিস নিক্ষেপ করে।’

অন্যদিকে, পল্লী চিকিৎসক সবুর এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘শরিফুলের স্ত্রী আখিকে বিয়ে করার পর শরিফুলের লোকজন আমার ওপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করলে থানায় অভিযোগ করি। মূলতঃ পূর্ব শত্রুতা ও সন্দেহের বশীভূত হয়ে শরিফুল ও তার পরিবার আমার ওপর মিথ্যা দোষারোপ করছে।’

এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে খবর পেয়ে সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শাহজাদপুর সার্কেল) হাসিবুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

শাহজাদপুরে পরকীয়া প্রেমিকের নিক্ষেপ করা এসিডে ঝসলে গেলো সাবেক স্বামীর শরীর!

আপডেট সময় : ০৭:৫৬:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের উল্টাডাব গ্রামে সাবেক স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকের নিক্ষেপ করা এসিডে ঝলসে গেছে শরিফুল (২৫) নামের এক যুবকের শরীর। শংকাজনক অবস্থায় শরিফুলকে উদ্ধার করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। যুবক শরিফুল উল্লাডাব গ্রামের শুকুর মোল্লার ছেলে বলে জানা গেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি গত রোববার গভীর রাতে ঘটেছে বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী ও এসিডদগ্ধ শরিফুলের আত্মীয় স্বজনেরা জানায়, উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের উল্টাডাব গ্রামের শুকুর মোল্লার ছেলে শরিফুলের স্ত্রী ১ সন্তানের জননী আখি খাতুন (২০) অসুস্থ্য হবার সুবাদে পার্শ্ববর্তী চরকৈজুরী এলাকার পল্লী চিকিৎসক রাণীকোলা গ্রামের ওসমান গণীর ছেলে আব্দুস সবুরের স্মরনাপন্ন হলে তাদের পরিচয় পরিণয় ও একপর্যায়ে তারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এরপর পল্লী চিকিৎসক ও আখি পালিয়ে বিয়ে করে। এ খবর জানতে পেরে আখির সাবেক স্বামী শরিফুলের পরিবারের পক্ষ থেকে আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এরপর ক্ষিপ্ত হয়ে শরিফুলের লোকজন পল্লী চিকিৎসক সবুরকে মারপিট করলে সবুর থানায় অভিযোগ দাখিল করে। এ নিয়ে আখির সাবেক স্বামী শরিফুল ও বর্তমান স্বামী সবুর এবং উভয় পরিবারের মধ্যে বিরোধ চরম আকার ধারণ করে। এক পর্যায়ে গত রোববার রাতে শরিফুল দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে তার ওপর এসিড নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে এসিডদগ্ধ শরিফুল জানান, ‘রবিবার রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরতে নিলে ২টি মোটরসাইকেল যোগে সবুর ও শাহাজাদা এসে আমার সামনে গতিরোধ করে অতর্কিত আমার শরীরে এডিস নিক্ষেপ করে।’

অন্যদিকে, পল্লী চিকিৎসক সবুর এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘শরিফুলের স্ত্রী আখিকে বিয়ে করার পর শরিফুলের লোকজন আমার ওপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করলে থানায় অভিযোগ করি। মূলতঃ পূর্ব শত্রুতা ও সন্দেহের বশীভূত হয়ে শরিফুল ও তার পরিবার আমার ওপর মিথ্যা দোষারোপ করছে।’

এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে খবর পেয়ে সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শাহজাদপুর সার্কেল) হাসিবুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।