ঢাকা ০১:৪৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

নিকেতনে এসি বিস্ফোরণে চলে গেলেন দগ্ধ গোপাল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:১৭:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩
  • / ৪২৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

রাজধানীর নিকেতনে এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ গোপাল মল্লিক (২৮) মারা গেছেন।

শনিবার (৪ মার্চ) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শনিবার রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. এস এম আইউব হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শনিবার সকালে এসি বিস্ফোরণের পর আগুনের ঘটনায় দগ্ধ হন গোপাল মল্লিক। তাকে বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি মারা যান। তার শরীরের ১০০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

ডা. আইউব হোসেন বলেন, একই ঘটনায় মো. মিজান (২০) নামে আরেকজনকে বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। পরে জরুরি বিভাগে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তিনি দগ্ধ নন। ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন।

গোপাল মল্লিকের বাবা ডিজেন মল্লিক বলেন, আমাদের বাড়ি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার জয় নারায়ণপুর গ্রামে। আমার ছেলে নিকেতনের এম এস কে এন ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানির অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিল। মধ্যরাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

নিকেতনে এসি বিস্ফোরণে চলে গেলেন দগ্ধ গোপাল

আপডেট সময় : ০১:১৭:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

রাজধানীর নিকেতনে এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ গোপাল মল্লিক (২৮) মারা গেছেন।

শনিবার (৪ মার্চ) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শনিবার রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. এস এম আইউব হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শনিবার সকালে এসি বিস্ফোরণের পর আগুনের ঘটনায় দগ্ধ হন গোপাল মল্লিক। তাকে বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি মারা যান। তার শরীরের ১০০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

ডা. আইউব হোসেন বলেন, একই ঘটনায় মো. মিজান (২০) নামে আরেকজনকে বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। পরে জরুরি বিভাগে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তিনি দগ্ধ নন। ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন।

গোপাল মল্লিকের বাবা ডিজেন মল্লিক বলেন, আমাদের বাড়ি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার জয় নারায়ণপুর গ্রামে। আমার ছেলে নিকেতনের এম এস কে এন ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানির অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিল। মধ্যরাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।