ঢাকা ০৩:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

৫নং বিরল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাবেক চেয়ারম্যান মারুফের বিকল্প নাই : নির্বাচনী পথসভায় বক্তারা

মোঃ খাদেমুল ইসলাম, দিনাজপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১২:৩৪:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৮০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

জেলার বিরল উপজেলার ৫নং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে জোর কদমে চলছে প্রচার-প্রচারণা। তীব্র তাপদাহ উপেক্ষা করে প্রচারণা চালাচ্ছেন চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীরা। ২৩ এপ্রিল বিকালে ঘোড়া মার্কা প্রতীকের নির্বাচনী প্রথম প্রভা অনুষ্ঠিত হয়েছে উপজেলার রবিপুর এলাকায়।

পথসভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিরল পৌর পিতা আলহাজ্ব সবুজার সিদ্দিক সাগর বলেন, বিগত পাঁচ বছর আমরা যদি বিরল ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকাণ্ড পর্যালোচনা করি তাহলে দেখব এলাকার বিভিন্ন দৃশ্যমান উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ। মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। একজন দিনমজুর এখন প্রতিদিন ৫০০ টাকা থেকে ৭০০ টাকা পর্যন্ত আয় করছে যা দিয়ে পরিকল্পনা মাফিক সংসার চালাতে পারছেন তিনি।

এলাকার রাস্তাঘাটে উন্নয়ন হয়েছে। বয়স্করা বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন। বিধবারা বিধবা ভাতা পাচ্ছেন। প্রতিবন্ধীরা প্রতিবন্ধী ভাতা পাচ্ছেন। ভিক্ষুকদের পুনর্বাসনের সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে। এদেশে কোন সংখ্যাগুরু ও সংখ্যালঘু নেই। আমরা একজন আরেকজনের সহায়ক শক্তি। একজনের বিপদ মানে সবার বিপদ। এমন দর্শনে বিশ্বাসী ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ মারুফ হোসেন। ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী এমন একজন প্রার্থী যে সবদিক থেকে দক্ষ। একজন দক্ষ রাজনৈতিক কর্মী। একজন দক্ষ চেয়ারম্যান। কাজেই আগামী নির্বাচনে আবারো ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মারুফকে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আগামী পাঁচ বছরের জন্য পুনরায় নির্বাচিত করে এই ইউনিয়নে উন্নয়নের উন্নয়নের যে গতি চলমান আছে সেই গতিকে আরও বেগবান করতে হবে।

এ সময় ৫ নং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আব্দুল আজিজ বলেন, ঘোড়া মার্কা উন্নয়নের মার্কা ।কাজেই আগামী ২৮ তারিখের মার্কা ঘোড়া মার্ক। এমন মনোভাব নিয়ে প্রত্যেক ভোটারকে এই মার্কাকে বিজয়ী করতে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হবে।

ঘোড়া মার্কা প্রতীকের এর প্রার্থী মো: মারুফ হোসেন বলেন, বিগত পাঁচ বছর আমি এই ইউনিয়নের দায়িত্ব পালন করেছি। দায়িত্ব পালনকালে ভুল ত্রুটি করেছি কারন আমি ফেরেশতা নই আমি একজন মানুষ। তবে প্রতিটি ভুল পদক্ষেপ থেকে আমি শিক্ষা নিয়েছি। সে শিক্ষার আলোকেই আগামী ২৮ তারিখের নির্বাচনে আপনারা যদি আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করেন তাহলে আমি আমার প্রাণান্ত প্রচেষ্টার মাধ্যমে আপনাদের সেবা করার চেষ্টা করব সেই সাথে এই ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য যে সমস্ত কাজ এখনো অবশিষ্ট রয়েছে তা দ্রুততম সময়ের মধ্যে করার চেষ্টা করব।

সেই সাথে আজকের এই পথসভায় বিশাল উপস্থিতি আমার মনকে আরো বিশাল করে তুলেছে এই ভেবে যে এই এলাকার লোক আমাকে এত ভালবাসে ! এ কারণে সবাইকে শ্রেণীভেদে আমার সালাম ও আদাব। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন। খোদা হাফেজ আল্লাহ সর্বশক্তিমান।

রবিপুর গ্রামের পথসভার শেষে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা সহকারে ইউনিয়নের মোকলেসপুর এলাকায় অন্য আরও একটি পথসভা সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় মোখলেসপুরে অনুষ্ঠিত হয়ে। এই পথ সভাতেও বিপুল সংখ্যক ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। খোদা হাফেজ আল্লাহ সর্বশক্তিমান। পথসভা গুলোতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। এরই মধ্যে পুরো ইউনিয়নে ছড়িয়ে গেছে আগামী ২৮ তারিখের ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মো: মারুফ হোসেনের বিজয় সময়ের ব্যাপার মাত্র বলে মনে করছে অত্র ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট ভোটাররা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

৫নং বিরল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাবেক চেয়ারম্যান মারুফের বিকল্প নাই : নির্বাচনী পথসভায় বক্তারা

আপডেট সময় : ১২:৩৪:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

জেলার বিরল উপজেলার ৫নং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে জোর কদমে চলছে প্রচার-প্রচারণা। তীব্র তাপদাহ উপেক্ষা করে প্রচারণা চালাচ্ছেন চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীরা। ২৩ এপ্রিল বিকালে ঘোড়া মার্কা প্রতীকের নির্বাচনী প্রথম প্রভা অনুষ্ঠিত হয়েছে উপজেলার রবিপুর এলাকায়।

পথসভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিরল পৌর পিতা আলহাজ্ব সবুজার সিদ্দিক সাগর বলেন, বিগত পাঁচ বছর আমরা যদি বিরল ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকাণ্ড পর্যালোচনা করি তাহলে দেখব এলাকার বিভিন্ন দৃশ্যমান উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ। মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। একজন দিনমজুর এখন প্রতিদিন ৫০০ টাকা থেকে ৭০০ টাকা পর্যন্ত আয় করছে যা দিয়ে পরিকল্পনা মাফিক সংসার চালাতে পারছেন তিনি।

এলাকার রাস্তাঘাটে উন্নয়ন হয়েছে। বয়স্করা বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন। বিধবারা বিধবা ভাতা পাচ্ছেন। প্রতিবন্ধীরা প্রতিবন্ধী ভাতা পাচ্ছেন। ভিক্ষুকদের পুনর্বাসনের সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে। এদেশে কোন সংখ্যাগুরু ও সংখ্যালঘু নেই। আমরা একজন আরেকজনের সহায়ক শক্তি। একজনের বিপদ মানে সবার বিপদ। এমন দর্শনে বিশ্বাসী ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ মারুফ হোসেন। ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী এমন একজন প্রার্থী যে সবদিক থেকে দক্ষ। একজন দক্ষ রাজনৈতিক কর্মী। একজন দক্ষ চেয়ারম্যান। কাজেই আগামী নির্বাচনে আবারো ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মারুফকে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আগামী পাঁচ বছরের জন্য পুনরায় নির্বাচিত করে এই ইউনিয়নে উন্নয়নের উন্নয়নের যে গতি চলমান আছে সেই গতিকে আরও বেগবান করতে হবে।

এ সময় ৫ নং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আব্দুল আজিজ বলেন, ঘোড়া মার্কা উন্নয়নের মার্কা ।কাজেই আগামী ২৮ তারিখের মার্কা ঘোড়া মার্ক। এমন মনোভাব নিয়ে প্রত্যেক ভোটারকে এই মার্কাকে বিজয়ী করতে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হবে।

ঘোড়া মার্কা প্রতীকের এর প্রার্থী মো: মারুফ হোসেন বলেন, বিগত পাঁচ বছর আমি এই ইউনিয়নের দায়িত্ব পালন করেছি। দায়িত্ব পালনকালে ভুল ত্রুটি করেছি কারন আমি ফেরেশতা নই আমি একজন মানুষ। তবে প্রতিটি ভুল পদক্ষেপ থেকে আমি শিক্ষা নিয়েছি। সে শিক্ষার আলোকেই আগামী ২৮ তারিখের নির্বাচনে আপনারা যদি আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করেন তাহলে আমি আমার প্রাণান্ত প্রচেষ্টার মাধ্যমে আপনাদের সেবা করার চেষ্টা করব সেই সাথে এই ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য যে সমস্ত কাজ এখনো অবশিষ্ট রয়েছে তা দ্রুততম সময়ের মধ্যে করার চেষ্টা করব।

সেই সাথে আজকের এই পথসভায় বিশাল উপস্থিতি আমার মনকে আরো বিশাল করে তুলেছে এই ভেবে যে এই এলাকার লোক আমাকে এত ভালবাসে ! এ কারণে সবাইকে শ্রেণীভেদে আমার সালাম ও আদাব। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন। খোদা হাফেজ আল্লাহ সর্বশক্তিমান।

রবিপুর গ্রামের পথসভার শেষে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা সহকারে ইউনিয়নের মোকলেসপুর এলাকায় অন্য আরও একটি পথসভা সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় মোখলেসপুরে অনুষ্ঠিত হয়ে। এই পথ সভাতেও বিপুল সংখ্যক ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। খোদা হাফেজ আল্লাহ সর্বশক্তিমান। পথসভা গুলোতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। এরই মধ্যে পুরো ইউনিয়নে ছড়িয়ে গেছে আগামী ২৮ তারিখের ঘোড়া মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মো: মারুফ হোসেনের বিজয় সময়ের ব্যাপার মাত্র বলে মনে করছে অত্র ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট ভোটাররা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

 

বাখ//আর