ঢাকা ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

২০২৩-২৪ অর্থবছরে এসেছে ২৩.৯১ বিলিয়ন ডলার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৮:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪
  • / ৪২৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সদ্য সমাপ্ত ২০২৩-২৪ অর্থবছরে দেশে তাক লাগানো রেমিট্যান্স এসেছে। এই সময়ে প্রবাসীরা দেশে ২৩.৯১ বিলিয়ন বা ২ হাজার ৩৯১ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। যা সবশেষ তিন অর্থবছরে সর্বোচ্চ।

একই সঙ্গে চলতি বছরের জুন মাসে রেমিট্যান্স প্রবাহেও দেখা গেছে চমক। এই মাসে প্রবাসীরা দেশে পাঠিয়েছেন ২.৫৪ বিলিয়ন বা ২৫৪ কোটি ডলার।

আজ (সোমবার, ১ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, এর আগে ২০২০-২১ অর্থবছরের জুলাইতে সর্বশেষ ২.৫৯ বিলিয়ন ডলার আসে দেশে। চলতি অর্থবছরে জানুয়ারি-এপ্রিল ও মে মাসে রেমিট্যান্স দুই বিলিয়নের ঘরে পৌঁছালেও এই অঙ্ক অতিক্রম করেনি। ধারণা করা হচ্ছে ডলারের বিনিময় হার বাড়ার কারণে আনুষ্ঠানিক খাতে রেমিট্যান্স পাঠাতে উৎসাহিত হয়েছেন প্রবাসীরা।

জুন মাসে দেশে আসা ২.৫৪ বিলিয়ন ডলারের মধ্যে সরকারি ব্যাংক থেকে এসেছে ৪৪১.৭৫ মিলিয়ন বা ৪৪ কোটি ১৭ লাখ ডলার, বিশেষায়িত ব্যাংক থেকে ৫২.৪০ মিলিয়ন বা ৫ কোটি ২৪ লাখ ডলার এবং বেসরকারি খাতের ব্যাংক থেকে এসেছে ১৪১৫.৩৫ মিলিয়ন বা ১৪১ কোটি ৫৩ লাখ ডলার।

এদিকে বছরের হিসাবেও এগিয়ে আছে সদ্যসমাপ্ত অর্থবছর। গত দুই অর্থবছরে অর্থাৎ ২০২১-২২ ও ২০২২-২৩ অর্থবছরে রেমিট্যান্স আসে যথাক্রমে ২১.০৩ বিলিয়ন বা ২ হাজার ১০৩ কোটি ডলার ও ২১.৬১ বিলিয়ন বা ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলার। সে হিসাবে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে রেমিট্যান্স বেশি এসেছে, যা দাঁড়িয়েছে ২৩.৯১ বিলিয়ন ডলারে।

দেশের ইতিহাসে ২০২০-২১ অর্থবছরে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছিল। ওই অর্থবছরে প্রবাসীরা ২ হাজার ৪৭৮ কোটি ডলারের সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠান।

নিউজটি শেয়ার করুন

২০২৩-২৪ অর্থবছরে এসেছে ২৩.৯১ বিলিয়ন ডলার

আপডেট সময় : ০৭:৩৮:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪

সদ্য সমাপ্ত ২০২৩-২৪ অর্থবছরে দেশে তাক লাগানো রেমিট্যান্স এসেছে। এই সময়ে প্রবাসীরা দেশে ২৩.৯১ বিলিয়ন বা ২ হাজার ৩৯১ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। যা সবশেষ তিন অর্থবছরে সর্বোচ্চ।

একই সঙ্গে চলতি বছরের জুন মাসে রেমিট্যান্স প্রবাহেও দেখা গেছে চমক। এই মাসে প্রবাসীরা দেশে পাঠিয়েছেন ২.৫৪ বিলিয়ন বা ২৫৪ কোটি ডলার।

আজ (সোমবার, ১ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, এর আগে ২০২০-২১ অর্থবছরের জুলাইতে সর্বশেষ ২.৫৯ বিলিয়ন ডলার আসে দেশে। চলতি অর্থবছরে জানুয়ারি-এপ্রিল ও মে মাসে রেমিট্যান্স দুই বিলিয়নের ঘরে পৌঁছালেও এই অঙ্ক অতিক্রম করেনি। ধারণা করা হচ্ছে ডলারের বিনিময় হার বাড়ার কারণে আনুষ্ঠানিক খাতে রেমিট্যান্স পাঠাতে উৎসাহিত হয়েছেন প্রবাসীরা।

জুন মাসে দেশে আসা ২.৫৪ বিলিয়ন ডলারের মধ্যে সরকারি ব্যাংক থেকে এসেছে ৪৪১.৭৫ মিলিয়ন বা ৪৪ কোটি ১৭ লাখ ডলার, বিশেষায়িত ব্যাংক থেকে ৫২.৪০ মিলিয়ন বা ৫ কোটি ২৪ লাখ ডলার এবং বেসরকারি খাতের ব্যাংক থেকে এসেছে ১৪১৫.৩৫ মিলিয়ন বা ১৪১ কোটি ৫৩ লাখ ডলার।

এদিকে বছরের হিসাবেও এগিয়ে আছে সদ্যসমাপ্ত অর্থবছর। গত দুই অর্থবছরে অর্থাৎ ২০২১-২২ ও ২০২২-২৩ অর্থবছরে রেমিট্যান্স আসে যথাক্রমে ২১.০৩ বিলিয়ন বা ২ হাজার ১০৩ কোটি ডলার ও ২১.৬১ বিলিয়ন বা ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলার। সে হিসাবে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে রেমিট্যান্স বেশি এসেছে, যা দাঁড়িয়েছে ২৩.৯১ বিলিয়ন ডলারে।

দেশের ইতিহাসে ২০২০-২১ অর্থবছরে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছিল। ওই অর্থবছরে প্রবাসীরা ২ হাজার ৪৭৮ কোটি ডলারের সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠান।