ঢাকা ০৫:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ !

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৬:০৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৪১ বার পড়া হয়েছে

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ !

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নাজমুল হক, কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি :

নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলায় এক নারীকে (২৫) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সম্পাদক রাসেল খানকে দল থেকে বহিষ্কারের পত্র প্রেরণ করেছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক অমিত সরকার স্বাক্ষরিত এক পত্রে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সাংগঠনিক গঠণতন্ত্র পরিপন্থী কাজের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে রাসেলকে বহিস্কারের সুপারিশ করে নেত্রকোণা জেলা কমিটি বরাবরে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। রাসেল খান উপজেলার কলমাকান্দা সদর ইউনিয়নের মেছুয়া বাজার এলাকার মৃত- টেপু মিয়ার ছেলে।

বহিস্কারের চিঠি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রংছাতি ইউনিয়নের পাতলাবন এলাকায় পাহাড় দেখানোর কথা বলে রাসেল খান ও তার তিন বন্ধু মিলে গত ২২ নভেম্বর পাতলাবন নদীর পাড়ের নিচু এলাকায় নিয়ে একনারীকে ধর্ষণ করে। ঘটনার সাত দিন পর ২৯ নভেম্বর ওই নারী বাদী হয়ে রাসেল খানসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে নেত্রকোনা বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই আদালতের নির্দেশে শনিবার মধ্য রাতে কলমাকান্দা থানায় ওই মামলাটি নথিভুক্ত হয়। পরদিন রোববার পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলা সদরের রেন্ট্রিতলা এলাকা থেকে রাসেল খান ও সেলিম মিয়াকে গ্রেপ্তার করেন।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সাংগঠনিক গঠনতন্ত্র পরিপন্থী কাজের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সম্পাদক রাসেল খানকে দল থেকে বহিস্কারের সুপারিশ করে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নিকট পত্র প্রেরণ করে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ ।

নিউজটি শেয়ার করুন

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ !

আপডেট সময় : ০৫:৫৬:০৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২২

নাজমুল হক, কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি :

নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলায় এক নারীকে (২৫) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সম্পাদক রাসেল খানকে দল থেকে বহিষ্কারের পত্র প্রেরণ করেছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক অমিত সরকার স্বাক্ষরিত এক পত্রে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সাংগঠনিক গঠণতন্ত্র পরিপন্থী কাজের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে রাসেলকে বহিস্কারের সুপারিশ করে নেত্রকোণা জেলা কমিটি বরাবরে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। রাসেল খান উপজেলার কলমাকান্দা সদর ইউনিয়নের মেছুয়া বাজার এলাকার মৃত- টেপু মিয়ার ছেলে।

বহিস্কারের চিঠি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রংছাতি ইউনিয়নের পাতলাবন এলাকায় পাহাড় দেখানোর কথা বলে রাসেল খান ও তার তিন বন্ধু মিলে গত ২২ নভেম্বর পাতলাবন নদীর পাড়ের নিচু এলাকায় নিয়ে একনারীকে ধর্ষণ করে। ঘটনার সাত দিন পর ২৯ নভেম্বর ওই নারী বাদী হয়ে রাসেল খানসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে নেত্রকোনা বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই আদালতের নির্দেশে শনিবার মধ্য রাতে কলমাকান্দা থানায় ওই মামলাটি নথিভুক্ত হয়। পরদিন রোববার পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলা সদরের রেন্ট্রিতলা এলাকা থেকে রাসেল খান ও সেলিম মিয়াকে গ্রেপ্তার করেন।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সাংগঠনিক গঠনতন্ত্র পরিপন্থী কাজের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সম্পাদক রাসেল খানকে দল থেকে বহিস্কারের সুপারিশ করে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নিকট পত্র প্রেরণ করে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ ।