ঢাকা ১২:২৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য; কীটনাশক পানে গৃহবধূর আত্মহত্যা 

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:০৫:০৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৫৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
পাবনার ভাঙ্গুড়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ায় অভিমানে রেবেকা খাতুন (৪৮) নামের এক গৃহবধূ কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চরভাঙ্গুড়া দিয়ারপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। গৃহবধূ রেবেকা খাতুন ওই গ্রামের নজরুল ইসলাম প্রামানিকের স্ত্রী। তাঁদের চারটি ছেলে-মেয়ে রয়েছে। ভাঙ্গুড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)  আত্মহত্যার ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।
থানা-পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পারিবারিক বিষয় নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরে স্বামীর সঙ্গে গৃহবধূ রেবেকার মনোমালিন্য চলছিল। এ নিয়ে তাদের দু’জনের মধ্যে ঝগড়াও হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে স্বামীর ওপর অভিমান করে শোবার ঘরের মধ্যে কীটনাশক পান করে ছটফট করতে থাকেন রেবেকা। বিষয়টি টের পেয়ে বাড়ির লোকজন রেবেকাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে উপজেলার রেল গেটের নিকট পৌঁছালে রেবেকা মারা যান।
রেবেকা খাতুনের ভাই সাগর হোসেন বলেন,’তার বোন রেবেকার সঙ্গে  দুলাভাইয়ের পারিবারিক বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য চলছিল। হঠাও আজকে সে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করে।’
এ বিষয়ে থানার পুলিশ পরির্দশক(তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান  বলেন,’ এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কারও কোন অভিযোগ না থাকায় দাফনের জন্য মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য; কীটনাশক পানে গৃহবধূর আত্মহত্যা 

আপডেট সময় : ১১:০৫:০৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
পাবনার ভাঙ্গুড়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ায় অভিমানে রেবেকা খাতুন (৪৮) নামের এক গৃহবধূ কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চরভাঙ্গুড়া দিয়ারপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। গৃহবধূ রেবেকা খাতুন ওই গ্রামের নজরুল ইসলাম প্রামানিকের স্ত্রী। তাঁদের চারটি ছেলে-মেয়ে রয়েছে। ভাঙ্গুড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)  আত্মহত্যার ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।
থানা-পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পারিবারিক বিষয় নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরে স্বামীর সঙ্গে গৃহবধূ রেবেকার মনোমালিন্য চলছিল। এ নিয়ে তাদের দু’জনের মধ্যে ঝগড়াও হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে স্বামীর ওপর অভিমান করে শোবার ঘরের মধ্যে কীটনাশক পান করে ছটফট করতে থাকেন রেবেকা। বিষয়টি টের পেয়ে বাড়ির লোকজন রেবেকাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে উপজেলার রেল গেটের নিকট পৌঁছালে রেবেকা মারা যান।
রেবেকা খাতুনের ভাই সাগর হোসেন বলেন,’তার বোন রেবেকার সঙ্গে  দুলাভাইয়ের পারিবারিক বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য চলছিল। হঠাও আজকে সে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করে।’
এ বিষয়ে থানার পুলিশ পরির্দশক(তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান  বলেন,’ এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কারও কোন অভিযোগ না থাকায় দাফনের জন্য মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।’