ঢাকা ০১:৩০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দিনাজপুরে তুমি সুর-আমি কথা

সুরের মূর্ছনা আছে বলেই পৃথিবী এখান ভারসাম্যহীন হয়ে যায়নি : স্বরূপ বকসী বাচ্চু

মোঃ খাদেমুল ইসলাম, দিনাজপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৭:০৫:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
  • / ৮২৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দিনাজপুর প্রেস ক্লাব, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটি দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু বলেছেন, আমাদের সংস্কৃতিকে রক্ষা করতে এবং সংগীত পিপাসু ধরে রাখতে আধুনিক গান যথেষ্ঠ অবদান রাখছে। সুরের মূর্ছনা আছে বলেই পৃথিবী এখান ভারসাম্যহীন হয়ে যায়নি। অতীতে যখনি পৃথিবীতে অরাজকতা নেমে এসেছে তখন একমাত্র সুর সেখানে একি সুতোয় বেধেছে সামগ্রিকতাকে।

“তুমি যে সুরের আগুন লাগিয়ে দিলে মোর প্রাণে-এই সংগীতের ছন্দমালাকে সামনে রেখে সুরের আকাশের আয়োজনে এবং ঐতিহ্যবাসী সাংস্কৃতিক সংগঠন নবরূপীর সহযোগিতায় দিনাজপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বীর মুক্তিযোদ্ধা গীতিকার ফরহাদ আহমেদ সুরারোপিত আধুনিক গানের অনুষ্ঠান “তুমি সুর-আমি কথা অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

দিনাজপুর নাগরিক উদ্যোগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ শহীদুল ইসলাম খান, রাজ দেবোত্তর এষ্টেটের এজেন্ট রণজিৎ কুমার সিংহ ও নাট্য কর্মী রংপুর বেতারের বিশিষ্ট গীতিকার জোবায়দুর রহমান।

সূচনা বক্তব্য রাখতে গিয়ে গীতিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ আহমেদ ও তার সহধর্মিনী সুফিয়া আহমেদ বলেন, সমাজের অবক্ষয় কাটিয়ে উঠতে এবং যুব সমাজকে রক্ষা করতে যুবকদের মোবাইলের নেশা ত্যাগ করে সংগীতের নেশা ধরাতে হবে। “মরহুমা তাজেদা আহমেদ যুথি ও স্বর্গীয় তিলক বিশ্বাস এর স্মরণে উৎসর্গকৃত অনুষ্ঠান “তুমি সুর আমি কথা অনুষ্ঠানে ফরহাদ আহমেদের একক সুরারোপিত আধুনিক গান গেয়ে সংগীত পিপাসুদের মন জয় করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ শহীদুল ইসলাম খান, শফিকুল ইসলাম বকুল, প্রশান্ত কুমার রায়, পম্পি সরকার, পাš’ আহমেদ, ইয়াসমিন কাশমেরী, হাবিবুল হক তুষার, সাধনা, এ্যাডঃ শাহনাজ, রাইসা তাসনিম, মেধা ঘোষ, হাফিজা শারমিন সুমি, পলাশ দাস, শিমুল কর্মকার, অনুরাধা শর্মা, লহ্মী কান্ত, রেখা সাহা।

তাদের সহযোগিতা করেন বেতার টেলিভিশনের যন্ত্রীবাদকদল। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন প্রভাষক হারুন-উর-রশিদ। সভাপতির বক্তব্য আবুল কালাম আজাদ বলেন, মরহুম মাজেদ রানা শুধু একজন ভালো নাট্য শিল্পীই ছিলেন না, তিনি যে একজন ভালো গীতিকার ছিলেন এ ব্যাপারে আমাদের নতুন প্রজন্মদের জানাতে হবে। আমাদেরর সংস্কৃতি চর্চার ক্ষেত্রে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ আহমেদের মত অনেক প্রতিভাবান শিল্পীদের মঞ্চে আসতে হবে।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

দিনাজপুরে তুমি সুর-আমি কথা

সুরের মূর্ছনা আছে বলেই পৃথিবী এখান ভারসাম্যহীন হয়ে যায়নি : স্বরূপ বকসী বাচ্চু

আপডেট সময় : ০৭:০৫:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

দিনাজপুর প্রেস ক্লাব, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটি দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু বলেছেন, আমাদের সংস্কৃতিকে রক্ষা করতে এবং সংগীত পিপাসু ধরে রাখতে আধুনিক গান যথেষ্ঠ অবদান রাখছে। সুরের মূর্ছনা আছে বলেই পৃথিবী এখান ভারসাম্যহীন হয়ে যায়নি। অতীতে যখনি পৃথিবীতে অরাজকতা নেমে এসেছে তখন একমাত্র সুর সেখানে একি সুতোয় বেধেছে সামগ্রিকতাকে।

“তুমি যে সুরের আগুন লাগিয়ে দিলে মোর প্রাণে-এই সংগীতের ছন্দমালাকে সামনে রেখে সুরের আকাশের আয়োজনে এবং ঐতিহ্যবাসী সাংস্কৃতিক সংগঠন নবরূপীর সহযোগিতায় দিনাজপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বীর মুক্তিযোদ্ধা গীতিকার ফরহাদ আহমেদ সুরারোপিত আধুনিক গানের অনুষ্ঠান “তুমি সুর-আমি কথা অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

দিনাজপুর নাগরিক উদ্যোগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ শহীদুল ইসলাম খান, রাজ দেবোত্তর এষ্টেটের এজেন্ট রণজিৎ কুমার সিংহ ও নাট্য কর্মী রংপুর বেতারের বিশিষ্ট গীতিকার জোবায়দুর রহমান।

সূচনা বক্তব্য রাখতে গিয়ে গীতিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ আহমেদ ও তার সহধর্মিনী সুফিয়া আহমেদ বলেন, সমাজের অবক্ষয় কাটিয়ে উঠতে এবং যুব সমাজকে রক্ষা করতে যুবকদের মোবাইলের নেশা ত্যাগ করে সংগীতের নেশা ধরাতে হবে। “মরহুমা তাজেদা আহমেদ যুথি ও স্বর্গীয় তিলক বিশ্বাস এর স্মরণে উৎসর্গকৃত অনুষ্ঠান “তুমি সুর আমি কথা অনুষ্ঠানে ফরহাদ আহমেদের একক সুরারোপিত আধুনিক গান গেয়ে সংগীত পিপাসুদের মন জয় করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ শহীদুল ইসলাম খান, শফিকুল ইসলাম বকুল, প্রশান্ত কুমার রায়, পম্পি সরকার, পাš’ আহমেদ, ইয়াসমিন কাশমেরী, হাবিবুল হক তুষার, সাধনা, এ্যাডঃ শাহনাজ, রাইসা তাসনিম, মেধা ঘোষ, হাফিজা শারমিন সুমি, পলাশ দাস, শিমুল কর্মকার, অনুরাধা শর্মা, লহ্মী কান্ত, রেখা সাহা।

তাদের সহযোগিতা করেন বেতার টেলিভিশনের যন্ত্রীবাদকদল। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন প্রভাষক হারুন-উর-রশিদ। সভাপতির বক্তব্য আবুল কালাম আজাদ বলেন, মরহুম মাজেদ রানা শুধু একজন ভালো নাট্য শিল্পীই ছিলেন না, তিনি যে একজন ভালো গীতিকার ছিলেন এ ব্যাপারে আমাদের নতুন প্রজন্মদের জানাতে হবে। আমাদেরর সংস্কৃতি চর্চার ক্ষেত্রে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ আহমেদের মত অনেক প্রতিভাবান শিল্পীদের মঞ্চে আসতে হবে।

 

বাখ//আর