ঢাকা ০৯:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সুনামগঞ্জের উজ্জ্বল নক্ষত্র ‘গোলাম রব্বানী’ সরণি উদ্বোধন 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:০৬:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫৫৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// রাজু আহমেদ রমজান, সুনামগঞ্জ //
সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত গোলাম রব্বানী এর নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা শহরের জামাইপাড়া সড়কটি ‘গোলাম রব্বানী সরণি’ নামে নামকরণ করা হয়। পৌরসভার মেয়র নাদের বখত এর উদ্যোগে গুণী এ ব্যক্তির নামে এ সড়কের  নামকরণ করা হয়। শুক্রবার (৪ আগস্ট) বেলা ১১ টায় নামকরণ শেষে এর উদ্বোধন  করেন জননন্দিত মেয়র নাদের বখত।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সাংসদ, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট শামছুন নাহার বেগম শাহানা রব্বানী, যুদ্ধকালীন কোম্পানী কমান্ডার অ্যাডভোকেট আলী আমজাদ, জেলা পরিষদের সদস্যা ফৌজিআরা বেগম শাম্মী, শহীদ জগৎজ্যোতি পাঠাগারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শামছুল আবেদীন, নারীনেত্রী সঞ্চিতা চৌধুরী, সমকালের জেলা প্রতিনিধি পংকজ দে, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা বাসস এর জেলা সংবাদদাতা আল-হেলাল মো. ইকবাল মাহমুদ, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট খলিল রহমান, বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি মাসুম হেলাল, প্রয়াত ওই গুণি ব্যক্তিত্বের একমাত্র ছেলে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফজলে রাব্বি স্মরণ, কন্যা ডা. কনিজ রেহনুমা রব্বানী কথা, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম শ্যামল, কার্যনির্বাহী সদস্য ফরিদ মিয়া, সংবাদ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সদস্য রাজু আহমেদ রমজান, সাংবাদিক জসিম উদ্দিন, সাংবাদিক আনোয়ারুল হক, সুলেমান কবির, ডিবিসি টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি সাইদুর রহমান আসাদ, সাংবাদিক মোশাহিদ রাহাত, বৈশাখী টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি কর্ণবাবু, সাংবাদিক একে মিলনসহ অনেকে।
স্মরণকালের গৌরবময় এ অধ্যায় প্রসঙ্গে প্রয়াত গোলাম রব্বানীর সহধর্মীনি অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আল্লাহর প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করে মেয়র নাদের বখত এর শুভ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। ওই দম্পতির একমাত্র ছেলে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফজলে রাব্বি স্মরণ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগে একটি স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি আমরা। দেশ-মাতৃকার টানে অন্যান্য বীর মুক্তিযোদ্ধার মতো তার পিতাও যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। মরহুম পিতার নামে সড়কের নামকরণ করায় মেয়র নাদের বখত এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শেগড়া তরুণ এ রাজনীতিক।
উল্লেখ্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রব্বানী ১৯৪৬ সালের ১৯ নভেম্বর তৎকালীন সুনামগঞ্জ মহকুমার সদর থানার (বর্তমান শান্তিগঞ্জ উপজেলা) জয়কলস ইউনিয়নের উজানীগাঁও গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ২০০৬ সালের ৪ঠা আগস্ট শুক্রবার না ফেরার দেশে চলে যান এই উজ্জ্বল নক্ষত্র। শুক্রবার (৪ আগষ্ট) ছিল তাঁর ১৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী।
বহুগুণের অধিকারী গোলাম রব্বানী জীবদ্দশায় ১৯৬৭ সালে বিপুল ভোটে সুনামগঞ্জ কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি নির্বাচিত হন। মুক্তিযুদ্ধে বালাট সাব-সেক্টরের কোম্পানী কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের জেলা ইউনিট কমান্ডের প্রধান উপদেষ্টা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সিলেট বিভাগ বাস্তবায়ন কমিটির জেলা আহবায়ক, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের প্রথম কার্যকরী কমিটির সভাপতি, সুনামগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সভাপতিসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন তিনি। তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয়েছে সাপ্তাহিক গ্রাম বাংলার কথা, সাপ্তাহিক বিন্দু বিন্দু রক্তে নামের দুটি পত্রিকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

সুনামগঞ্জের উজ্জ্বল নক্ষত্র ‘গোলাম রব্বানী’ সরণি উদ্বোধন 

আপডেট সময় : ০৬:০৬:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ অগাস্ট ২০২৩
// রাজু আহমেদ রমজান, সুনামগঞ্জ //
সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত গোলাম রব্বানী এর নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা শহরের জামাইপাড়া সড়কটি ‘গোলাম রব্বানী সরণি’ নামে নামকরণ করা হয়। পৌরসভার মেয়র নাদের বখত এর উদ্যোগে গুণী এ ব্যক্তির নামে এ সড়কের  নামকরণ করা হয়। শুক্রবার (৪ আগস্ট) বেলা ১১ টায় নামকরণ শেষে এর উদ্বোধন  করেন জননন্দিত মেয়র নাদের বখত।
আরও পড়ুন : নাঙ্গলকোটে মামলায় জড়িয়ে হয়রানীর প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সাংসদ, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট শামছুন নাহার বেগম শাহানা রব্বানী, যুদ্ধকালীন কোম্পানী কমান্ডার অ্যাডভোকেট আলী আমজাদ, জেলা পরিষদের সদস্যা ফৌজিআরা বেগম শাম্মী, শহীদ জগৎজ্যোতি পাঠাগারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শামছুল আবেদীন, নারীনেত্রী সঞ্চিতা চৌধুরী, সমকালের জেলা প্রতিনিধি পংকজ দে, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা বাসস এর জেলা সংবাদদাতা আল-হেলাল মো. ইকবাল মাহমুদ, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট খলিল রহমান, বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি মাসুম হেলাল, প্রয়াত ওই গুণি ব্যক্তিত্বের একমাত্র ছেলে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফজলে রাব্বি স্মরণ, কন্যা ডা. কনিজ রেহনুমা রব্বানী কথা, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম শ্যামল, কার্যনির্বাহী সদস্য ফরিদ মিয়া, সংবাদ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সদস্য রাজু আহমেদ রমজান, সাংবাদিক জসিম উদ্দিন, সাংবাদিক আনোয়ারুল হক, সুলেমান কবির, ডিবিসি টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি সাইদুর রহমান আসাদ, সাংবাদিক মোশাহিদ রাহাত, বৈশাখী টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি কর্ণবাবু, সাংবাদিক একে মিলনসহ অনেকে।
স্মরণকালের গৌরবময় এ অধ্যায় প্রসঙ্গে প্রয়াত গোলাম রব্বানীর সহধর্মীনি অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আল্লাহর প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করে মেয়র নাদের বখত এর শুভ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। ওই দম্পতির একমাত্র ছেলে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফজলে রাব্বি স্মরণ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগে একটি স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি আমরা। দেশ-মাতৃকার টানে অন্যান্য বীর মুক্তিযোদ্ধার মতো তার পিতাও যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। মরহুম পিতার নামে সড়কের নামকরণ করায় মেয়র নাদের বখত এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শেগড়া তরুণ এ রাজনীতিক।
উল্লেখ্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রব্বানী ১৯৪৬ সালের ১৯ নভেম্বর তৎকালীন সুনামগঞ্জ মহকুমার সদর থানার (বর্তমান শান্তিগঞ্জ উপজেলা) জয়কলস ইউনিয়নের উজানীগাঁও গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ২০০৬ সালের ৪ঠা আগস্ট শুক্রবার না ফেরার দেশে চলে যান এই উজ্জ্বল নক্ষত্র। শুক্রবার (৪ আগষ্ট) ছিল তাঁর ১৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী।
বহুগুণের অধিকারী গোলাম রব্বানী জীবদ্দশায় ১৯৬৭ সালে বিপুল ভোটে সুনামগঞ্জ কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি নির্বাচিত হন। মুক্তিযুদ্ধে বালাট সাব-সেক্টরের কোম্পানী কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের জেলা ইউনিট কমান্ডের প্রধান উপদেষ্টা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সিলেট বিভাগ বাস্তবায়ন কমিটির জেলা আহবায়ক, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের প্রথম কার্যকরী কমিটির সভাপতি, সুনামগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সভাপতিসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন তিনি। তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয়েছে সাপ্তাহিক গ্রাম বাংলার কথা, সাপ্তাহিক বিন্দু বিন্দু রক্তে নামের দুটি পত্রিকা।