ঢাকা ১২:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সিরিয়ার আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে অনড় যুক্তরাষ্ট্র

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:১৬:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩
  • / ৪৪৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: একাধিক আরব মিত্র সম্পর্ক পুনঃস্থাপন করলেও সিরিয়ার আসাদ সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে না যুক্তরাষ্ট্র।

শনিবার (৬ মে) মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এমনটিই জানায় কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

সম্প্রতি ফোন কলে সিরিয়া বিষয়ে জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আয়মান সাফাদির কাছে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান তুলে ধরেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন।

তিনি বলেন, জাতিসংঘ সনদের শর্ত পূরণ না করায় দামেস্কের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকে আগ্রহী নয় ওয়াশিংটন।

২০১৫ সালে নিরাপত্তা পরিষদে দেশটিতে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের আহ্বান জানানো হলেও সে শর্ত এখনও পূরণ করেনি বাশার আল আসাদ সরকার।

এদিকে, রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন- আম্মানে অনুষ্ঠেয় বৈঠকেই সিরিয়াকে আরব ব্লকে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু করতে পারে সৌদি আরব, মিশর ও ইরাক। ২০১১ সালে গৃহযুদ্ধ শুরুর পর গেলো এপ্রিলে দামেস্কের সঙ্গে ফের কূটনৈতিক সম্পর্ক শুরু করে ঘনিষ্ঠ মার্কিন মিত্র সৌদি আরব।

নিউজটি শেয়ার করুন

সিরিয়ার আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে অনড় যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট সময় : ০১:১৬:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: একাধিক আরব মিত্র সম্পর্ক পুনঃস্থাপন করলেও সিরিয়ার আসাদ সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে না যুক্তরাষ্ট্র।

শনিবার (৬ মে) মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এমনটিই জানায় কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

সম্প্রতি ফোন কলে সিরিয়া বিষয়ে জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আয়মান সাফাদির কাছে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান তুলে ধরেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন।

তিনি বলেন, জাতিসংঘ সনদের শর্ত পূরণ না করায় দামেস্কের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকে আগ্রহী নয় ওয়াশিংটন।

২০১৫ সালে নিরাপত্তা পরিষদে দেশটিতে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের আহ্বান জানানো হলেও সে শর্ত এখনও পূরণ করেনি বাশার আল আসাদ সরকার।

এদিকে, রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন- আম্মানে অনুষ্ঠেয় বৈঠকেই সিরিয়াকে আরব ব্লকে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু করতে পারে সৌদি আরব, মিশর ও ইরাক। ২০১১ সালে গৃহযুদ্ধ শুরুর পর গেলো এপ্রিলে দামেস্কের সঙ্গে ফের কূটনৈতিক সম্পর্ক শুরু করে ঘনিষ্ঠ মার্কিন মিত্র সৌদি আরব।