ঢাকা ০৮:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সিএনজি-অটোভ্যান সংঘর্ষে প্রাণ গেল কলেজ ছাত্রের : আহত ৪

আশরাফুল ইসলাম রনি
  • আপডেট সময় : ০১:৫৫:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৬২৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

// তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি //

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলামের ছেলে নাঈম আহমেদ (২০) নামে কলেজছাত্র সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় চারজন আহত হয়েছেন।

শনিবার (১৯আগষ্ট) সকালে তাড়াশ থেকে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে হাটিকুমরুল রোডে যাওয়ার পথে সলঙ্গা থানার কুটিরচর নামক এলাকায় এ দুঘর্টনা ঘটে।

নিহত নাঈম আহমেদ তাড়াশ পৌর এলাকার ভাদাশ মধ্যেপাড়া গ্রামের তাড়াশ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলামের ছেলে।

স্থানীয়দের বরাতে তাড়াশ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল হাকিম জানান, সকালে সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলাম ও তার ছেলে নাঈম আহমেদ তাড়াশ থেকে হাটিকুমরুল রোডে যাওয়ার জন্য সিএনজি অটোরিক্সা যোগে যাওয়ার পথে বিপরীত থেকে আসা একটি অটোভ্যানের সঙ্গে তাদের বহনকারী সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলাম গুরুত্বর আহত হন ও তার বড় ছেলে নাঈম ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ ঘটনায় আরো চারজন আহত হয়।

সলঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: এনামুল হক জানান, আজ সকালে তাড়াশ থেকে সিএনজি অটোরিকশা যোগে রোডে যাওয়ার সময় কুটিরচর নামক এলাকায় সিএনজির সঙ্গে অটোভ্যানের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত হয়। এছাড়া সিএনজির চারজন যাত্রী আহত। খবরপেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

সিএনজি-অটোভ্যান সংঘর্ষে প্রাণ গেল কলেজ ছাত্রের : আহত ৪

আপডেট সময় : ০১:৫৫:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ অগাস্ট ২০২৩

// তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি //

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলামের ছেলে নাঈম আহমেদ (২০) নামে কলেজছাত্র সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় চারজন আহত হয়েছেন।

শনিবার (১৯আগষ্ট) সকালে তাড়াশ থেকে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে হাটিকুমরুল রোডে যাওয়ার পথে সলঙ্গা থানার কুটিরচর নামক এলাকায় এ দুঘর্টনা ঘটে।

নিহত নাঈম আহমেদ তাড়াশ পৌর এলাকার ভাদাশ মধ্যেপাড়া গ্রামের তাড়াশ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলামের ছেলে।

স্থানীয়দের বরাতে তাড়াশ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল হাকিম জানান, সকালে সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলাম ও তার ছেলে নাঈম আহমেদ তাড়াশ থেকে হাটিকুমরুল রোডে যাওয়ার জন্য সিএনজি অটোরিক্সা যোগে যাওয়ার পথে বিপরীত থেকে আসা একটি অটোভ্যানের সঙ্গে তাদের বহনকারী সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল ইসলাম গুরুত্বর আহত হন ও তার বড় ছেলে নাঈম ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ ঘটনায় আরো চারজন আহত হয়।

সলঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: এনামুল হক জানান, আজ সকালে তাড়াশ থেকে সিএনজি অটোরিকশা যোগে রোডে যাওয়ার সময় কুটিরচর নামক এলাকায় সিএনজির সঙ্গে অটোভ্যানের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত হয়। এছাড়া সিএনজির চারজন যাত্রী আহত। খবরপেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।