ঢাকা ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সার সংকটের মুখে পড়েছে বিশ্ব

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৫২:৪৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৪৫১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফসফরাসের অত্যধিক ব্যবহারে সার সংকটের মুখে পড়েছে বিশ্ব। পাশাপাশি জলবায়ু সংকটকেও যুক্ত করছে। রোববার(১২মার্চ) ব্রিটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ান এক প্রতিবেদনে বিজ্ঞানীদের এই সতর্ক বার্তা তুলে ধরেছে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন,”ফসফরাসের অপব্যবহার সারের মারাত্মক ঘাটতি হতে পারে যা বিশ্বব্যাপী খাদ্য উৎপাদন ব্যাহত করবে।”

বিশ্বজুড়ে প্রতিবছর প্রায় ৫০ মিলিয়ন টন ফসফেট সার বিক্রি হয়। বিরাট এ সরবরাহ পৃথিবীর ৮০০ কোটি মানুষের জন্য খাদ্য উৎপাদনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাটি পালন করে।

বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ ফসফেট রয়েছে মরক্কো এবং পশ্চিম সাহারায়। চীন দ্বিতীয়, আলজেরিয়া তৃতীয়। ফসল উৎপাদন ছাড়াও অন্যান্য ক্ষেত্রেও অতিরিক্ত ফসফরাস ব্যবহারের ফলে সার সংকট দেখা দিচ্ছে। এতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়বে উন্নয়নশীল দেশগুলো। এছাড়া উৎপাদন হ্রাস পাওয়ায় ব্যাপক খাদ্য ঘাটতির আশঙ্কা তো রয়েছেই।

একই সময়ে ফসলের মাঠ থেকে ফসফেট সার পয়োনিষ্কাশন বর্জের সঙ্গে মিশে গিয়ে মিশছে নদী, হ্রদ এবং সমুদ্রে। আর এই ফসফেটের কারণে ব্যাপক শৈবাল জন্মাচ্ছে। যা জলজ মৃত অঞ্চল তৈরি করে হুমকির মুখে ফেলছে মাছের মজুতকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

সার সংকটের মুখে পড়েছে বিশ্ব

আপডেট সময় : ১২:৫২:৪৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফসফরাসের অত্যধিক ব্যবহারে সার সংকটের মুখে পড়েছে বিশ্ব। পাশাপাশি জলবায়ু সংকটকেও যুক্ত করছে। রোববার(১২মার্চ) ব্রিটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ান এক প্রতিবেদনে বিজ্ঞানীদের এই সতর্ক বার্তা তুলে ধরেছে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন,”ফসফরাসের অপব্যবহার সারের মারাত্মক ঘাটতি হতে পারে যা বিশ্বব্যাপী খাদ্য উৎপাদন ব্যাহত করবে।”

বিশ্বজুড়ে প্রতিবছর প্রায় ৫০ মিলিয়ন টন ফসফেট সার বিক্রি হয়। বিরাট এ সরবরাহ পৃথিবীর ৮০০ কোটি মানুষের জন্য খাদ্য উৎপাদনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাটি পালন করে।

বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ ফসফেট রয়েছে মরক্কো এবং পশ্চিম সাহারায়। চীন দ্বিতীয়, আলজেরিয়া তৃতীয়। ফসল উৎপাদন ছাড়াও অন্যান্য ক্ষেত্রেও অতিরিক্ত ফসফরাস ব্যবহারের ফলে সার সংকট দেখা দিচ্ছে। এতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়বে উন্নয়নশীল দেশগুলো। এছাড়া উৎপাদন হ্রাস পাওয়ায় ব্যাপক খাদ্য ঘাটতির আশঙ্কা তো রয়েছেই।

একই সময়ে ফসলের মাঠ থেকে ফসফেট সার পয়োনিষ্কাশন বর্জের সঙ্গে মিশে গিয়ে মিশছে নদী, হ্রদ এবং সমুদ্রে। আর এই ফসফেটের কারণে ব্যাপক শৈবাল জন্মাচ্ছে। যা জলজ মৃত অঞ্চল তৈরি করে হুমকির মুখে ফেলছে মাছের মজুতকে।