ঢাকা ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সারাদেশে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১২:৫৫:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪
  • / ৪২৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কখনো মেঘলা আকাশ কখনো আবার চকচকে রোদ। কোথাও কোথাও দেখা মিলছে বৃষ্টির। এর মধ্যে ভ্যাপসা তীব্র গরমে মানুষের হাসফাঁস অবস্থা। অস্বস্তিকর এই পরিস্থিতিতে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে এবং তা কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শনিবার (৮ জুন) সকালে আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছে।

কয়েক দিন ধরে তীব্র গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা। অস্বস্তিকর এ পরিস্থিতিতে গরম আরও কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে ধারণা আবহাওয়া অফিসের।

চুয়াডাঙ্গায় শুক্রবার (৭ জুন) দেশের সর্বোচ্চ ৩৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। এদিন বেশ কিছু অঞ্চলেই তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, খুলনা ও বরিশাল বিভাগসহ টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম ও চাঁদপুর জেলার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতি শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা অব্যাহত থাকতে পারে। এ ছাড়া শনিবার সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। আগামীকাল রোববার (৯ জুন) দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। তবে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরদিন সোমবারও (১০ জুন) দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এ কদিন অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে অস্বস্তি বিরাজ করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এছাড়াও আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরও বলা হয় আগামীকাল রোবারের রংপুর ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় ও খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। সেই সাথে চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়াও বর্ধিত পাঁচ দিনের শেষের দিকে দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহওয়া অফিস।

নিউজটি শেয়ার করুন

সারাদেশে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে

আপডেট সময় : ১২:৫৫:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

কখনো মেঘলা আকাশ কখনো আবার চকচকে রোদ। কোথাও কোথাও দেখা মিলছে বৃষ্টির। এর মধ্যে ভ্যাপসা তীব্র গরমে মানুষের হাসফাঁস অবস্থা। অস্বস্তিকর এই পরিস্থিতিতে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে এবং তা কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শনিবার (৮ জুন) সকালে আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছে।

কয়েক দিন ধরে তীব্র গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা। অস্বস্তিকর এ পরিস্থিতিতে গরম আরও কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে ধারণা আবহাওয়া অফিসের।

চুয়াডাঙ্গায় শুক্রবার (৭ জুন) দেশের সর্বোচ্চ ৩৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। এদিন বেশ কিছু অঞ্চলেই তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, খুলনা ও বরিশাল বিভাগসহ টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম ও চাঁদপুর জেলার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতি শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা অব্যাহত থাকতে পারে। এ ছাড়া শনিবার সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। আগামীকাল রোববার (৯ জুন) দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। তবে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরদিন সোমবারও (১০ জুন) দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এ কদিন অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে অস্বস্তি বিরাজ করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এছাড়াও আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরও বলা হয় আগামীকাল রোবারের রংপুর ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় ও খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। সেই সাথে চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়াও বর্ধিত পাঁচ দিনের শেষের দিকে দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহওয়া অফিস।