ঢাকা ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মতিন হত্যাকান্ড-নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে নিহতের পরিবার

সাঁথিয়ায় স্বামী হত্যার বিচার চেয়ে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

জালাল উদ্দিন
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৫:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫২০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি //
পাবনার সাঁথিয়ায় চাঞ্চল্যকর মতিন হত্যার প্রকৃত খুনিদের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন নিহত মতিনের স্ত্রী আজিরন খাতুন। রোববার (২০আগষ্ট) দুপুরে সাঁথিয়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে নিহত মতিনের স্ত্রীর পক্ষে তার বড় মেয়ে সবিতা খাতুন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার স্বামীকে গত বছরের ৪ জুন নাগডেমরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান, কামরুজ্জামান রতন, জাহিদুল ইসলাম, মিজানুর রহমান ও তার লোকজন পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে। আমরা এই হত্যা কান্ডের বিচার চাই।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নিহত মতিনের ছোট মেয়ে নাসরিন আক্তার (১৮) বলেন, পিতা হত্যার বিচার চাওয়ায় আমরা পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
এর আগে গত ২৯ জুলাই একই হত্যাকান্ডের বিষয়ে মতিনের স্ত্রীসহ পরিবারের সদস্যরা সাঁথিয়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তিনি অভিযোগ করেন, নাগডেমরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ ও তার ছোট ভাই আমার স্বামীকে হত্যা করেছে এবং ঘটনা ধামাচাপা দিতে নানা নাটক সাজিয়েছেন। অভিযোগে আরও বলেন, আমার স্বামী হত্যার প্রকৃত খুনিদের আড়াল করার চেষ্টা করছেন মামলার বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নিহত মতিনের স্ত্রী আজিরন খাতুন, মেয়ে সবিতা খাতুন, নাসরিন আক্তার, আশা মনি ও মেয়ে জামাই আশরাফুল ইসলাম।
উল্লেখ্য,গত বছরের (২০২২) ৪ জুন রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সাঁথিয়া পৌর এলাকার ফেঁচুয়ান ছোটপুটিপাড়া গ্রামের আওলঘাটা ঘোনারচক ইছামতি নদীর দক্ষিণ তীরে মহির উদ্দিন ওরফে মরহের ছেলে আব্দুল মতিনকে (৫০) কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

মতিন হত্যাকান্ড-নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে নিহতের পরিবার

সাঁথিয়ায় স্বামী হত্যার বিচার চেয়ে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৫:৪৫:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ অগাস্ট ২০২৩
// সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি //
পাবনার সাঁথিয়ায় চাঞ্চল্যকর মতিন হত্যার প্রকৃত খুনিদের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন নিহত মতিনের স্ত্রী আজিরন খাতুন। রোববার (২০আগষ্ট) দুপুরে সাঁথিয়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে নিহত মতিনের স্ত্রীর পক্ষে তার বড় মেয়ে সবিতা খাতুন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার স্বামীকে গত বছরের ৪ জুন নাগডেমরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান, কামরুজ্জামান রতন, জাহিদুল ইসলাম, মিজানুর রহমান ও তার লোকজন পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে। আমরা এই হত্যা কান্ডের বিচার চাই।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নিহত মতিনের ছোট মেয়ে নাসরিন আক্তার (১৮) বলেন, পিতা হত্যার বিচার চাওয়ায় আমরা পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
এর আগে গত ২৯ জুলাই একই হত্যাকান্ডের বিষয়ে মতিনের স্ত্রীসহ পরিবারের সদস্যরা সাঁথিয়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তিনি অভিযোগ করেন, নাগডেমরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ ও তার ছোট ভাই আমার স্বামীকে হত্যা করেছে এবং ঘটনা ধামাচাপা দিতে নানা নাটক সাজিয়েছেন। অভিযোগে আরও বলেন, আমার স্বামী হত্যার প্রকৃত খুনিদের আড়াল করার চেষ্টা করছেন মামলার বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নিহত মতিনের স্ত্রী আজিরন খাতুন, মেয়ে সবিতা খাতুন, নাসরিন আক্তার, আশা মনি ও মেয়ে জামাই আশরাফুল ইসলাম।
উল্লেখ্য,গত বছরের (২০২২) ৪ জুন রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সাঁথিয়া পৌর এলাকার ফেঁচুয়ান ছোটপুটিপাড়া গ্রামের আওলঘাটা ঘোনারচক ইছামতি নদীর দক্ষিণ তীরে মহির উদ্দিন ওরফে মরহের ছেলে আব্দুল মতিনকে (৫০) কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।