ঢাকা ১০:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সাঁথিয়ায় আগুনে পুড়ল গবাদিপশু ও টাকাসহ বসতঘর

জালাল উদ্দিন, সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:৪১:০৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৫০৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পাবনার সাঁথিয়ায় নন্দনপুর ইউনিয়নের জোড়াগাছা গ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ছাগল, হাঁস-মুরগি ও নগদটাকাসহ তিনটি বসতঘর ও একটি রান্নাঘড় পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে গেছে। এ সময় এনজিও থেকে কিস্তিতে তোলা ঋনের প্রায় নগদ এক লাখ ৩০ হাজার টাকা পুড়ে গেছে বলে বাড়ির মালিক জানান। শনিবার (৬এপ্রিল) ইফতারের পূর্ব মুহুর্তে ওই গ্রামের কিয়াম উদ্দিনের ছেলে আব্দুস সালামের বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। আগুনে প্রায় ৭ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে বাড়ির মালিকের দাবী। রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে বলে এলাকাবাসী ও বাড়ির সদস্যরা জানান। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটির বসবাসের আর কোন ঘর না থাকায় বর্তমানে তাঁরা খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে।

পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকেল সারে ৫টার দিকে ওই বাড়ির সদস্যরা রান্না করার সময় অসাবধানতাবশত চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। চৈত্রের তাপদাহে মুহুর্তে আগুনের লেলিহানশিখা দিনমজুর আব্দুস সালামের নিজের ও ছেলেদের বসতঘরে ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাবাসী ও সাঁথিয়া ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও ততক্ষণে পুড়ে সব শেষ হয়ে যায়। এ সময় নগদ এক লাখ ৩০হাজার টাকা,তিনটি টিনের বসতঘর ও একটি রান্নাঘড়,দুটি ছাগল ও হাঁস-মুরগিসহ ঘরে রক্ষিত মালামাল পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুটি গরুকে অন্যত্র সড়িয়ে নেওয়া হয়।

বাড়ির মালিক আব্দুস সালামের ছেলে নাইম হোসেন জানান,গরু কেনার জন্য স্থানীয় বেসরকরি উন্নয়ন সংস্থা(এনজিও) থেকে কিস্তিতে তোলা টাকা এবং দিনমজুর দিয়ে বাড়িতে জমানো টাকাসহ প্রায় এক লাখ ৩০ হাজার নগদ টাকা ও গবাদিপশুসহ বসতঘর পুড়ে সব শেষ হয়ে গেছে। আমাদের পড়নের কাপড় ছাড়া আর কিছুই নেই। এমনিতে আমরা দরিদ্র মানুষ এরপর আগুনে পুড়ে আরো নিঃশ্ব হয়ে গেলাম।

রোববার (৭এপ্রিল) জোড়গাছা গ্রামের সমাজসেবক আব্দুর রহমান মাতুসহ এলাকার অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটিকে খাদ্যদ্রব্য চাউল,ডাউল,তেলসহ বিভিন্ন পণ্য ও আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন ।

সাঁথিয়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার অর্ঘ্য দেবনাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,আমরা আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

সাঁথিয়ায় আগুনে পুড়ল গবাদিপশু ও টাকাসহ বসতঘর

আপডেট সময় : ১১:৪১:০৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪

পাবনার সাঁথিয়ায় নন্দনপুর ইউনিয়নের জোড়াগাছা গ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ছাগল, হাঁস-মুরগি ও নগদটাকাসহ তিনটি বসতঘর ও একটি রান্নাঘড় পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে গেছে। এ সময় এনজিও থেকে কিস্তিতে তোলা ঋনের প্রায় নগদ এক লাখ ৩০ হাজার টাকা পুড়ে গেছে বলে বাড়ির মালিক জানান। শনিবার (৬এপ্রিল) ইফতারের পূর্ব মুহুর্তে ওই গ্রামের কিয়াম উদ্দিনের ছেলে আব্দুস সালামের বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। আগুনে প্রায় ৭ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে বাড়ির মালিকের দাবী। রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে বলে এলাকাবাসী ও বাড়ির সদস্যরা জানান। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটির বসবাসের আর কোন ঘর না থাকায় বর্তমানে তাঁরা খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে।

পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকেল সারে ৫টার দিকে ওই বাড়ির সদস্যরা রান্না করার সময় অসাবধানতাবশত চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। চৈত্রের তাপদাহে মুহুর্তে আগুনের লেলিহানশিখা দিনমজুর আব্দুস সালামের নিজের ও ছেলেদের বসতঘরে ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাবাসী ও সাঁথিয়া ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও ততক্ষণে পুড়ে সব শেষ হয়ে যায়। এ সময় নগদ এক লাখ ৩০হাজার টাকা,তিনটি টিনের বসতঘর ও একটি রান্নাঘড়,দুটি ছাগল ও হাঁস-মুরগিসহ ঘরে রক্ষিত মালামাল পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুটি গরুকে অন্যত্র সড়িয়ে নেওয়া হয়।

বাড়ির মালিক আব্দুস সালামের ছেলে নাইম হোসেন জানান,গরু কেনার জন্য স্থানীয় বেসরকরি উন্নয়ন সংস্থা(এনজিও) থেকে কিস্তিতে তোলা টাকা এবং দিনমজুর দিয়ে বাড়িতে জমানো টাকাসহ প্রায় এক লাখ ৩০ হাজার নগদ টাকা ও গবাদিপশুসহ বসতঘর পুড়ে সব শেষ হয়ে গেছে। আমাদের পড়নের কাপড় ছাড়া আর কিছুই নেই। এমনিতে আমরা দরিদ্র মানুষ এরপর আগুনে পুড়ে আরো নিঃশ্ব হয়ে গেলাম।

রোববার (৭এপ্রিল) জোড়গাছা গ্রামের সমাজসেবক আব্দুর রহমান মাতুসহ এলাকার অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটিকে খাদ্যদ্রব্য চাউল,ডাউল,তেলসহ বিভিন্ন পণ্য ও আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন ।

সাঁথিয়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার অর্ঘ্য দেবনাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,আমরা আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

 

বাখ//আর