ঢাকা ০২:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সততার বিরল দৃষ্টান্ত : হারানো ৯৯ হাজার টাকা ফেরত দিলেন ভ্যানচালক মোজাম

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৩২:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মার্চ ২০২৩
  • / ৪২৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি:
টাকার জন্য যে সমাজে মানবতা প্রতিনিয়ত পরাজিত হচ্ছে, ছিন্ন হচ্ছে রক্তের সম্পর্ক বা পুত্র যেখানে পিতাকে বা পিতা যেখানে পুত্রের পরিচয় বিচ্ছিন্ন করছে যে টাকার কারণে, ঠিক তখনই এক দরিদ্র ভ্যান চালক হারানো টাকা ফেরত দিয়ে সততার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। ঘটনাটি ঘটেছে বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়নের কুমলাই গ্রামে। ভ্যানচালক মোজাম সেখ পবনতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মল্লিক আনোয়ার হোসেনে’র হারানো  ৯৯ হাজার টাকা ফেরত দিয়ে তিনি এ সততার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে যে ,  পবনতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মল্লিক আনোয়ার হোসেন ৬ মার্চ ভাগা বাজারস্থ অগ্রণী ব্যাংক শাখা থেকে ১ লাখ টাকা উত্তোলন করেন। এর মধ্য থেকে তিনি ১ হাজার টাকা খরচ করে বাকী ৯৯ হাজার টাকা নিয়ে তিনি বাড়ী ফিরছিলেন। কিছু পথ যাওয়ার প্যান্টের পকেট থেকে তার সব টাকা পড়ে যায় ।
প্রধান শিক্ষক মল্লিক আনোয়ার অনেক খোঁজাখুজির পর হতাশ হয়ে বাড়ী ফিরে যান। টাকা পড়ে যাওয়ার পরে সেই পথ দিয়ে ভ্যান চালক মোজাম যাত্রী নিয়ে সিকির ঘাট  নামক স্থানে আসছিল। ‍
এ সময় তিনি অনেক টাকা ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখতে পান। তখন তিনি ভ্যান থামিয়ে সকল টাকা সংগ্রহ করেন এবং সিকি ঘাট এলাকায়  এসে সবাইকে এ ঘটনা জানিয়ে দেন।
শুধু তাই নয়, তিনি এ টাকা নিজের কাছে না রেখে তার ভ্যানে থাকা যাত্রী রামপাল কলেজের দর্শন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ সাইদুর রহমানের কাছে জামানত রেখে দেন। এ সংবাদ চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে এক পযায়ে মল্লিক  আনোয়ার হোসেনকে টাকা পাওয়ার কথা জানানো হয় এবং তাকে টাকা ফেরত দেয়া হয়। ভ্যান চালক মোজামের সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি জানান যে, টাকা ফেরত না দেয়া পর্যন্ত আমি সুস্থ্য হতে পারছিনা। টাকা প্রকৃত মালিককে ফেরত দিতে পারলেই আমি মানসিক শান্তি পাব।
তিন ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে জীবন সংগ্রামে কঠিন বাস্তবতায়  লিপ্ত মোজাম সেখ’র  সততার ফলে সারা এলাকায় এখন তিনি প্রশংসায় ভাসছেন । এ ঘটনায় এলাকার অনেকে ভ্যান চালক মোজাকে কে নিয়ে গর্ব অনুভব করছে।  সমাজের অনেকেই এখন নতুন করে ভাবছে যে ভ্যান চালক মোজাম থেকে ও  সমাজ অনেক  শিক্ষা নিতে পারে । ‍
বা/খ: এসআর।

নিউজটি শেয়ার করুন

সততার বিরল দৃষ্টান্ত : হারানো ৯৯ হাজার টাকা ফেরত দিলেন ভ্যানচালক মোজাম

আপডেট সময় : ১২:৩২:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মার্চ ২০২৩
এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি:
টাকার জন্য যে সমাজে মানবতা প্রতিনিয়ত পরাজিত হচ্ছে, ছিন্ন হচ্ছে রক্তের সম্পর্ক বা পুত্র যেখানে পিতাকে বা পিতা যেখানে পুত্রের পরিচয় বিচ্ছিন্ন করছে যে টাকার কারণে, ঠিক তখনই এক দরিদ্র ভ্যান চালক হারানো টাকা ফেরত দিয়ে সততার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। ঘটনাটি ঘটেছে বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়নের কুমলাই গ্রামে। ভ্যানচালক মোজাম সেখ পবনতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মল্লিক আনোয়ার হোসেনে’র হারানো  ৯৯ হাজার টাকা ফেরত দিয়ে তিনি এ সততার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে যে ,  পবনতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মল্লিক আনোয়ার হোসেন ৬ মার্চ ভাগা বাজারস্থ অগ্রণী ব্যাংক শাখা থেকে ১ লাখ টাকা উত্তোলন করেন। এর মধ্য থেকে তিনি ১ হাজার টাকা খরচ করে বাকী ৯৯ হাজার টাকা নিয়ে তিনি বাড়ী ফিরছিলেন। কিছু পথ যাওয়ার প্যান্টের পকেট থেকে তার সব টাকা পড়ে যায় ।
প্রধান শিক্ষক মল্লিক আনোয়ার অনেক খোঁজাখুজির পর হতাশ হয়ে বাড়ী ফিরে যান। টাকা পড়ে যাওয়ার পরে সেই পথ দিয়ে ভ্যান চালক মোজাম যাত্রী নিয়ে সিকির ঘাট  নামক স্থানে আসছিল। ‍
এ সময় তিনি অনেক টাকা ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখতে পান। তখন তিনি ভ্যান থামিয়ে সকল টাকা সংগ্রহ করেন এবং সিকি ঘাট এলাকায়  এসে সবাইকে এ ঘটনা জানিয়ে দেন।
শুধু তাই নয়, তিনি এ টাকা নিজের কাছে না রেখে তার ভ্যানে থাকা যাত্রী রামপাল কলেজের দর্শন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ সাইদুর রহমানের কাছে জামানত রেখে দেন। এ সংবাদ চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে এক পযায়ে মল্লিক  আনোয়ার হোসেনকে টাকা পাওয়ার কথা জানানো হয় এবং তাকে টাকা ফেরত দেয়া হয়। ভ্যান চালক মোজামের সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি জানান যে, টাকা ফেরত না দেয়া পর্যন্ত আমি সুস্থ্য হতে পারছিনা। টাকা প্রকৃত মালিককে ফেরত দিতে পারলেই আমি মানসিক শান্তি পাব।
তিন ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে জীবন সংগ্রামে কঠিন বাস্তবতায়  লিপ্ত মোজাম সেখ’র  সততার ফলে সারা এলাকায় এখন তিনি প্রশংসায় ভাসছেন । এ ঘটনায় এলাকার অনেকে ভ্যান চালক মোজাকে কে নিয়ে গর্ব অনুভব করছে।  সমাজের অনেকেই এখন নতুন করে ভাবছে যে ভ্যান চালক মোজাম থেকে ও  সমাজ অনেক  শিক্ষা নিতে পারে । ‍
বা/খ: এসআর।