ঢাকা ০৬:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সংকট থাকলেও বাংলাদেশ এখন ঊর্ধ্বমুখীর দিকে: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৫:০৪:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৩৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, বাংলাদেশে সংকট আছে কিন্তু আমরা ওভারকাম করছি। একই সঙ্গে বাংলাদেশ এখন ঊর্ধ্বমুখীর দিকে। বাংলাদেশ যে সম্ভাবনার দেশ সেই ট্রেকেই ফিরে এসেছি।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের নিজ দপ্তরে এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) প্রতিনিধি, ফ্রান্স সরকারের জলবায়ুবিষয়ক বিশেষ দূত স্টিফেন ক্রোজা ও আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (আইএফডি) কান্ট্রি ডিরেক্টর আর্নড হেমলিয়ারসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।

বৈঠকে আলোচনার বিষয়বস্তু নিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর অ্যাগ্রিকালচারাল ডেভেলপমেন্টের প্রজেক্ট কার্যক্রম চালু রয়েছে। সেখানে তারা নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে আসছে, সেগুলো নিয়েই আলোচনা হচ্ছে।

আইএফডি বলেছে তারা আরও কো-অপারেশন চায়, সেদিক থেকে আমাদের প্রত্যাশাটা কী? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সবাই তাদের আইডিয়ার কথা বলে, আপনারা চিন্তা করেন কী করা যায়। বাংলাদেশে এখন অনেক ধরনের সমস্যা আছে। এর মধ্যে মার্কেটিং একটা সমস্যা। কৃষকের কাছ থেকে পণ্য ঢাকায় আসতে আসতে এটা মধ্যস্বত্বভোগীদের হাতে চলে যায়। এটা একটা বড় সমস্যা। আমরা চিন্তা-ভাবনা করছি কীভাবে এটা পরিবর্তন করা যায়।

তিনি বলেন, আমরা কোনো নির্দিষ্ট দেশের ওপর নির্ভরশীল না। কিন্তু আমরা সবার সঙ্গে পরামর্শ করে কাজ করি, আইডিয়া গ্রহণ করি, বড় করি। আর্থিকভাবে বিভিন্ন পার্টনার সহায়তা করে।

এডিবি ও ফ্রান্সের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক করেছেন সেখানে কী আলোচনা হয়েছে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, দেখা যাক বাংলাদেশ তো এখন ভালো করছে। তবে আমরা সমস্যা থেকে একেবারে বের হয়ে গেছি তা নয়। কিন্তু জিসিনটা তো চলছে।

এডিবি নতুন কোনো কমিটমেন্ট করেছে কি না? এমন প্রশ্নের উত্তরে অর্থমন্ত্রী বলেন, নিশ্চয়ই করেছে, তারা তো বাংলাদেশকে সাহায্য করছে। এটা চলমান, চলতে থাকবে। তাহলে একটা কথা অনেকেই বলে বাংলাদেশ কী দেউলিয়া হয়ে গেলো। না বাংলাদেশ কোথায় দেউলিয়া। এত বড় একটা দেশ দেউলিয়া হতে পারে না। আমাদের রিজার্ভ উন্নতি করছে।

দেশের সংকট কি কেটে যাচ্ছে বলা যায়? এমন প্রশ্নের উত্তরে আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, হ্যাঁ, সংকট অন গোয়িং। সংকট আছে কিন্তু আমরা ওভারকাম করছি। ধীরে ধীরে আমরা উন্নতি করছি। একদিনে যদি ধারণা করে থাকেন, নতুন মন্ত্রিসভা হলো কালকে সব ঠিক হয়ে যাবে। এ রকম হবে না। কিন্তু অন দি ওয়ে, ধীরে ধীরে করতে হবে।

এদিকে, সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ফ্রান্স সরকারের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত স্টিফেন ক্রোজা।

এ সময় তিনি জানান, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় ঋণ ও অনুদান মিলিয়ে বাংলাদেশকে এক বিলিয়ন ইউরো আর্থিক সহায়তা দিতে চায় ফ্রেন্স ডেভেলপমেন্ট এজেন্সি। ফ্র্যান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ বাংলাদেশের উন্নয়নে পাশে আছেন বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে, ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর এগ্রিকালচারাল ডেভেলপমেন্ট- ইফাদের আবাসিক প্রতিনিধি আর্নো হ্যামেলিয়ার্স জানিয়েছেন, বাংলাদেশের কৃষিতে ৭৩ প্রকল্পে চার বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

সংকট থাকলেও বাংলাদেশ এখন ঊর্ধ্বমুখীর দিকে: অর্থমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৫:০৪:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, বাংলাদেশে সংকট আছে কিন্তু আমরা ওভারকাম করছি। একই সঙ্গে বাংলাদেশ এখন ঊর্ধ্বমুখীর দিকে। বাংলাদেশ যে সম্ভাবনার দেশ সেই ট্রেকেই ফিরে এসেছি।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের নিজ দপ্তরে এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) প্রতিনিধি, ফ্রান্স সরকারের জলবায়ুবিষয়ক বিশেষ দূত স্টিফেন ক্রোজা ও আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (আইএফডি) কান্ট্রি ডিরেক্টর আর্নড হেমলিয়ারসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।

বৈঠকে আলোচনার বিষয়বস্তু নিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর অ্যাগ্রিকালচারাল ডেভেলপমেন্টের প্রজেক্ট কার্যক্রম চালু রয়েছে। সেখানে তারা নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে আসছে, সেগুলো নিয়েই আলোচনা হচ্ছে।

আইএফডি বলেছে তারা আরও কো-অপারেশন চায়, সেদিক থেকে আমাদের প্রত্যাশাটা কী? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সবাই তাদের আইডিয়ার কথা বলে, আপনারা চিন্তা করেন কী করা যায়। বাংলাদেশে এখন অনেক ধরনের সমস্যা আছে। এর মধ্যে মার্কেটিং একটা সমস্যা। কৃষকের কাছ থেকে পণ্য ঢাকায় আসতে আসতে এটা মধ্যস্বত্বভোগীদের হাতে চলে যায়। এটা একটা বড় সমস্যা। আমরা চিন্তা-ভাবনা করছি কীভাবে এটা পরিবর্তন করা যায়।

তিনি বলেন, আমরা কোনো নির্দিষ্ট দেশের ওপর নির্ভরশীল না। কিন্তু আমরা সবার সঙ্গে পরামর্শ করে কাজ করি, আইডিয়া গ্রহণ করি, বড় করি। আর্থিকভাবে বিভিন্ন পার্টনার সহায়তা করে।

এডিবি ও ফ্রান্সের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক করেছেন সেখানে কী আলোচনা হয়েছে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, দেখা যাক বাংলাদেশ তো এখন ভালো করছে। তবে আমরা সমস্যা থেকে একেবারে বের হয়ে গেছি তা নয়। কিন্তু জিসিনটা তো চলছে।

এডিবি নতুন কোনো কমিটমেন্ট করেছে কি না? এমন প্রশ্নের উত্তরে অর্থমন্ত্রী বলেন, নিশ্চয়ই করেছে, তারা তো বাংলাদেশকে সাহায্য করছে। এটা চলমান, চলতে থাকবে। তাহলে একটা কথা অনেকেই বলে বাংলাদেশ কী দেউলিয়া হয়ে গেলো। না বাংলাদেশ কোথায় দেউলিয়া। এত বড় একটা দেশ দেউলিয়া হতে পারে না। আমাদের রিজার্ভ উন্নতি করছে।

দেশের সংকট কি কেটে যাচ্ছে বলা যায়? এমন প্রশ্নের উত্তরে আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, হ্যাঁ, সংকট অন গোয়িং। সংকট আছে কিন্তু আমরা ওভারকাম করছি। ধীরে ধীরে আমরা উন্নতি করছি। একদিনে যদি ধারণা করে থাকেন, নতুন মন্ত্রিসভা হলো কালকে সব ঠিক হয়ে যাবে। এ রকম হবে না। কিন্তু অন দি ওয়ে, ধীরে ধীরে করতে হবে।

এদিকে, সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ফ্রান্স সরকারের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত স্টিফেন ক্রোজা।

এ সময় তিনি জানান, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় ঋণ ও অনুদান মিলিয়ে বাংলাদেশকে এক বিলিয়ন ইউরো আর্থিক সহায়তা দিতে চায় ফ্রেন্স ডেভেলপমেন্ট এজেন্সি। ফ্র্যান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ বাংলাদেশের উন্নয়নে পাশে আছেন বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে, ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর এগ্রিকালচারাল ডেভেলপমেন্ট- ইফাদের আবাসিক প্রতিনিধি আর্নো হ্যামেলিয়ার্স জানিয়েছেন, বাংলাদেশের কৃষিতে ৭৩ প্রকল্পে চার বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করা হবে।