ঢাকা ০১:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

শেখ হাসিনা উন্নয়নের ফুটন্ত রোল মডেলে পৌঁছে দিয়েছে এদেশকে : নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৩:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫৭৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// পাবনা প্রতিনিধি //
পাবনা-৪ (আটঘরিয়া-ঈশ্বরদী) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি বলেছেন, কেন শেখ হাসিনা নয়? যে নেত্রী উন্নয়নের ফুটন্ত রোল মডেলে পৌঁছে দিয়েছে এদেশকে। যে নেত্রী মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, স্বামীর পরিত্যক্ত ভাতাসহ সকল অসহায় মানুষকে সাহায্য করে যাচ্ছে। সেই নেত্রী আমাদের ছায়া, তাকে কেন নয়? এই উন্নয়নের ধারাকে কেন বাধা সৃষ্টি করতে হবে, কেন ব্যাহত হবে? শেখ হাসিনা যদি ক্ষমতায় না আসে এদেশের স্বাধীনতা বিপন্ন হবে।এদশের মানুষ যে সহযোগিতা পাচ্ছে এই সহযোগিতা থেকে আপনারা বঞ্চিত হবেন।
এই দেশ উন্নয়ন শীল দেশ হতে পারবে না।এদেশকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সুন্দর স্বাধীনতা এনে দিয়েছে।
তিনি আরও বলেন, এই দেশের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার জন্য শেখ হাসিনাকে আবার একটা নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহবান জানান, যাতে আমাদের নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান শোষন মুক্ত সোনার বাংলা গঠন করতে পারি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, বিশ্বের বুকে বাঙ্গালী জাতি মাথা উচু করে চলতে পারে। যাকেই শেখ হাসিনা মনোনয়ন দেন তাকেই আপনারা ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে প্রধামন্ত্রী করবেন ১৫ আগষ্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা গুলো বলেন।
আটঘরিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা অডিটরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাকসুদা আক্তার মাসু।
বক্তব্য রাখেন আটঘরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: তানভীর ইসলাম। আটঘরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়র শহিদুল ইসলাম রতন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) এএইচএম ফখরুল হোসাইন প্রমুখ।
আটঘরিয়া উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও যথাযথ ভাবে দিবসটি পালন করা হয়। পারখিদিরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আফতাব হোসেনের সভাপতি শোক র্রালী, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।
আলোচনা শেষে রচনা, চিত্রাঙ্গন ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরুস্কার বিরতণ করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

শেখ হাসিনা উন্নয়নের ফুটন্ত রোল মডেলে পৌঁছে দিয়েছে এদেশকে : নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি

আপডেট সময় : ০৩:৪৩:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ অগাস্ট ২০২৩
// পাবনা প্রতিনিধি //
পাবনা-৪ (আটঘরিয়া-ঈশ্বরদী) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি বলেছেন, কেন শেখ হাসিনা নয়? যে নেত্রী উন্নয়নের ফুটন্ত রোল মডেলে পৌঁছে দিয়েছে এদেশকে। যে নেত্রী মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, স্বামীর পরিত্যক্ত ভাতাসহ সকল অসহায় মানুষকে সাহায্য করে যাচ্ছে। সেই নেত্রী আমাদের ছায়া, তাকে কেন নয়? এই উন্নয়নের ধারাকে কেন বাধা সৃষ্টি করতে হবে, কেন ব্যাহত হবে? শেখ হাসিনা যদি ক্ষমতায় না আসে এদেশের স্বাধীনতা বিপন্ন হবে।এদশের মানুষ যে সহযোগিতা পাচ্ছে এই সহযোগিতা থেকে আপনারা বঞ্চিত হবেন।
এই দেশ উন্নয়ন শীল দেশ হতে পারবে না।এদেশকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সুন্দর স্বাধীনতা এনে দিয়েছে।
তিনি আরও বলেন, এই দেশের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার জন্য শেখ হাসিনাকে আবার একটা নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহবান জানান, যাতে আমাদের নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান শোষন মুক্ত সোনার বাংলা গঠন করতে পারি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, বিশ্বের বুকে বাঙ্গালী জাতি মাথা উচু করে চলতে পারে। যাকেই শেখ হাসিনা মনোনয়ন দেন তাকেই আপনারা ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে প্রধামন্ত্রী করবেন ১৫ আগষ্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা গুলো বলেন।
আটঘরিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা অডিটরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাকসুদা আক্তার মাসু।
বক্তব্য রাখেন আটঘরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: তানভীর ইসলাম। আটঘরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়র শহিদুল ইসলাম রতন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) এএইচএম ফখরুল হোসাইন প্রমুখ।
আটঘরিয়া উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও যথাযথ ভাবে দিবসটি পালন করা হয়। পারখিদিরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আফতাব হোসেনের সভাপতি শোক র্রালী, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।
আলোচনা শেষে রচনা, চিত্রাঙ্গন ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরুস্কার বিরতণ করা হয়।