ঢাকা ০৪:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

শিশু সালাম অপহরণ ও হত্যা মামলায় যুবকের মৃত্যুদন্ড

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:০৪:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ৪৮৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সিরাজঞ্জ জেলার তাঁতসমৃদ্ধ শাহজাদপুর উপজেলার রায়পুরা গ্রামের শিশু সালাম আলীকে আপহরণের পর হত্যার ঘটনায় আমির চাঁন (২৮) নামে এক যুবককে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফজলে খোদা মোঃ নাজির এ রায় দেন। সিরাজগঞ্জ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্দুর রহমান এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী আমির চাঁন শাহজাদপুর উপজেলার রায়পুর গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে।

মামলার অভিযোগ পত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২ আগষ্ট বিকেলে শাহজাদপুরের রায়পুর গ্রামের আকছেদ আলীর বাড়ির উঠানে আমির চাঁনসহ শিশু মুসা, সুমাইয়া, ইয়াসিন ও শিশু সালাম ফুটবল খেলছিল। খেলার পর প্রতিবেশি আমির চাঁন শিশু সালামকে কৌশলে তার নিজের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে। পরে শিশুটির পরিবারের কাছে প্রথমে দশ লাখ পরে পর্যায়ক্রমে তিন লাখ ও দেড় লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে বিভিন্ন জায়গায় চিরকুট ও চিঠি ফেলে রাখে।

এদিকে, শিশুটির মা-বাবাসহ বাড়ির লোকজন শিশু সালামের সন্ধান না পেয়ে ২০১৮ সালের ১১ আগষ্ট শাহজাদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই দিন পুলিশ আমির চাঁনকে গ্রেফতার করলে সে ঘটনার কথা স্বীকার করেন ও তার দেয়া তথ্যানুযায়ী আব্দুল লতিফ ও জাকিরুলের বাড়ির কুঁয়া থেকে শিশু সালামের লাশ উদ্ধার করা হয়। আসামি আমির ঘটনার কথা স্বীকার করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমানের জন্য ১১ জনের স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে আমির চাঁনকে দোষী সাব্যস্ত করে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক তাকে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

শিশু সালাম অপহরণ ও হত্যা মামলায় যুবকের মৃত্যুদন্ড

আপডেট সময় : ০৬:০৪:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

সিরাজঞ্জ জেলার তাঁতসমৃদ্ধ শাহজাদপুর উপজেলার রায়পুরা গ্রামের শিশু সালাম আলীকে আপহরণের পর হত্যার ঘটনায় আমির চাঁন (২৮) নামে এক যুবককে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফজলে খোদা মোঃ নাজির এ রায় দেন। সিরাজগঞ্জ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্দুর রহমান এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী আমির চাঁন শাহজাদপুর উপজেলার রায়পুর গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে।

মামলার অভিযোগ পত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২ আগষ্ট বিকেলে শাহজাদপুরের রায়পুর গ্রামের আকছেদ আলীর বাড়ির উঠানে আমির চাঁনসহ শিশু মুসা, সুমাইয়া, ইয়াসিন ও শিশু সালাম ফুটবল খেলছিল। খেলার পর প্রতিবেশি আমির চাঁন শিশু সালামকে কৌশলে তার নিজের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে। পরে শিশুটির পরিবারের কাছে প্রথমে দশ লাখ পরে পর্যায়ক্রমে তিন লাখ ও দেড় লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে বিভিন্ন জায়গায় চিরকুট ও চিঠি ফেলে রাখে।

এদিকে, শিশুটির মা-বাবাসহ বাড়ির লোকজন শিশু সালামের সন্ধান না পেয়ে ২০১৮ সালের ১১ আগষ্ট শাহজাদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই দিন পুলিশ আমির চাঁনকে গ্রেফতার করলে সে ঘটনার কথা স্বীকার করেন ও তার দেয়া তথ্যানুযায়ী আব্দুল লতিফ ও জাকিরুলের বাড়ির কুঁয়া থেকে শিশু সালামের লাশ উদ্ধার করা হয়। আসামি আমির ঘটনার কথা স্বীকার করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমানের জন্য ১১ জনের স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে আমির চাঁনকে দোষী সাব্যস্ত করে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক তাকে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করেন।