ঢাকা ০৩:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

উৎসূক লাখো জনতার উপচেপড়া ভীড়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করে নদী পাড়ে

শাহজাদপুরে মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

// মামুনর রশীদ মামুন ও চন্দন সরকার //
  • আপডেট সময় : ০৯:২০:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৭৬৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের করতোয়া নদীতে শাহজাদপুর উপজেলা তাঁতবস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতি আয়োজিত মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতার ফাইনাল সময় স্বল্পতার কারণে অমিমাংসিত ভাবে শেষ হয়েছে। আজ ২ অক্টোবর সোমবার বিকেলে শাহজাদপুর পৌর এলাকার থানারঘাট করতোয়া সেতু সংলগ্ন নদীতে এ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়।

শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মনির আক্তার খান তরুলোদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত নৌকাবাইচ ফাইনাল প্রতিযোগীতায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য এবং ৬৭-সিরাজগঞ্জ -০৬ (শাহজাদপুর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহজাদপু্র উপজেলা আওয়ামী লীগের বিপ্লবী সাধারন সম্পাদক এড. শেখ মোঃ আব্দুল হামিদ লাবলু, সাবেক সফল পৌরমেয়র নজরুল ইসলাম প্রমূখ।

শাহজাদপুরে মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

এ বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা তাঁতশ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর আল মাহমুদ প্রামাণিক বাংলা খবর বিডিকে জানান, সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসায় আলো ও সময় স্বল্পতার কারণে এ ফাইনাল প্রতিযোগীতাটি আজ শেষ করা সম্ভব হয়নি। পুনরায় এ ফাইনাল নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা শেষ করতে অচিরেই দিন ক্ষণ তারিখ সর্বসাধারনকে জনিয়ে দেয়া হবে।

শাহজাদপুরে মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

প্রতিযোগীতায় শাহজাদপুরের নলুয়ার একতা চ্যালেঞ্জার উল্লাপাড়ার কৈবর্তাগাতী একতা এক্সপ্রেসের সাথে, শাহজাদপুরের বনগ্রামের উড়ন্ত বলাকা চিনাধুকুরিয়ার পদ্মা এক্সপ্রেসের সাথে এবং রেশমবাড়ির বাংলার বাঘ রাউতারার নিউ বাংলার বাঘের সাথে প্রতিন্দন্দ্বীতা করে। এতে উল্লাপাড়ার কৈবর্তাগাতী একতা এক্সপ্রেস, বনগ্রামের উড়ন্ত বলাকা ও রাউতারার নিউ বাংলার বাঘ জয়লাভ করে।

গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যের ধারক বাহক উক্ত নৌকাবাইচ ফাইনাল প্রতিযোগীতা দেখতে লাখো আমজনতা করতোয়া নদীর দুই তীর ও করতোয়া সেতুসহ নদীতে শতশত নৌকা নিয়ে ভীড় জমায়। সেইসাথে এ প্রতিযোগীতার ৩টি পুরস্কার হিসেবে ৩টি ষাঁঢ় দেখতেও উৎসুক জনতা ভীড় জমায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

উৎসূক লাখো জনতার উপচেপড়া ভীড়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করে নদী পাড়ে

শাহজাদপুরে মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০৯:২০:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ অক্টোবর ২০২৩

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের করতোয়া নদীতে শাহজাদপুর উপজেলা তাঁতবস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতি আয়োজিত মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতার ফাইনাল সময় স্বল্পতার কারণে অমিমাংসিত ভাবে শেষ হয়েছে। আজ ২ অক্টোবর সোমবার বিকেলে শাহজাদপুর পৌর এলাকার থানারঘাট করতোয়া সেতু সংলগ্ন নদীতে এ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়।

শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মনির আক্তার খান তরুলোদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত নৌকাবাইচ ফাইনাল প্রতিযোগীতায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য এবং ৬৭-সিরাজগঞ্জ -০৬ (শাহজাদপুর) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহজাদপু্র উপজেলা আওয়ামী লীগের বিপ্লবী সাধারন সম্পাদক এড. শেখ মোঃ আব্দুল হামিদ লাবলু, সাবেক সফল পৌরমেয়র নজরুল ইসলাম প্রমূখ।

শাহজাদপুরে মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

এ বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা তাঁতশ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর আল মাহমুদ প্রামাণিক বাংলা খবর বিডিকে জানান, সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসায় আলো ও সময় স্বল্পতার কারণে এ ফাইনাল প্রতিযোগীতাটি আজ শেষ করা সম্ভব হয়নি। পুনরায় এ ফাইনাল নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা শেষ করতে অচিরেই দিন ক্ষণ তারিখ সর্বসাধারনকে জনিয়ে দেয়া হবে।

শাহজাদপুরে মরহুম এনামুল হাসান মোজমাল স্মরণে ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

প্রতিযোগীতায় শাহজাদপুরের নলুয়ার একতা চ্যালেঞ্জার উল্লাপাড়ার কৈবর্তাগাতী একতা এক্সপ্রেসের সাথে, শাহজাদপুরের বনগ্রামের উড়ন্ত বলাকা চিনাধুকুরিয়ার পদ্মা এক্সপ্রেসের সাথে এবং রেশমবাড়ির বাংলার বাঘ রাউতারার নিউ বাংলার বাঘের সাথে প্রতিন্দন্দ্বীতা করে। এতে উল্লাপাড়ার কৈবর্তাগাতী একতা এক্সপ্রেস, বনগ্রামের উড়ন্ত বলাকা ও রাউতারার নিউ বাংলার বাঘ জয়লাভ করে।

গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যের ধারক বাহক উক্ত নৌকাবাইচ ফাইনাল প্রতিযোগীতা দেখতে লাখো আমজনতা করতোয়া নদীর দুই তীর ও করতোয়া সেতুসহ নদীতে শতশত নৌকা নিয়ে ভীড় জমায়। সেইসাথে এ প্রতিযোগীতার ৩টি পুরস্কার হিসেবে ৩টি ষাঁঢ় দেখতেও উৎসুক জনতা ভীড় জমায়।