মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
তিন বারের ইউপি সদস্য পেলেন এসএসসিতে জিপিএ- ৫, নারী সদস্য পেলেন ৪.৯৬ সেনবাগে এক বিদ্যালয়ের ৪৩ এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষার্থীর সকলেই ফেল! ১০ শিক্ষক অবরুদ্ধ সুইস বাধা ডিঙিয়ে শেষ ষোলোয় ব্রাজিল রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি পরিবারের মাঝে ৮ শ’ ভেড়া বিতরণ শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে রোমাঞ্চকর জয় ঘানার গুলিস্তানে রেডজোনে দোকান বসানোয় পাঁচজনের জেল জামানত নয়, কৃষিঋণে কৃষকের এনআইডি যথেষ্ট: কৃষিসচিব সমকাল সাংবাদিক শিমুলের ছেলে সাদিক ভবিষ্যতে প্রকৌশলী হতে চায় কৃষকের কোমরে দড়ি, যাদের কাছে হাজার কোটি টাকা তাদের কিছু হয় না : আপিল বিভাগ ‘লগে আছি ডটকম’-এর এমডি গ্রেফতার! ৩২ বছর আগের নায়িকাকে নিয়ে সালমান ফিরছেন রিমেক নিয়ে আমার আপত্তি নেই : ইয়োহানি জার্সিতে পা লাগায় মেসিকে মেক্সিকান বক্সারের হুমকি! একসঙ্গে জিপিএ-৫ পেলেন বাবা-ছেলে! কোটি কোটি টাকা নিয়ে যাচ্ছে, আমরা কি চেয়ে চেয়ে দেখব : হাইকোর্ট

শাহজাদপুরে টেলিফোন এক্সচেঞ্জের বেহাল দশা!

শাহজাদপুরে টেলিফোন একচেঞ্জের বেহাল দশা

সাগর বসাক, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) থেকে :

শাহজাদপুর উপজেলাা কান্দাপাড়ায় ডিজিটাল টেলিফোন এক্সচেঞ্জ অফিসের অবস্থা নাজুক আকার ধারণ করেছে। এটা যেন ময়লা ডাষ্টবিনে পরিণত হয়েছে। এর অনেকটা প্রধান সড়ক বন্ধ হয়ে আছে । সন্ধ্যার পর এখানে বসে মাদকের আড্ডা ।

এলাকাবাসী জানায়, টেলিফোন এক সময় বাড়িতে থাকা মানে আভিজাত্যের প্রতীক । বর্তমানে মানুষের হাতে হাতে মোবাইল ফোন শোভা পাওয়ায় এখন আর সেই টেলিফোন আর গুরুত্ব বহন করে না।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, উপজেলার পৌর এলাকার কান্দাপাড়া গ্রামের ডিজিটাল টেলিফোন এক্সচেঞ্জটির প্রধান ফটকের সামনে ময়লা আবর্জনা পড়ে আছে। এছাড়াও আশ পাশের বাড়ির সামনে গোবর ছিটিয়ে রাখা হয়েছে। দুগর্ন্ধে যেন এস্থান দিয়ে হাটা যায় না। দুগর্ন্ধে আর নোংরা পরিবেশের মধ্যে অফিসে কর্মকর্তারা কাজ করছে । কর্মকর্তারা শুধু যায় আর আসে ।

স্থানীয় গ্রামবাসি জানায়, এটা টেলিফোন অফিস থাকলেও এদের কি কাজ আমরা জানি না । এখানে সন্ধ্যা নামার পর পরই চলে মাদকের আড্ডা । তাই সন্ধার পর নেশাখোর যুবক ছেলেদের এলাকা দখলে চলে যায় এবং অসামাজিক কার্যকলাপ চলে ।

এদিকে দায়িত্বে থাকা টেলিফোন এক্সচেঞ্জ কর্মকর্তা মজনু জানান, আগে শাহজাদপুরে ৫ শতাধিক এর উপর টেলিফোন সংযোগ ছিল । এখন বর্তমানে ৩৮ টি টেলিফোন সংযোগ রয়েছে । বর্তমানে মানুষের হাতে হাতে মুঠোফোন থাকার কারনে এখন আর কেউ সংযোগ নিতে চায়না । দিন বদলের পরিক্রমায় ল্যান্ডলাইন সেটের শক্তিশালী বিকল্প হিসেবে মোবাইল স্মার্টফোন মানুষেরর মন জয় করে নিয়েছে । এজন্যই আজ টেলিফোন মানুষ ব্যাবহার করে না । টেলিফোনের অনেক মুল্যবান জিনিষ নষ্ট হয়ে গেছে ।

বর্তমানে এ অফিসটি জঙ্গলে ছেয়ে গেলেও কারও নজর নাই।

বা/খ : এসআর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *