ঢাকা ০৯:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সনাতনী পরিবারের ৫ সদস্যকে মারপিটের ঘটনায় মামলা 

শাহজাদপুরে একদিন পর জামিনে মুক্তি ‘টক অবদ্যা টাউন’

সাগর বসাক, স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৭:২৩:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ১১৮৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেনেশ দাসের বাড়িতে হামলার ঘটনায় ৪ জনকে আহত হওয়ার ঘটনায় আটক ব্যাকি জামিনে মুক্ত হওয়ায় শাহজাদপুরে ‘টক অব দ্যা টাউন’ এ পরিনত হয়েছে । বিভিন্ন মহলে নিন্দার ঝড় বইছে । ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

জানা যায়, গত শুক্রবার পোতাজিয়া মধ্যপাড়া গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেনেশ দাসের স্ত্রী লিপি দাস তার মেয়ে শান্তনা দাস, অন্তরা দাস, দিশা দাসকে একই গ্রামের ইউপি চেয়ারম্যানের ভাতিজা মূর্শিদ আলী গোলাম হায়দার, মানিক, রতন আলী ও কাফিসহ তাদের বেদম মারপিট করে । গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের পোতাজিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ভিকটিমদের । এ ঘটনায় দেনেশ দাস বাদি হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে । পরে পুলিশ শনিবার দুপুরে ২ নং আসামী ওয়ার্ড  আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম হায়দারকে গ্রেফতার করে । পরের দিন শনিবার বিশেষ প্রভাব খাটিয়ে তাদের সকলের জামিন হয় । এদের জামিন হওয়ায় গোটা শাহজাদপুরে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইতে থাকে । তবে মামলা ছিল ‘বজ্র আটুনিতে ফসকা গেরো’ ।

আহত চিকিৎসাধীন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অন্তরা দাস ও শান্তনা দাস মোবাইলে জানান, যে আমাদের এমনভাবে পিটিয়েছে এবং দুটি হাতসহ আপত্তিকর জায়গায় মারপিট করে যেন আমরা কাউকে দেখাতে না পারি । আমরা যন্তনায় ছটফট করছি তবে কিভাবে আসামী জামিন নিয়ে বের হল এ নিয়ে তারা আতংকে রয়েছে ।

অন্যদিকে, জামিনে বের হয়ে এসে তারা আবারও তাদের উপর আবারও হুমকি প্রদর্শন করে এবং বিপ্লব দাসকে হুমকি প্রদর্শন করলে পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে । এ ঘটনা নিয়ে গোটা শাহজাদপুরে বিভিন্ন মহলে চলছে সমালোচনার ঝড় ।

নিউজটি শেয়ার করুন

সনাতনী পরিবারের ৫ সদস্যকে মারপিটের ঘটনায় মামলা 

শাহজাদপুরে একদিন পর জামিনে মুক্তি ‘টক অবদ্যা টাউন’

আপডেট সময় : ০৭:২৩:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেনেশ দাসের বাড়িতে হামলার ঘটনায় ৪ জনকে আহত হওয়ার ঘটনায় আটক ব্যাকি জামিনে মুক্ত হওয়ায় শাহজাদপুরে ‘টক অব দ্যা টাউন’ এ পরিনত হয়েছে । বিভিন্ন মহলে নিন্দার ঝড় বইছে । ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

জানা যায়, গত শুক্রবার পোতাজিয়া মধ্যপাড়া গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেনেশ দাসের স্ত্রী লিপি দাস তার মেয়ে শান্তনা দাস, অন্তরা দাস, দিশা দাসকে একই গ্রামের ইউপি চেয়ারম্যানের ভাতিজা মূর্শিদ আলী গোলাম হায়দার, মানিক, রতন আলী ও কাফিসহ তাদের বেদম মারপিট করে । গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের পোতাজিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ভিকটিমদের । এ ঘটনায় দেনেশ দাস বাদি হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে । পরে পুলিশ শনিবার দুপুরে ২ নং আসামী ওয়ার্ড  আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম হায়দারকে গ্রেফতার করে । পরের দিন শনিবার বিশেষ প্রভাব খাটিয়ে তাদের সকলের জামিন হয় । এদের জামিন হওয়ায় গোটা শাহজাদপুরে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইতে থাকে । তবে মামলা ছিল ‘বজ্র আটুনিতে ফসকা গেরো’ ।

আহত চিকিৎসাধীন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অন্তরা দাস ও শান্তনা দাস মোবাইলে জানান, যে আমাদের এমনভাবে পিটিয়েছে এবং দুটি হাতসহ আপত্তিকর জায়গায় মারপিট করে যেন আমরা কাউকে দেখাতে না পারি । আমরা যন্তনায় ছটফট করছি তবে কিভাবে আসামী জামিন নিয়ে বের হল এ নিয়ে তারা আতংকে রয়েছে ।

অন্যদিকে, জামিনে বের হয়ে এসে তারা আবারও তাদের উপর আবারও হুমকি প্রদর্শন করে এবং বিপ্লব দাসকে হুমকি প্রদর্শন করলে পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে । এ ঘটনা নিয়ে গোটা শাহজাদপুরে বিভিন্ন মহলে চলছে সমালোচনার ঝড় ।