ঢাকা ১২:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

শাহজাদপুরে অবৈধ চাঁদা আদায় ও সিএনজি শ্রমিক নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:০৩:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৭৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে করতোয়া নদীর পূর্বপাড়স্থ সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডের চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেনের অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন কর্মসূচী ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে পশ্চিমপাড়ের সিএনজি মালিক ও শ্রমিকগণ।

মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে শাহজাদপুর পৌর এলাকার থানারঘাট এলাকায় এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্টিত হয়। আধাঘন্টাব্যাপী চলমান এ মানবন্ধন কর্মসূচী শেষে চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেনের অপসারণের দাবীতে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন সাধারন শ্রমিকের পক্ষে আব্দুর রহিম কালু, সিএনজি চালক ছানোয়ার, বিপ্লব, রেজাসহ করতোয়া নদীর পশ্চিম পাড়ের সিএনজি অটোরিক্সা মালিক ও শ্রমিকগণ। বক্তব্যে তারা দাবী করেন, ‘হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক করতোয়া নদীর পূর্বপাড়স্থ সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডের চেইন মাস্টার মোক্তার হোসেন পশ্চিমপাড়ের শ্রমিকদের হুমকি-ধামকি, গালিগালাজ, ভয়ভীতি প্রদর্শন এমনকি মারপিটও করে আসছে। সিরিয়াল মোতাবেক চেইন না দিয়ে প্রভাব খাটিয়ে তিনি তার পছন্দের শ্রমিকদের চেইন দিয়ে থাকেন। এছাড়া চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেন ইচ্ছেমতো চাঁদা আদায় করেন এবং নতুন বা পুরাতন সিএনজি কিনলে সমিতিতে গাড়ি ভর্তি ও চেইন প্রদানের কথা বলে ৪/৫ হাজার টাকা চাঁদা নেন। কেউ প্রতিবাদ করলে দলীয় প্রভাব খাটিয়ে তিনি শ্রমিকদের ওপর নানাভাবে অত্যাচার নির্যাতন শুরু করেন। তাই আমরা চেইন মাস্টার মোক্তার হোসেনকে চেইন মাস্টারের পদ থেকে অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্মারকলিপি প্রদানে বাধ্য হয়েছি এবং অনতিবিলম্বে তাকে অপসারণের দাবী জানাচ্ছি।
সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভা শেষে থানারঘাট এলাকা থেকে বিক্ষুদ্ধ সিএনজি মালিক শ্রমিকেরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি পৌর এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে তারা ইউএনও বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এ বিষয়ে উপজেলার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ও করতোয়া পূর্বপাড়স্থ সিএনজি অটোরিক্সা চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেন জানান,‘যারা আমার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মানববন্ধন করেছেন তারা শ্রমিকদের সাথে মারামারি করেছিলো। আমি তাতে বাঁধা দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তারা আমার বিরুদ্ধে এ বিক্ষোভ করেছে।’

 

নিউজটি শেয়ার করুন

শাহজাদপুরে অবৈধ চাঁদা আদায় ও সিএনজি শ্রমিক নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

আপডেট সময় : ০৭:০৩:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর ২০২২

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে করতোয়া নদীর পূর্বপাড়স্থ সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডের চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেনের অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন কর্মসূচী ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে পশ্চিমপাড়ের সিএনজি মালিক ও শ্রমিকগণ।

মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে শাহজাদপুর পৌর এলাকার থানারঘাট এলাকায় এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্টিত হয়। আধাঘন্টাব্যাপী চলমান এ মানবন্ধন কর্মসূচী শেষে চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেনের অপসারণের দাবীতে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন সাধারন শ্রমিকের পক্ষে আব্দুর রহিম কালু, সিএনজি চালক ছানোয়ার, বিপ্লব, রেজাসহ করতোয়া নদীর পশ্চিম পাড়ের সিএনজি অটোরিক্সা মালিক ও শ্রমিকগণ। বক্তব্যে তারা দাবী করেন, ‘হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক করতোয়া নদীর পূর্বপাড়স্থ সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডের চেইন মাস্টার মোক্তার হোসেন পশ্চিমপাড়ের শ্রমিকদের হুমকি-ধামকি, গালিগালাজ, ভয়ভীতি প্রদর্শন এমনকি মারপিটও করে আসছে। সিরিয়াল মোতাবেক চেইন না দিয়ে প্রভাব খাটিয়ে তিনি তার পছন্দের শ্রমিকদের চেইন দিয়ে থাকেন। এছাড়া চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেন ইচ্ছেমতো চাঁদা আদায় করেন এবং নতুন বা পুরাতন সিএনজি কিনলে সমিতিতে গাড়ি ভর্তি ও চেইন প্রদানের কথা বলে ৪/৫ হাজার টাকা চাঁদা নেন। কেউ প্রতিবাদ করলে দলীয় প্রভাব খাটিয়ে তিনি শ্রমিকদের ওপর নানাভাবে অত্যাচার নির্যাতন শুরু করেন। তাই আমরা চেইন মাস্টার মোক্তার হোসেনকে চেইন মাস্টারের পদ থেকে অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্মারকলিপি প্রদানে বাধ্য হয়েছি এবং অনতিবিলম্বে তাকে অপসারণের দাবী জানাচ্ছি।
সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভা শেষে থানারঘাট এলাকা থেকে বিক্ষুদ্ধ সিএনজি মালিক শ্রমিকেরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি পৌর এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে তারা ইউএনও বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এ বিষয়ে উপজেলার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ও করতোয়া পূর্বপাড়স্থ সিএনজি অটোরিক্সা চেইন মাষ্টার মোক্তার হোসেন জানান,‘যারা আমার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মানববন্ধন করেছেন তারা শ্রমিকদের সাথে মারামারি করেছিলো। আমি তাতে বাঁধা দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তারা আমার বিরুদ্ধে এ বিক্ষোভ করেছে।’