শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৩০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আজ না হয় কাল, খবরটা জানাজানি হবেই : সিদ্ধার্থ ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা সমর্থকদের ঝগড়ায় সংঘর্ষে নিহত ১ চরাঞ্চলে ভূট্টা চাষে কৃষকের আগ্রহ বেড়েছে  আমাদের হৃদয় আছে বলেই আমরা সেমিফাইনালে : মার্তিনেস নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলে ইরান পরমাণু চুক্তি মেনে চলবে : তেহরান কটিয়াদীতে মুরগির বিষ্ঠা দিয়ে মাছ চাষ স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ছে দুপুরের পর জেলেরা গভীর সাগরে যেতে পারবে ইনজেকশন দিয়ে স্বাবলম্বী দেড় শতাধিক নারী বঙ্গবন্ধু তরুণ লেখক পরিষদের সম্মেলন ও গুণীজন সম্মাননা রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন গোলাপবাগে ইন্টারনেট নেই, মোবাইলে কলড্রপ খালেদা জিয়ার হাত কালো নয়, সাদা: আফরোজা আব্বাস পটুয়াখালীর “শ্রেষ্ঠ জয়িতা” কলাপাড়ার মিলি রাস্তা বন্ধ করে সভা-সমাবেশ মানবাধিকার লঙ্ঘনের শামিল: আইনমন্ত্রী নাশকতার চেষ্টা হলে প্রতিহত করা হবে : র‌্যাব

শর্তসাপেক্ষে সোহরাওয়ার্দীতে বিএনপির সমাবেশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

শর্তসাপেক্ষে সোহরাওয়ার্দীতে বিএনপির সমাবেশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
শর্তসাপেক্ষে আগামী ১০ ডিসেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমতি পাবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। তবে কয়েকদিন ধরে বিএনিপর নেতারা বলছেন নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনেই সমাবেশ করবেন তারা।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় সদরঘাটে এক অনুষ্ঠান সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে সমাবেশের অনুমনি চাওয়া হয়েছে। তবে নয়াপল্টনে সমাবেশ করার সুযোগ নেই। শর্তসাপেক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি পাবে।

তিনি জানান, সমাবেশ করতে হলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে বিএনপিকে শর্ত মেনে চলতে হবে।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, বিএনপি মনে হয় ১০ ডিসেম্বর মহাপ্রলয় ঘটিয়ে দেবে। কিন্ত প্রধানমন্ত্রী এসব ভয় পান না। আমরা জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় এসেছি, জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় থাকব।

এর আগে, গত ১৫ নভেম্বর ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুকের কার্যালয়ে গিয়ে ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে সমাবেশ করার অনুমতি চায় বিএনপির একটি প্রতিনিধিদল। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, আমরা বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দিব। তবে কোথায় দেব সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অবশেষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমতি পাবে বলে জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আগামী ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনেই সমাবেশ হবে।

তিনি বলেন, আমরা যেখানে বলেছি সেখানেই হবে। অনুমতি দিলেও হবে, না দিলেও হবে। এ দেশটা আমাদের সকলের। ইতোমধ্যে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুমতি চাওয়া হয়েছে তারা দিতে যদি অপরাগ হয়, আমরা কোরবো।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীও বলেছেন, নয়াপল্টনেই তারা সমাবেশ করবেন। এখানে বাধা দেওয়ার সুযোগ নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *