ঢাকা ০৫:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

শনিবার মফস্বলে বিএনপির ভাঙচুর-অগ্নি সংযোগের পরিকল্পনা : ওবায়দুল কাদের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৫২:৩৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৪৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) মফস্বলে বিএনপির ভাঙচুর-অগ্নি সংযোগের পরিকল্পনা রয়েছে বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী  সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় আওয়ামী লীগের সম্মেলনস্থল সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পরিদর্শনে এসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা শুনতে পাচ্ছি শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) ঢাকায় আমাদের সম্মেলন তারা তাদের কর্মসূচি পিছিয়েছে। কিন্তুশনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সারা বাংলাদেশে তাদের কিন্তু প্রোগ্রাম আছে এবং এই প্রোগ্রাম উপলক্ষে অগণতান্ত্রিক, অসাংবিধানিক পথে সভা-সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করতে চায়। গাড়ি ভাঙচুর, গাড়ি পোড়াতে শুরু করেছে। মফস্বলে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ তাদের এ ধরনের প্রোগ্রাম রয়েছে।’

মফস্বল খালি করে সকল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ঢাকায় আসতে নিষেধ করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমাদের জাতীয় সম্মেলন হবে। বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী এখানে আসবেন। কিন্তু তাই বলে আওয়ামী লীগ তার এলাকা খালি করে আসবে না। আমাদের লোকজন প্রস্তুত থাকবে। আমি আবারো বলছি, ঢাকার বাইরে যারা থাকবেন সম্মেলনে তো সবাই আসবেন না। যারা থাকবে ১০ ডিসেম্বরের মত সতর্ক পাহারায় থাকবে। সারা বাংলাদেশের সকল জেলার, সকল উপজেলায়, ইউনিয়নে সর্বত্র সতর্ক পাহারা রাখতে হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকে বাইরে যে তাণ্ডব চলছে, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে নিয়ে আজকে বিএনপি জোটের নেতৃত্ব দিচ্ছে, ১০ তারিখে তারা ফেল করেছে। তারা মাথা নত করবে না। তারা মরিয়া হয়ে নেমেছে। কারণ তারা জানে নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে হারানো সহজ নয়। কাজেই তারা এখন আন্দোলন, জ্বালাও-পোড়াও সন্ত্রাস এসব অপকর্ম করে সরকার হটানোর পাঁয়তারা করছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এরা এই যে শূন্যতা মনে করে আঘাত হানতে পারে। কাজেই কোথাও শূন্যতা থাকবে না। আমাদের যারা থাকবে, তারা প্রস্তুত হয়ে থাকবে। সতর্ক পাহারায় থাকবে। এটা আমি আজকে এই শৃঙ্খলা সমাবেশ থেকে এই বার্তাটা আমি সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য মিডিয়াকে অনুরোধ করছি।

শনিবারের সম্মেলনে নির্বাচনের দায়িত্ববোধের প্রতিফলন ঘটবে বলেও জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

এসময় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

শনিবার মফস্বলে বিএনপির ভাঙচুর-অগ্নি সংযোগের পরিকল্পনা : ওবায়দুল কাদের

আপডেট সময় : ০৬:৫২:৩৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) মফস্বলে বিএনপির ভাঙচুর-অগ্নি সংযোগের পরিকল্পনা রয়েছে বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী  সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় আওয়ামী লীগের সম্মেলনস্থল সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পরিদর্শনে এসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা শুনতে পাচ্ছি শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) ঢাকায় আমাদের সম্মেলন তারা তাদের কর্মসূচি পিছিয়েছে। কিন্তুশনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সারা বাংলাদেশে তাদের কিন্তু প্রোগ্রাম আছে এবং এই প্রোগ্রাম উপলক্ষে অগণতান্ত্রিক, অসাংবিধানিক পথে সভা-সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করতে চায়। গাড়ি ভাঙচুর, গাড়ি পোড়াতে শুরু করেছে। মফস্বলে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ তাদের এ ধরনের প্রোগ্রাম রয়েছে।’

মফস্বল খালি করে সকল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ঢাকায় আসতে নিষেধ করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমাদের জাতীয় সম্মেলন হবে। বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী এখানে আসবেন। কিন্তু তাই বলে আওয়ামী লীগ তার এলাকা খালি করে আসবে না। আমাদের লোকজন প্রস্তুত থাকবে। আমি আবারো বলছি, ঢাকার বাইরে যারা থাকবেন সম্মেলনে তো সবাই আসবেন না। যারা থাকবে ১০ ডিসেম্বরের মত সতর্ক পাহারায় থাকবে। সারা বাংলাদেশের সকল জেলার, সকল উপজেলায়, ইউনিয়নে সর্বত্র সতর্ক পাহারা রাখতে হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকে বাইরে যে তাণ্ডব চলছে, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে নিয়ে আজকে বিএনপি জোটের নেতৃত্ব দিচ্ছে, ১০ তারিখে তারা ফেল করেছে। তারা মাথা নত করবে না। তারা মরিয়া হয়ে নেমেছে। কারণ তারা জানে নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে হারানো সহজ নয়। কাজেই তারা এখন আন্দোলন, জ্বালাও-পোড়াও সন্ত্রাস এসব অপকর্ম করে সরকার হটানোর পাঁয়তারা করছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এরা এই যে শূন্যতা মনে করে আঘাত হানতে পারে। কাজেই কোথাও শূন্যতা থাকবে না। আমাদের যারা থাকবে, তারা প্রস্তুত হয়ে থাকবে। সতর্ক পাহারায় থাকবে। এটা আমি আজকে এই শৃঙ্খলা সমাবেশ থেকে এই বার্তাটা আমি সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য মিডিয়াকে অনুরোধ করছি।

শনিবারের সম্মেলনে নির্বাচনের দায়িত্ববোধের প্রতিফলন ঘটবে বলেও জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

এসময় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।