সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পার্বত্য চট্টগ্রামের সীমান্ত সড়ক প্রকল্প পরিদর্শন করলেন সেনাপ্রধান মীরসরাইয়ে মসজিদের জন্য ২৮ শতক জমি দান করলেন শিক্ষক আবুল কালাম বেড়েই চলছে ইজিবাইক; প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনার কবলে পথচারীরা চিলমারীতে ইট ভাটায় অভিযান : ২লাখ টাকা জরিমানা পত্নীতলায় উপজেলার বিভিন্ন দপ্তর পরিদর্শন করলেন ডিসি বিএনপি রিমোট কন্ট্রোল নেতৃত্বে চলছে : কাদের কলমাকান্দায় গ্রাম উন্নয়ন কমিটির কর্মশালা অনুষ্ঠিত সাঁথিয়ায় গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু : পরিবারের দাবি হত্যা খানসামায় অনুমোদনবিহীন সার তৈরি করায় জরিমানা কৈলাশ খেরকে বোতল ছুড়লেন দর্শকরা পিএসজিকে রুখে দিল রেইমস ঝিকরগাছায় মহিলাদের সদাইপাতির দোকান উদ্বোধন সত্যিকারের হিরো খুঁজে পেলেন শাকিব খান ঘরের মাঠে পয়েন্ট হারাল রিয়াল ডামুড্যায় মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

লন্ডনে দেয়ালে প্রস্রাবরোধী রঙ

লন্ডনে দেয়ালে প্রস্রাবরোধী রঙ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

হাজার অনুরোধেও কাজ হয়নি। শহরের আনাচে-কানাচে প্রস্রাব করে দিতেন পথচারীরা। এগুলো পরিষ্কার করতেই লাখ লাখ পাউন্ড ব্যয় হয়ে যেত পৌর কর্তৃপক্ষের।

তাই অভিনব এক সমাধান বের করল লন্ডনের এক পৌরসভা। তারা ঠিক করেছে, শহরের দেয়ালে প্রস্রাবরোধী রঙ করা হবে। এই রঙের গুণ এমনই যে, দেয়ালে কেউ প্রস্রাব করলেই তা ছিটকে গিয়ে লাগবে প্রস্রাবকারীর গায়েই! সোহো পৌর অঞ্চলটিতে রয়েছে একাধিক পানশালা, রেস্তোরাঁ। বহু পর্যটক বিনোদনের উদ্দেশেই এ জনপদে আসেন।

সারারাত জেগে থাকে এই শহর। এই শহরের একদিকে যেমন থাকেন উচ্চবিত্তের মানুষ, অপরদিকে একটি অংশে থাকেন মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষ। শহরের বাসিন্দাদের একাংশের অভিযোগ- গত কয়েক দিন ধরে সকালে উঠেই তারা দেখছেন, তাদের বাড়ির সামনে কে বা কারা প্রস্রাব করে দিয়ে চলে যাচ্ছে। দুর্গন্ধে বাড়িতে টিকতে পারছেন না তারা। শহরের প্রায় তিন হাজার বাসিন্দা এ ব্যাপারে পৌরসভার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তার পরই শহরের নানা দেয়ালে ওই বিশেষ রঙ করার সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় কাউন্সিলর আইচা লেস এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, তাদের এ পরিকল্পনা ফলপ্রসূ হয়েছে। রঙের মধ্যে থাকা রাসায়নিকের গুণের কারণেই এমন অদ্ভুত ঘটনা ঘটছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে দামি এই রঙ আপাতত শহরের হাসপাতালগুলোর দেয়ালেই দেওয়া হয়েছে। পরে অন্যত্রও করা হবে বলে জানিয়েছে পৌর প্রশাসন।

হাসপাতালের দেয়ালগুলোতেই মত্ত অবস্থায় থাকা ব্যক্তিরা সবচেয়ে বেশি প্রস্রাব করেন বলে শহরবাসীর অভিযোগ। জার্মানির একটি শহরে নাকি প্রথম এই রঙ ব্যবহৃত হয়। এবার দেয়ালে প্রস্রাব রুখতে সেই রঙেরই শরণাপন্ন হলো লন্ডনের এই পৌর প্রশাসন। সূত্র : এএফপি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *