ঢাকা ০৬:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে আলোচনা করতে ঢাকায় আসছেন মার্কিন মন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৫১:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৪১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
চারদিনের সফরে ঢাকায় আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্র  দফতরের জনসংখ্যা, শরণার্থী ও অভিবাসন বিষয়ক সহকারী মন্ত্রী জুলিয়েটা ভ্যালস নয়েস। তার সফরে বাংলাদেশে সাময়িকভাবে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের যুক্তরাষ্ট্রে পুনর্বাসন নিয়ে আলোচনা হবে।
রোববার (৪ ডিসেম্বর) ঢাকায় আসার কথা রয়েছে জুলিয়েটার।

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া কিছু রোহিঙ্গাকে পুনর্বাসন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। সুনির্দিষ্টভাবে নাম-পরিচয়ের বিস্তারিত জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পুনর্বাসনে রাজি হওয়া অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গার একটি তালিকা সম্প্রতি ঢাকাকে দিয়েছে ওয়াশিংটন। কিভাবে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করতেই যুক্তরাষ্ট্রের শরণার্থী ও অভিবাসন মন্ত্রীর এ সফর।

তৃতীয় দেশে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে। বিশেষ করে নারী ও শিশুদের নেওয়ার বিষয়টি তাদের প্রথম অগ্রাধিকার। নারীদের মধ্যে যারা রাখাইনে সম্ভ্রম হারিয়েছে এবং যাদের পরিবার বলতে এখানে তেমন কেউ নেই, তাদেরকে পুনর্বাসন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র।

জানা গেছে, সোমবার (৫ ডিসেম্বর) রোহিঙ্গাদের সরেজমিনে দেখতে কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাবেন জুলিয়েটা। সেখানে তিনি রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলাপ করবেন। পরদিন মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) কক্সবাজার থেকে নোয়াখালীর ভাসানচরে স্থানান্তরিত রোহিঙ্গাদের দেখতে যাওয়ার কথা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মন্ত্রীর।

কূটনৈতিক সূত্রগুলোর ভাষ্য, যুক্তরাষ্ট্রের শরণার্থী ও অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুর বাইরে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ও ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবের বিষয়টি তুলবেন।
সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বৈঠক করার কথা রয়েছে মার্কিন মন্ত্রীর। বৈঠক করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেনের সাথেও। এছাড়া সফরে স্বরাষ্ট্র, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন জুলিয়েটা।

তিনি শরণার্থী নিয়ে কাজ করা জাতিসংঘের অধীন এনজিও সংস্থাগুলোর আঞ্চলিক প্রতিনিধি এবং গণমাধ্যমের সঙ্গেও মতবিনিময় করবেন বলে জানা গেছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে আলোচনা করতে ঢাকায় আসছেন মার্কিন মন্ত্রী

আপডেট সময় : ১২:৫১:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
চারদিনের সফরে ঢাকায় আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্র  দফতরের জনসংখ্যা, শরণার্থী ও অভিবাসন বিষয়ক সহকারী মন্ত্রী জুলিয়েটা ভ্যালস নয়েস। তার সফরে বাংলাদেশে সাময়িকভাবে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের যুক্তরাষ্ট্রে পুনর্বাসন নিয়ে আলোচনা হবে।
রোববার (৪ ডিসেম্বর) ঢাকায় আসার কথা রয়েছে জুলিয়েটার।

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া কিছু রোহিঙ্গাকে পুনর্বাসন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। সুনির্দিষ্টভাবে নাম-পরিচয়ের বিস্তারিত জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পুনর্বাসনে রাজি হওয়া অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গার একটি তালিকা সম্প্রতি ঢাকাকে দিয়েছে ওয়াশিংটন। কিভাবে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করতেই যুক্তরাষ্ট্রের শরণার্থী ও অভিবাসন মন্ত্রীর এ সফর।

তৃতীয় দেশে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে। বিশেষ করে নারী ও শিশুদের নেওয়ার বিষয়টি তাদের প্রথম অগ্রাধিকার। নারীদের মধ্যে যারা রাখাইনে সম্ভ্রম হারিয়েছে এবং যাদের পরিবার বলতে এখানে তেমন কেউ নেই, তাদেরকে পুনর্বাসন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র।

জানা গেছে, সোমবার (৫ ডিসেম্বর) রোহিঙ্গাদের সরেজমিনে দেখতে কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাবেন জুলিয়েটা। সেখানে তিনি রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলাপ করবেন। পরদিন মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) কক্সবাজার থেকে নোয়াখালীর ভাসানচরে স্থানান্তরিত রোহিঙ্গাদের দেখতে যাওয়ার কথা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মন্ত্রীর।

কূটনৈতিক সূত্রগুলোর ভাষ্য, যুক্তরাষ্ট্রের শরণার্থী ও অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুর বাইরে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ও ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবের বিষয়টি তুলবেন।
সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বৈঠক করার কথা রয়েছে মার্কিন মন্ত্রীর। বৈঠক করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেনের সাথেও। এছাড়া সফরে স্বরাষ্ট্র, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন জুলিয়েটা।

তিনি শরণার্থী নিয়ে কাজ করা জাতিসংঘের অধীন এনজিও সংস্থাগুলোর আঞ্চলিক প্রতিনিধি এবং গণমাধ্যমের সঙ্গেও মতবিনিময় করবেন বলে জানা গেছে।