ঢাকা ০১:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রাবি ছাত্রের মৃত্যু : ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৬:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫১ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাবি প্রতিনিধি : 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী এমজিএম শাহরিয়ারের মৃত্যুর ঘটনায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের চিকিৎসকদের অবহেলার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে এ কমিটিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ প্রশাসন ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যৌথভাবে আলোচনায় বসে এ তদন্ত কমিটি গঠন করে।

তদন্ত কমিটি সদস্যরা হলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা এম তারেক নূর, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আসাবুল হক, রাজশাহী বিভাগীয় উপ-পুলিশ কমিশনার ক্রাইম, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ড. নওশাদ আলি ও মেডিকেল কলেজের একজন সিনিয়র চিকিৎসক।
আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে রাজশাহী বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার আবুল কালাম সিদ্দিক বলেন, আমরা তিন দিনের সময় চাইছি। তোমরা আমাদের তিন দিন সময় দিয়ে সাহায্য করবে। শিক্ষার্থীরা ন্যায়বিচার পাবেন বলে আশ্বস্ত করেন তিনি। যারা আহত তাদের চিকিৎসার সব দায়িত্ব রামেক প্রশাসন নিয়েছে বলেও তিনি জানান।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

রাবি ছাত্রের মৃত্যু : ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি

আপডেট সময় : ১০:৫৬:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর ২০২২

রাবি প্রতিনিধি : 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী এমজিএম শাহরিয়ারের মৃত্যুর ঘটনায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের চিকিৎসকদের অবহেলার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে এ কমিটিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ প্রশাসন ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যৌথভাবে আলোচনায় বসে এ তদন্ত কমিটি গঠন করে।

তদন্ত কমিটি সদস্যরা হলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা এম তারেক নূর, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আসাবুল হক, রাজশাহী বিভাগীয় উপ-পুলিশ কমিশনার ক্রাইম, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ড. নওশাদ আলি ও মেডিকেল কলেজের একজন সিনিয়র চিকিৎসক।
আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে রাজশাহী বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার আবুল কালাম সিদ্দিক বলেন, আমরা তিন দিনের সময় চাইছি। তোমরা আমাদের তিন দিন সময় দিয়ে সাহায্য করবে। শিক্ষার্থীরা ন্যায়বিচার পাবেন বলে আশ্বস্ত করেন তিনি। যারা আহত তাদের চিকিৎসার সব দায়িত্ব রামেক প্রশাসন নিয়েছে বলেও তিনি জানান।