ঢাকা ০১:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রাজশাহীতে ১৪৫ ধারা ভঙ্গ করে নালিশী সম্পত্তিতে ভবন নির্মাণ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৬:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২
  • / ৫৩৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানাধীন ম্যাচ ফ্যক্টরি মোড় এলাকায় বিরোধপূর্ণ জমিতে ১৪৪/১৪৫ ধারা জারির পর বিবাদীরা সেই আদেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নালিশী সম্পত্তিতে ভবন নির্মাণের চলমান।
বাদী আব্দুল বারী আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে উক্ত নালিশী সম্পত্তিতে স্থিতিশীল অবস্থা বজায় রাখলেও বিবাদী লাকি বেগমরা এভাবে আদালতের আদেশ অমান্য করায় বাদী হতাশ হয়ে পড়েছে।
আদালত সুত্রে জানা যায়, তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি আর,এস ৩৩৩ নং খতিয়ান এর আর,এস ১৫১১ দাগে পাঁচটি দোকান ঘর সহ ফাঁকা জায়গায় সবজি লাগিয়ে বাদী দীর্ঘদিন ভোগ দখল করে আসছিলেন।
পরবর্তীতে রাজশাহী মহানগরীর শিরোইল মঠপুকুর এলাকার মৃত তামসুরুদ্দিন মন্ডল ছেলে আব্দুল বারীর (৪২) সাথে পার্শ্ববর্তী এলাকার মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে মোঃ দুরুল হোদা, মোঃ আফসার হোসেনের ছেলে আজিজুর রহমান ও পবা নতুন পাড়া এলাকার সিয়াম আলীর স্ত্রী লাকী বেগমদের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ রহিয়াছে।
একারণে গত ২৬/৯/২২ ইং তারিখে আব্দুল বারী বাদী হয়ে রাজশাহী বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে শান্তি-শৃংখলা রক্ষার্থে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪/১৪৫ ধারা জারির জন্য আবেদন করেন। আদালত তার আবেদন আমলে নিয়ে নালিশী সম্পত্তির উপর ফৌজদারী কার্যবিধি এর ১৪৫(১) ধারা মতে ২য় পক্ষকে নালিশী জমির দখল বিষয়ে লিখিত বিবৃতি দাখিলের জন্য নির্দেশ এবং সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নালিশী জমিতে শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন।
কিন্তু বিবাদীরা আদালতের সেই আদেশ অমান্য করে অদ্যাবধি নালিশী সম্পত্তিতে লেও খুরে বিল্ডিং নির্মাণ করছে যা আদালত অবমাননার শামিল।
]এ ব্যাপারে রাজশাহী বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ মজাহারুল ইসলাম বলেন, আদালতের আদেশ অমান্য করার ক্ষমতা বাদী বিবাদী উভয় পক্ষের নেই। যদি কেউ সেই আদেশ অমান্য করে। তাহলে অবশ্যই তাকে আদালতের কাছে জবাবদিহিতা করতে হবে।
বিবাবাদীগন বলেন, আমারা আমাদের জমিতে কাজ করছি। আমার জমিতে কাজ করতে সমস্যা কোথায়? বাদী আব্দুল বারী বলেন, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আদালতের নির্দেশ অমান্য করে নালিশী সম্পত্তিতে আমরা কোন কাজ করব না।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রাজশাহীতে ১৪৫ ধারা ভঙ্গ করে নালিশী সম্পত্তিতে ভবন নির্মাণ

আপডেট সময় : ০৮:৫৬:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২
রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানাধীন ম্যাচ ফ্যক্টরি মোড় এলাকায় বিরোধপূর্ণ জমিতে ১৪৪/১৪৫ ধারা জারির পর বিবাদীরা সেই আদেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নালিশী সম্পত্তিতে ভবন নির্মাণের চলমান।
বাদী আব্দুল বারী আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে উক্ত নালিশী সম্পত্তিতে স্থিতিশীল অবস্থা বজায় রাখলেও বিবাদী লাকি বেগমরা এভাবে আদালতের আদেশ অমান্য করায় বাদী হতাশ হয়ে পড়েছে।
আদালত সুত্রে জানা যায়, তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি আর,এস ৩৩৩ নং খতিয়ান এর আর,এস ১৫১১ দাগে পাঁচটি দোকান ঘর সহ ফাঁকা জায়গায় সবজি লাগিয়ে বাদী দীর্ঘদিন ভোগ দখল করে আসছিলেন।
পরবর্তীতে রাজশাহী মহানগরীর শিরোইল মঠপুকুর এলাকার মৃত তামসুরুদ্দিন মন্ডল ছেলে আব্দুল বারীর (৪২) সাথে পার্শ্ববর্তী এলাকার মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে মোঃ দুরুল হোদা, মোঃ আফসার হোসেনের ছেলে আজিজুর রহমান ও পবা নতুন পাড়া এলাকার সিয়াম আলীর স্ত্রী লাকী বেগমদের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ রহিয়াছে।
একারণে গত ২৬/৯/২২ ইং তারিখে আব্দুল বারী বাদী হয়ে রাজশাহী বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে শান্তি-শৃংখলা রক্ষার্থে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪/১৪৫ ধারা জারির জন্য আবেদন করেন। আদালত তার আবেদন আমলে নিয়ে নালিশী সম্পত্তির উপর ফৌজদারী কার্যবিধি এর ১৪৫(১) ধারা মতে ২য় পক্ষকে নালিশী জমির দখল বিষয়ে লিখিত বিবৃতি দাখিলের জন্য নির্দেশ এবং সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নালিশী জমিতে শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন।
কিন্তু বিবাদীরা আদালতের সেই আদেশ অমান্য করে অদ্যাবধি নালিশী সম্পত্তিতে লেও খুরে বিল্ডিং নির্মাণ করছে যা আদালত অবমাননার শামিল।
]এ ব্যাপারে রাজশাহী বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ মজাহারুল ইসলাম বলেন, আদালতের আদেশ অমান্য করার ক্ষমতা বাদী বিবাদী উভয় পক্ষের নেই। যদি কেউ সেই আদেশ অমান্য করে। তাহলে অবশ্যই তাকে আদালতের কাছে জবাবদিহিতা করতে হবে।
বিবাবাদীগন বলেন, আমারা আমাদের জমিতে কাজ করছি। আমার জমিতে কাজ করতে সমস্যা কোথায়? বাদী আব্দুল বারী বলেন, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আদালতের নির্দেশ অমান্য করে নালিশী সম্পত্তিতে আমরা কোন কাজ করব না।