ঢাকা ০৭:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রাঙ্গাবালীতে দুই খালে অবৈধ বাঁধ কাটার নির্দেশ, ৩ দখলদারের জেল-জরিমানা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৫১:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর ২০২২
  • / ৪৩৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :

দীর্ঘদিন ধরে দখল করে মাছ চাষ করা পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুইটি সরকারি খাস খালের ১৮টি অবৈধ বাঁধ কেটে উন্মুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় তিন দখলদারকে জেল-জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুর ২ টার দিকে ওই ইউনিয়নের জুগিরহাওলা গ্রামের কইয়ার খাল এবং নামছড়ি খালে অভিযান পরিচালনা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। স্থানীয় কৃষক ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ২০-২৫ বছর ধরে খাল দুইটি দখল করে মাছ চাষ করছিল স্থানীয় প্রভাবশালী চক্র। এতে কৃষি জমির পানি নিষ্কাশন ব্যাহত হচ্ছিল। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সালেক মূহিদের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে দুইটি খালের ১৮টি বাঁধ চিহ্নিত করা হয়। তাৎক্ষণিক ৫টি বাঁধ কেটে দিয়ে আর ১৩টি বাঁধ কাটার নির্দেশ দিয়ে খাল দুইটি জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, এসময় অবৈধভাবে খাল দখল করে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করার দায়ে সদর ইউনিয়নের জুগির হাওলা গ্রামের শাহিন তালুকদার (৪০) ও আল আমিন তালুকদারকে (৪৫) বিশ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া একই গ্রামের মোহসীন তালুকদার (৭০) নামের এক ব্যক্তিকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সালেক মূহিদ বলেন, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ এর ৬ঙ লঙ্ঘনের দায়ে তাদের তিনজনকে বিধি অনুযায়ী দণ্ড প্রদান করা হয়।

বা/খ:জই

নিউজটি শেয়ার করুন

রাঙ্গাবালীতে দুই খালে অবৈধ বাঁধ কাটার নির্দেশ, ৩ দখলদারের জেল-জরিমানা

আপডেট সময় : ০৫:৫১:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর ২০২২

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :

দীর্ঘদিন ধরে দখল করে মাছ চাষ করা পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুইটি সরকারি খাস খালের ১৮টি অবৈধ বাঁধ কেটে উন্মুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় তিন দখলদারকে জেল-জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুর ২ টার দিকে ওই ইউনিয়নের জুগিরহাওলা গ্রামের কইয়ার খাল এবং নামছড়ি খালে অভিযান পরিচালনা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। স্থানীয় কৃষক ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ২০-২৫ বছর ধরে খাল দুইটি দখল করে মাছ চাষ করছিল স্থানীয় প্রভাবশালী চক্র। এতে কৃষি জমির পানি নিষ্কাশন ব্যাহত হচ্ছিল। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সালেক মূহিদের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে দুইটি খালের ১৮টি বাঁধ চিহ্নিত করা হয়। তাৎক্ষণিক ৫টি বাঁধ কেটে দিয়ে আর ১৩টি বাঁধ কাটার নির্দেশ দিয়ে খাল দুইটি জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, এসময় অবৈধভাবে খাল দখল করে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করার দায়ে সদর ইউনিয়নের জুগির হাওলা গ্রামের শাহিন তালুকদার (৪০) ও আল আমিন তালুকদারকে (৪৫) বিশ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া একই গ্রামের মোহসীন তালুকদার (৭০) নামের এক ব্যক্তিকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সালেক মূহিদ বলেন, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ এর ৬ঙ লঙ্ঘনের দায়ে তাদের তিনজনকে বিধি অনুযায়ী দণ্ড প্রদান করা হয়।

বা/খ:জই