ঢাকা ১০:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রাখাইনের রামরি শহর দখল নিল বিদ্রোহীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০২:৩৬:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৩৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

এবার রাখাইন রাজ্যের উপকূলীয় শহর রামরি দখল করলো বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মি। তিন মাসের তীব্র লড়াইয়ের পর শহরটি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার দাবি করে বিবৃতি প্রকাশ করেছে গোষ্ঠীটি।

আরাকান আর্মি বলছে, গত তিনমাসে তুমুল লড়াই, জান্তা বাহিনীর বিমান হামলা ও বিপুল সংখ্যক সেনা হারানোর পরও সোমবার শহরটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে সেনাবাহিনী। তবে এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি জান্তাবাহিনী। কৌশলগতভাবে শহরটি দুই পক্ষের জন্যই বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। চীনের অধিকাংশ ব্যবসায়িক স্থাপনা রামরিতেই অবস্থিত তাই এর নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখা জান্তা বাহিনীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিলো।

রামরি দখলের পর এবার রাথেডাং শহরের দিকে এর দিকে অগ্রসর হচ্ছে আরাকান আর্মি। এইমধ্যে রাথেডাং এর সেনা হেডকোয়ার্টার লক্ষ্য করে হামলা শুরু করেছে গোষ্ঠীটি। মূলত আরাকান রাজ্য দখলই আরাকান আর্মির লক্ষ্য। গত তিনমাসে রাখাইনের ১৭০টি জান্তা ঘাঁটি এবং নয়টি শহর দখল করেছে আরাকান আর্মি।

নিউজটি শেয়ার করুন

রাখাইনের রামরি শহর দখল নিল বিদ্রোহীরা

আপডেট সময় : ০২:৩৬:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪

এবার রাখাইন রাজ্যের উপকূলীয় শহর রামরি দখল করলো বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মি। তিন মাসের তীব্র লড়াইয়ের পর শহরটি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার দাবি করে বিবৃতি প্রকাশ করেছে গোষ্ঠীটি।

আরাকান আর্মি বলছে, গত তিনমাসে তুমুল লড়াই, জান্তা বাহিনীর বিমান হামলা ও বিপুল সংখ্যক সেনা হারানোর পরও সোমবার শহরটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে সেনাবাহিনী। তবে এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি জান্তাবাহিনী। কৌশলগতভাবে শহরটি দুই পক্ষের জন্যই বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। চীনের অধিকাংশ ব্যবসায়িক স্থাপনা রামরিতেই অবস্থিত তাই এর নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখা জান্তা বাহিনীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিলো।

রামরি দখলের পর এবার রাথেডাং শহরের দিকে এর দিকে অগ্রসর হচ্ছে আরাকান আর্মি। এইমধ্যে রাথেডাং এর সেনা হেডকোয়ার্টার লক্ষ্য করে হামলা শুরু করেছে গোষ্ঠীটি। মূলত আরাকান রাজ্য দখলই আরাকান আর্মির লক্ষ্য। গত তিনমাসে রাখাইনের ১৭০টি জান্তা ঘাঁটি এবং নয়টি শহর দখল করেছে আরাকান আর্মি।