ঢাকা ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রাউজানে শেষমূহুর্তে প্রচুর বেরেছে কোরবানির পশু বেচা কেনা

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৪:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
  • / ৪৪০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাউজানে শেষমূহুর্তে শনিবার সারাদিন কোরবানি পশুর হাটে প্রচুর গরু বেচা কেনার দৃশ্য চোখে পড়েছে। উপজেলার সবচেয়ে বড় বাজার হিসাবে পরিচিত পৌরসভার চারা বটতল উত্তর চট্টগ্রামের বৃহত বাজার।সে বাজারে শনিবার সকাল থেকে প্রায় ৫/৬ হাজার গরু,ছাগল,মহিষ,বেড়া বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন গৃহপালিত, পাহাড়ী ও বেপাড়ীরা।

বিকাল ৩টায় পরিদর্শনে বাজার সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানাগেছে ৫শর অধিক গরু বিক্রি হয়ে গেছে এরিই মধ্যে।রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে বেচা কেনা। লাইটিং করা হয়েছে ১কিঃমিঃ জুড়ে। এছাড়া নাতোয়ান বাগিচা বাজার, ফকিরটিলা বাজার, মূছা শাহ বাজার, বইজ্জারহাট বাজারে শুক্রবার প্রচুর বিক্রি হয় কোরবানীর পশু।

শনিবার আমিরহাট ভট্রপাড়া মাঠে ক্রেতা বিক্রেতাদের উপস্থিতিতে মুখরিত হয়ে উঠে গরুর হাট। পরিদর্শন কালে দেখা যায়, বিশাল মাঠজুড়ে বসেছে পশুর হাট। পর্যাপ্ত গরু, মহিষ ও ছাগল বাজারে বিক্রি করতে নিয়ে এসেছে ক্রেতারা।

সাপ্তাহিক এই বাজারে দেখা যায় মাঝারি আকৃতির একেকটি গরু বিক্রি হচ্ছে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকায়।কোরবানী দাতাদের মাঝে গরুর পাশাপাশি মহিষের চাহিদাও বেড়েছে। চারাবটতল বাজার প্রসঙ্গে স্থানিয় পৌর কাউঞ্চিলর জসিম উদ্দিন বলেন এই বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতারা নিরাপত্তার সাথে কেনা-বেচা করতে পাচ্ছেন।

প্রতিটি বাজারে নিরাপত্তা জোরদার করতে পুলিশ সদস্যেদের নিয়োজিত রেখেছেন থানার পক্ষ হতে। এদিকে সমগ্র রাউজানে কোরবাণী পশু ক্রয় বিক্রয় নিয়ে কোন ধরনের অপ্রিতকর ঘটনা ঘটেনি।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

রাউজানে শেষমূহুর্তে প্রচুর বেরেছে কোরবানির পশু বেচা কেনা

আপডেট সময় : ০৪:৫৪:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

রাউজানে শেষমূহুর্তে শনিবার সারাদিন কোরবানি পশুর হাটে প্রচুর গরু বেচা কেনার দৃশ্য চোখে পড়েছে। উপজেলার সবচেয়ে বড় বাজার হিসাবে পরিচিত পৌরসভার চারা বটতল উত্তর চট্টগ্রামের বৃহত বাজার।সে বাজারে শনিবার সকাল থেকে প্রায় ৫/৬ হাজার গরু,ছাগল,মহিষ,বেড়া বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন গৃহপালিত, পাহাড়ী ও বেপাড়ীরা।

বিকাল ৩টায় পরিদর্শনে বাজার সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানাগেছে ৫শর অধিক গরু বিক্রি হয়ে গেছে এরিই মধ্যে।রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে বেচা কেনা। লাইটিং করা হয়েছে ১কিঃমিঃ জুড়ে। এছাড়া নাতোয়ান বাগিচা বাজার, ফকিরটিলা বাজার, মূছা শাহ বাজার, বইজ্জারহাট বাজারে শুক্রবার প্রচুর বিক্রি হয় কোরবানীর পশু।

শনিবার আমিরহাট ভট্রপাড়া মাঠে ক্রেতা বিক্রেতাদের উপস্থিতিতে মুখরিত হয়ে উঠে গরুর হাট। পরিদর্শন কালে দেখা যায়, বিশাল মাঠজুড়ে বসেছে পশুর হাট। পর্যাপ্ত গরু, মহিষ ও ছাগল বাজারে বিক্রি করতে নিয়ে এসেছে ক্রেতারা।

সাপ্তাহিক এই বাজারে দেখা যায় মাঝারি আকৃতির একেকটি গরু বিক্রি হচ্ছে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকায়।কোরবানী দাতাদের মাঝে গরুর পাশাপাশি মহিষের চাহিদাও বেড়েছে। চারাবটতল বাজার প্রসঙ্গে স্থানিয় পৌর কাউঞ্চিলর জসিম উদ্দিন বলেন এই বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতারা নিরাপত্তার সাথে কেনা-বেচা করতে পাচ্ছেন।

প্রতিটি বাজারে নিরাপত্তা জোরদার করতে পুলিশ সদস্যেদের নিয়োজিত রেখেছেন থানার পক্ষ হতে। এদিকে সমগ্র রাউজানে কোরবাণী পশু ক্রয় বিক্রয় নিয়ে কোন ধরনের অপ্রিতকর ঘটনা ঘটেনি।

 

বাখ//আর