ঢাকা ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রমজানে ব্যবসায়ীদের নৈতিক আচরণ করার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:০১:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৮৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রমজানে ব্যবসায়ীদের নৈতিক আচরণ করা এবং ‘ন্যায্য লাভ’ করার অনুরোধ জানিয়েছেন দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মতিঝিলে এফবিসিসিআই বোর্ডরুমে আয়োজিত ‘আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর উৎপাদন, আমদানি, মজুদ, সরবরাহ ও সামগ্রিক দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা’র জন্য সংশ্লিষ্ট উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এফবিআইয়ের সভাপতি বলেন, রমজানে বাজার মনিটরিং, চাই না পুলিশ দিয়ে করানো হোক। এটার জন্য বাজার কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মনিটরিং করলেই হয়। আপনার এটা না করলে সরকারিভাবে হয়রানির শিকার হতে হবে। এটা আমরা চাই না। অসৎ ব্যবসায়ীর পক্ষে এফবিসিসিআই কোনো কথা বলবে না।

তিনি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, পণ্য পরিবহনে চাঁদাবাজির কারণেও নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে। তাই এবার যে কোনো মূল্যে চাঁদাবাজি বন্ধ করবে এফবিসিসিআই। আমরা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে বিষয়টি নিয়ে সরাসরি আলাপ করব।

বৈঠকে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা বলেন, রমজানে পেঁয়াজের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই। বরং দুই সপ্তাহের মধ্যে দাম ৬০ টাকার মধ্যে নেমে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা জানান সংশ্লিষ্টরা। খেঁজুরের দাম বৃদ্ধির দায়ও ব্যবসায়ীরা নিতে নারাজ। তাদের দাবি, এনবিআর অতিরিক্ত শুল্ক বসানোর কারণেই বেড়েছে দাম।

নিউজটি শেয়ার করুন

রমজানে ব্যবসায়ীদের নৈতিক আচরণ করার আহ্বান

আপডেট সময় : ০৪:০১:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রমজানে ব্যবসায়ীদের নৈতিক আচরণ করা এবং ‘ন্যায্য লাভ’ করার অনুরোধ জানিয়েছেন দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মতিঝিলে এফবিসিসিআই বোর্ডরুমে আয়োজিত ‘আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর উৎপাদন, আমদানি, মজুদ, সরবরাহ ও সামগ্রিক দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা’র জন্য সংশ্লিষ্ট উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এফবিআইয়ের সভাপতি বলেন, রমজানে বাজার মনিটরিং, চাই না পুলিশ দিয়ে করানো হোক। এটার জন্য বাজার কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মনিটরিং করলেই হয়। আপনার এটা না করলে সরকারিভাবে হয়রানির শিকার হতে হবে। এটা আমরা চাই না। অসৎ ব্যবসায়ীর পক্ষে এফবিসিসিআই কোনো কথা বলবে না।

তিনি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, পণ্য পরিবহনে চাঁদাবাজির কারণেও নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে। তাই এবার যে কোনো মূল্যে চাঁদাবাজি বন্ধ করবে এফবিসিসিআই। আমরা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে বিষয়টি নিয়ে সরাসরি আলাপ করব।

বৈঠকে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা বলেন, রমজানে পেঁয়াজের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই। বরং দুই সপ্তাহের মধ্যে দাম ৬০ টাকার মধ্যে নেমে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা জানান সংশ্লিষ্টরা। খেঁজুরের দাম বৃদ্ধির দায়ও ব্যবসায়ীরা নিতে নারাজ। তাদের দাবি, এনবিআর অতিরিক্ত শুল্ক বসানোর কারণেই বেড়েছে দাম।