ঢাকা ০২:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার বার্তা কিমের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:১৮:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪২৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন বলেছেন, এখন যুদ্ধের জন্য আগের চেয়ে আরও বেশি প্রস্তুত হওয়ার সময়। দেশটির প্রধান সামরিক বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রসঙ্গত বুধবার প্রতিপক্ষ দক্ষিণ কোরিয়ায় পার্লামেন্টারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ক্ষমতাসীনরা বড় পরাজয়ের শিকার হয়। কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) বৃহস্পতিবার এ খবর জানায়।

অনিশ্চিত ও অস্থিতিশীল সামরিক ও রাজনৈতিক অবস্থার কথা তুলে ধরে কিম জং ইল ইউনিভার্সিটি অব মিলিটারি অ্যান্ড পলিটিক্সে উত্তর কোরিয়ার এ নেতা বলেন, এখন যুদ্ধের জন্য আগের চেয়ে আরও পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে প্রস্তুত হওয়ার সময়।

গত কয়েক মাসে দক্ষিণ কোরিয়া ও তাদের মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ বাড়িয়েছে উত্তর কোরিয়া। দেশটির অভিযোগ, যুদ্ধ কৌশল এবং সামরিক মহড়া বাড়িয়ে সামরিক উত্তেজনা উসকে দেওয়া হচ্ছে। মার্চ মাসে কিম তার দেশের পশ্চিমে একটি বড় সামরিক ঘাঁটি পরিদর্শনের পর যুদ্ধের প্রস্তুতি জোরদার করার নির্দেশ দেন।

বর্তমান সময়ে এক দিকে রাশিয়া-ইউক্রেন ও ইসারাইল-হামাস সংঘর্ষে উত্তপ্ত বিশ্ব। এই পরিস্থিতিতে কিমের মন্তব্য হুমকি নাকি আগাম সতর্কতা ওই নিয়েই শুরু হয়েছে জল্পনা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মীদের কিম জানিয়েছেন, যদি শত্রুবাহিনী উত্তর কোরিয়ার সাথে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়, সে ক্ষেত্রে কোনো রকম দ্বিধা না রেখেই শত্রুদের গুঁড়িয়ে দেয়ার বার্তাও দিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক। সে জন্য যেকোনো পদক্ষেপ করার কথা জানিয়েছেন কিম।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবারই সফল ভাবে হাইপারসোনিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করেছে উত্তর কোরিয়া। এই অস্ত্র তাদের দ্রুত ও আরো শক্তিশালী ভাবে প্রত্যাঘাতের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে দিয়েছে বলেও জানান কিম।

নিউজটি শেয়ার করুন

যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার বার্তা কিমের

আপডেট সময় : ০৯:১৮:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন বলেছেন, এখন যুদ্ধের জন্য আগের চেয়ে আরও বেশি প্রস্তুত হওয়ার সময়। দেশটির প্রধান সামরিক বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রসঙ্গত বুধবার প্রতিপক্ষ দক্ষিণ কোরিয়ায় পার্লামেন্টারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ক্ষমতাসীনরা বড় পরাজয়ের শিকার হয়। কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) বৃহস্পতিবার এ খবর জানায়।

অনিশ্চিত ও অস্থিতিশীল সামরিক ও রাজনৈতিক অবস্থার কথা তুলে ধরে কিম জং ইল ইউনিভার্সিটি অব মিলিটারি অ্যান্ড পলিটিক্সে উত্তর কোরিয়ার এ নেতা বলেন, এখন যুদ্ধের জন্য আগের চেয়ে আরও পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে প্রস্তুত হওয়ার সময়।

গত কয়েক মাসে দক্ষিণ কোরিয়া ও তাদের মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ বাড়িয়েছে উত্তর কোরিয়া। দেশটির অভিযোগ, যুদ্ধ কৌশল এবং সামরিক মহড়া বাড়িয়ে সামরিক উত্তেজনা উসকে দেওয়া হচ্ছে। মার্চ মাসে কিম তার দেশের পশ্চিমে একটি বড় সামরিক ঘাঁটি পরিদর্শনের পর যুদ্ধের প্রস্তুতি জোরদার করার নির্দেশ দেন।

বর্তমান সময়ে এক দিকে রাশিয়া-ইউক্রেন ও ইসারাইল-হামাস সংঘর্ষে উত্তপ্ত বিশ্ব। এই পরিস্থিতিতে কিমের মন্তব্য হুমকি নাকি আগাম সতর্কতা ওই নিয়েই শুরু হয়েছে জল্পনা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মীদের কিম জানিয়েছেন, যদি শত্রুবাহিনী উত্তর কোরিয়ার সাথে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়, সে ক্ষেত্রে কোনো রকম দ্বিধা না রেখেই শত্রুদের গুঁড়িয়ে দেয়ার বার্তাও দিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক। সে জন্য যেকোনো পদক্ষেপ করার কথা জানিয়েছেন কিম।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবারই সফল ভাবে হাইপারসোনিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করেছে উত্তর কোরিয়া। এই অস্ত্র তাদের দ্রুত ও আরো শক্তিশালী ভাবে প্রত্যাঘাতের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে দিয়েছে বলেও জানান কিম।