ঢাকা ০৮:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতদের ৪৮ ঘণ্টা সময় দিল নাইজার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১২:৫১:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫০৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, জার্মানি ও নাইজেরিয়ার রাষ্ট্রদূতদের দেশ ছাড়তে ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে নাইজারের সামরিক সরকার। গতকাল শুক্রবার দেশটির সরকার নির্দেশনা জারি করেছে। আজ শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

তবে ফ্রান্স এ আল্টিমেটাম প্রত্যাখ্যান করেছে। কারণ দেশটি নাইজারের সামরিক সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। নাইজার সরকারের এ সিদ্ধান্তের ব্যাপারে অন্যান্য দেশ এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর জোট ইকোয়াস ও পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে নাইজারের জান্তা সরকারের সম্পর্কের অবনতি হওয়ার পর রাষ্ট্রদূতদের দেশ ত্যাগ করতে বলল নাইজার।

গত ২৬ জুলাই প্রেসিডেন্ট মোহামেদ বাজুমকে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করেন নাইজারের সেনাপ্রধান। এরপর ইকোয়াস ও অভ্যুত্থানের বিরোধিতা করে এবং বাজুমকে ক্ষমতায় পুনর্বহাল করতে অভ্যুত্থানকারীদের প্রতি আহ্বান জানায়। ইকোয়াসের এ আহ্বানে সমর্থন জানায় ফ্রান্স।

কিন্তু সকল আহ্বানকে উপেক্ষা করে এখনো ক্ষমতায় রয়েছে গেছে সামরিক সরকার।

এএফপি জানিয়েছে, গতকাল শুক্রবার পৃথক পৃথক চিঠিতে ফরাসি, জার্মান, নাইজেরিয়ান এবং মার্কিন রাষ্ট্রদূতদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলেছে নাইজারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

প্রতিটি চিঠিতে বলা হয়েছে, শুক্রবার একটি বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য রাষ্ট্রদূতদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কিন্তু রাষ্ট্রদূতেরা সেই আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছেন। এটি নাইজারের স্বার্থবিরোধী কাজ।

এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যায় ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, সামরিক সরকারদের এ ধরেনের অনুরোধ করার ক্ষমতা নেই। কেবল নির্বাচিত বৈধ সরকারই রাষ্ট্রদূতদের অনুমোদন দিতে পারে।

নাইজারে ফ্রান্সের দেড় হাজার সৈন্য রয়েছে। তারা চরমপন্থী জঙ্গিগোষ্ঠীদের বিরুদ্ধে বছরের পর বছর ধরে লড়াই করতে বাজুম সরকারকে সাহায্য করে আসছিল। এ ছাড়া নাইজারে যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত এক হাজার সৈন্য রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতদের ৪৮ ঘণ্টা সময় দিল নাইজার

আপডেট সময় : ১২:৫১:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২৩

যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, জার্মানি ও নাইজেরিয়ার রাষ্ট্রদূতদের দেশ ছাড়তে ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে নাইজারের সামরিক সরকার। গতকাল শুক্রবার দেশটির সরকার নির্দেশনা জারি করেছে। আজ শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

তবে ফ্রান্স এ আল্টিমেটাম প্রত্যাখ্যান করেছে। কারণ দেশটি নাইজারের সামরিক সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। নাইজার সরকারের এ সিদ্ধান্তের ব্যাপারে অন্যান্য দেশ এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর জোট ইকোয়াস ও পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে নাইজারের জান্তা সরকারের সম্পর্কের অবনতি হওয়ার পর রাষ্ট্রদূতদের দেশ ত্যাগ করতে বলল নাইজার।

গত ২৬ জুলাই প্রেসিডেন্ট মোহামেদ বাজুমকে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করেন নাইজারের সেনাপ্রধান। এরপর ইকোয়াস ও অভ্যুত্থানের বিরোধিতা করে এবং বাজুমকে ক্ষমতায় পুনর্বহাল করতে অভ্যুত্থানকারীদের প্রতি আহ্বান জানায়। ইকোয়াসের এ আহ্বানে সমর্থন জানায় ফ্রান্স।

কিন্তু সকল আহ্বানকে উপেক্ষা করে এখনো ক্ষমতায় রয়েছে গেছে সামরিক সরকার।

এএফপি জানিয়েছে, গতকাল শুক্রবার পৃথক পৃথক চিঠিতে ফরাসি, জার্মান, নাইজেরিয়ান এবং মার্কিন রাষ্ট্রদূতদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলেছে নাইজারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

প্রতিটি চিঠিতে বলা হয়েছে, শুক্রবার একটি বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য রাষ্ট্রদূতদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কিন্তু রাষ্ট্রদূতেরা সেই আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছেন। এটি নাইজারের স্বার্থবিরোধী কাজ।

এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যায় ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, সামরিক সরকারদের এ ধরেনের অনুরোধ করার ক্ষমতা নেই। কেবল নির্বাচিত বৈধ সরকারই রাষ্ট্রদূতদের অনুমোদন দিতে পারে।

নাইজারে ফ্রান্সের দেড় হাজার সৈন্য রয়েছে। তারা চরমপন্থী জঙ্গিগোষ্ঠীদের বিরুদ্ধে বছরের পর বছর ধরে লড়াই করতে বাজুম সরকারকে সাহায্য করে আসছিল। এ ছাড়া নাইজারে যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত এক হাজার সৈন্য রয়েছে।