ঢাকা ০১:৩২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় পুলিশসহ নিহত ৫

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৪৪:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৬৯ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনায় বন্দুক হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছে। তাদের একজন অফ-ডিউটিতে থাকা পুলিশ কর্মকর্তা। এ ছাড়া আরেক পুলিশ কর্মকর্তাসহ আহত হয়েছে কমপক্ষে দুজন। খবর রয়টার্স।

এ ঘটনায় সন্দেহভাজন এক শ্বেতাঙ্গ কিশোরকে আটক করা হয়েছে। তার সঙ্গে একটি বড় বন্দুক ছিল বলে জানা গিয়েছে। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেয়নি স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টার দিকে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় মার্কিন অঙ্গরাজ্য নর্থ ক্যারোলিনার রাজধানী রেলিগে এই ঘটনা ঘটে।

ওই হামলার পর দ্রুত ঘটনাস্থলে চলে আসে পুলিশ। তারা বাসিন্দাদের ঘরে থাকার অনুরোধ জানিয়ে পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি চালায়। এরপর অভিযুক্তকে আটক করা হয়।

নর্থ ক্যারোলিনার রাজধানী রেলিগের মেয়র মেরি-অ্যান বাল্ডউইন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এই ঘটনায় অন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত দুইজন আহত হয়েছেন এবং তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বন্দুক হামলাকে ‘নির্বোধ’ উল্লেখ করে এ সময় মেয়র বলেন, আমাদের অবশ্যই বন্দুক সহিংসতাকে মোকাবেলা করতে হবে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমেই বেড়েছে বন্দুক হামলা। কয়েক দিন আগেও ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি স্কুলে শিশুদের টার্গেট করে গুলি চালানো হয়। দেশটিকে অগ্নেয়াস্ত্র আইন নিয়ে দীর্ঘ বিতর্ক চললেও এখনো কার্যকরভাবে তা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না।

রয়টার্স বলছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার পর শহরের নিউস রিভার গ্রিনওয়ে অথবা এর কাছাকাছি গোলাগুলির এই ঘটনা ঘটে। এর প্রায় তিন ঘণ্টা পরে পুলিশ একজন সন্দেহভাজনকে ‘একটি বাড়ির মধ্যে আটকাতে সক্ষম হয়’। তবে তাকে এখনও হেফাজতে নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন বাল্ডউইন।

অবশ্য রেলিগ পুলিশ পরে টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় জানায়, ‘সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।’ ডব্লিউটিভিডি টেলিভিশন জানিয়েছে, সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে লম্বা বন্দুকধারী একজন শেতাঙ্গ কিশোর বলে মনে করা হচ্ছে। মেয়র বাল্ডউইন জানান, এই বন্দুক হামলার ঘটনায় একাধিক সংস্থা তদন্ত করছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় পুলিশসহ নিহত ৫

আপডেট সময় : ০২:৪৪:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনায় বন্দুক হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছে। তাদের একজন অফ-ডিউটিতে থাকা পুলিশ কর্মকর্তা। এ ছাড়া আরেক পুলিশ কর্মকর্তাসহ আহত হয়েছে কমপক্ষে দুজন। খবর রয়টার্স।

এ ঘটনায় সন্দেহভাজন এক শ্বেতাঙ্গ কিশোরকে আটক করা হয়েছে। তার সঙ্গে একটি বড় বন্দুক ছিল বলে জানা গিয়েছে। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেয়নি স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টার দিকে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় মার্কিন অঙ্গরাজ্য নর্থ ক্যারোলিনার রাজধানী রেলিগে এই ঘটনা ঘটে।

ওই হামলার পর দ্রুত ঘটনাস্থলে চলে আসে পুলিশ। তারা বাসিন্দাদের ঘরে থাকার অনুরোধ জানিয়ে পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি চালায়। এরপর অভিযুক্তকে আটক করা হয়।

নর্থ ক্যারোলিনার রাজধানী রেলিগের মেয়র মেরি-অ্যান বাল্ডউইন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এই ঘটনায় অন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত দুইজন আহত হয়েছেন এবং তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বন্দুক হামলাকে ‘নির্বোধ’ উল্লেখ করে এ সময় মেয়র বলেন, আমাদের অবশ্যই বন্দুক সহিংসতাকে মোকাবেলা করতে হবে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমেই বেড়েছে বন্দুক হামলা। কয়েক দিন আগেও ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি স্কুলে শিশুদের টার্গেট করে গুলি চালানো হয়। দেশটিকে অগ্নেয়াস্ত্র আইন নিয়ে দীর্ঘ বিতর্ক চললেও এখনো কার্যকরভাবে তা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না।

রয়টার্স বলছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার পর শহরের নিউস রিভার গ্রিনওয়ে অথবা এর কাছাকাছি গোলাগুলির এই ঘটনা ঘটে। এর প্রায় তিন ঘণ্টা পরে পুলিশ একজন সন্দেহভাজনকে ‘একটি বাড়ির মধ্যে আটকাতে সক্ষম হয়’। তবে তাকে এখনও হেফাজতে নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন বাল্ডউইন।

অবশ্য রেলিগ পুলিশ পরে টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় জানায়, ‘সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।’ ডব্লিউটিভিডি টেলিভিশন জানিয়েছে, সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে লম্বা বন্দুকধারী একজন শেতাঙ্গ কিশোর বলে মনে করা হচ্ছে। মেয়র বাল্ডউইন জানান, এই বন্দুক হামলার ঘটনায় একাধিক সংস্থা তদন্ত করছে।