বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট ১৬ বছর পর ডেনমার্ককে হারিয়ে শেষ ষোলো’তে অস্ট্রেলিয়া চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে হারিয়েও তিউনিসিয়ার কান্না রাউজানে ডাকাতির ঘটনায় র‌্যাবের হাতে আরো এক ডাকাত আটক রাউজানে স্কুল থেকে ফেরার পথে ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় যুবক কারাগারে রাউজানে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার ‘আওয়ামী লীগ গরীব দুখী মেহনতি মানুষের কল্যানে রাজনীতি করে’ -কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি মুহিব ডিমলায় বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা রিজার্ভ কমে ৩৩ বিলিয়নে নেমেছে নিউজিল্যান্ডদের কাছে সিরিজ হারল ভারত তিন নারী রেফারি, ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ কীর্তি সুরেশের বিয়ে প্রফেসর মযহারুল ইসলাম ॥ শ্রদ্ধাঞ্জলি সিটি করপোরেশনে মহামারি বিশেষজ্ঞ পদসৃষ্টির প্রস্তাব পেয়েছি : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সফরে আসছে ভারত

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারাই তদন্ত করলে কমিশন কী করবে : ইমরান

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারাই তদন্ত করলে কমিশন কী করবে : ইমরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে লংমার্চে হামলার ঘটনার নেপথ্যে প্রধনামন্ত্রী শেহবাজ শরীফসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। অন্য দুজন হলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ ও সেনা কর্মকর্তা মেজর জেনারেল মোহাম্মদ ফয়সাল।

ইমরানের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে পিটিআই’র চেয়ারম্যান অভিযোগ ভিত্তিহীন ও দায়িত্বজ্ঞানহীন। বিশেষ করে একজন জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ একেবারেই অগ্রহণযোগ্য। পাকিস্তান সেনাবাহিনী পেশাদার এবং সুশৃঙ্খল সংগঠন। আমাদের কর্মকর্তাদের ওপর ভিত্তিহীন অভিযোগ অত্যন্ত দুঃখজনক ও তীব্র নিন্দনীয়। কাউকে দায়মুক্তিসহ প্রতিষ্ঠান বা সেনাদের মানহানি করতে দেওয়া হবে না।

প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ বলেছেন, ইমরানের তোলা অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হলে তিনি রাজনীতি ছেড়ে দেবেন। ওই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করতে তিনি প্রধান বিচারপতি উমর আতা বান্দিয়ালকে ফুল কোর্ট কমিশন গঠনের অনুরোধ করেছেন।

হামলার ঘটনায় অভিযোগ উঠার পর বিষয়টি নিয়ে তেমন কোনো বিবৃতি দেননি পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ।

এদিকে, ইমরান তার অভিযোগের ব্যাপারে অটল। রোববার (৬ নভেম্বর) লাহোরের শওকত খানম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইমরান একটি সংবাদ সম্মেলন ডাকেন। সেখানে তিনি ইঙ্গিতপূর্ব প্রশ্ন করেন। ইমরান বলেন, যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারাই যদি তদন্তের নেতৃত্ব দেয় তাহলে বিচার বিভাগীয় কমিশন কী করবে?

হাসপাতাল থেকে দেওয়া ভাষণে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার প্রথম কথা হলো- বিচার বিভাগীয় কমিশন কী করবে যেখানে আমি যাদের নাম বলেছি তারাই তদন্তের প্রধান হবেন? তিনি হামলার ঘটনায় একটি স্বচ্ছ তদন্ত চান। কারণ, এখানে একটি ‘সম্পূর্ণ প্যাটার্ন’ রয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সেনা কর্মকর্তা ফয়সালের পদত্যাগ দাবি করেন তিনি।

ইমরান আরও বলেন, পাঞ্জাবের কর্তৃপক্ষ হামলার বিষয়ে মামলা নিতে অস্বীকার করছে। তাদের ভাষ্য, মামলা থেকে সেনা কর্মকর্তা ফয়সালের নাম সরিয়ে নিতে হবে। তিন দিন হয়ে গেছে পাঞ্জাব সরকার তথা জোট সরকারের কারণে আমি মামলা নথিভুক্ত করতে পারিনি। তারা বলে, প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা নেওয়া যাবে। কিন্তু ফয়সালের বিরুদ্ধে নয়!

পিটিআই চেয়ারম্যান আরও বলেন, আমার পুরোপুরি বিশ্বাস এই তিনজনই ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে হামলা ঘটিয়েছে। মামলা নথিভুক্ত করা আমার অধিকার। আমি সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক দলের নেতা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী। আমি যদি মামলায় তার (সেনা কর্মকর্তা ফয়সাল) নাম না দিতে পারি; আমার প্রশ্ন- জাতি ও সাধারণ মানুষের জন্য কেমন অধিকার আশা করা যায়?

সংবাদ সম্মেলনে আগামী মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) ওয়াজিরাবাদের একই পয়েন্ট থেকে আবারও লং-মার্চ শুরুর ঘোষণা দেন ইমরান খান। তিনি বলেন, আমি ও অন্য ১১ জন সেখানে গুলিবিদ্ধ হয়েছিলাম, যেখানে মোয়াজ্জামকে শহীদ করা হয়েছিল- সেখান থেকেই আবার আমাদের মার্চ শুরু হবে।

তিনি বলেন, আমি লাহোর থেকে মার্চের ভাষণ দেব। আমাদের লং-মার্চের গতির ওপর নির্ভর করে আগামী ১০ থেকে ১৪ দিনের মধ্যে রাওয়ালপিন্ডি পৌঁছবো।

মার্চটি রাওয়ালপিন্ডিতে পৌঁছলে তিনি নিজেও এতে যোগ দিয়ে কর্মসূচির নেতৃত্ব দেবেন।

বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) রাজধানী ইসলামাবাদ অভিমুখে লং মার্চের সপ্তম দিন ইমরান খানকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। এ ঘটনায় তিনিসহ আহত হন ৭ জন। একজনের মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলে। হামলাকারীকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। লাহোরের শওকত খানম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইমরান দুয়েকদিনের মধ্যে বাড়ি ফিরবেন বলে জানিয়েছেন তার নেতাকর্মীরা।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *