ঢাকা ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মৌলভীবাজারে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১২:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৩৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :
‘কমিউনিটি পুলিশিং এর মূলমন্ত্র শান্তি-শৃঙ্খলা সর্বত্র’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২২ পালিত হয়েছে। শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিকালে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের উদ্যোগে পৌর জনমিলন কেন্দ্র প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরেরর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। উক্ত র‌্যালিতে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া, জনপ্রতিনিধিবৃন্দ এবং জেলা পুলিশের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

পরে পৌর জনমিলন কেন্দ্রে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) সুদর্শন কুমার রায়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলার কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি এডভোকেট শান্তিপদ ঘোষ। অত্র জেলায় কমিউনিটি পুলিশিং এর ইতিহাস, গুরুত্ব এবং আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ ও জনগণের সম্পর্ক নিয়ে তথ্যপূর্ণ আলোচনা করা হয়।

এরপর উন্মুক্ত আলোচনায় বিভিন্ন পেশার প্রতিনিধিদের পক্ষে শিক্ষক, ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য, সাংবাদিক, অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা, ডাক্তারগণ বক্তব্য রাখেন। তারা তাদের বক্তব্যে কমিউনিটি পুলিশিং নিয়ে তাদের অভিজ্ঞতা এবং চাওয়া-পাওয়া তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ কমিউনিটি পুলিশিং অফিসার নির্বাচিত হন বড়লেখা থানার এসআই মোঃ হাবিবুর রহমান পিপিএম এবং শ্রেষ্ঠ কমিউনিটি পুলিশিং সদস্য নির্বাচিত হন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল হান্নান। অতিথিগণ তাদের হাতে সম্মাননা স্বারক এবং সনদপত্র তুলে দেন।

সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া কমিউনিটি পুলিশিং প্রসঙ্গে বলেন, ‘বাংলাদেশে পুলিশের পাশাপাশি সবাইকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে হবে। আমাদের সবাইকে একেকজন যোদ্ধার মত হতে হবে। জনগণকে পুলিশের সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করতে হবে। পুলিশ জনগণের সেবায় সবসময় আছে, থাকবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, ‘জনসম্পৃক্ততাই কমিউনিটি পুলিশিং এর মূল কথা। আমাদের সফলতা জনগণ এবং পুলিশের সমন্বয়েই সম্ভব। মাদক, মানব পাচার, জঙ্গিবাদসহ সকল অনাচার রোধে জনগণ এবং পুলিশ এক হয়ে কাজ করলেই শান্তি আসবে।’

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) হাসান মোহাম্মদ নাসের রিকাবদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহসিন, জেলা বিশেষ শাখার ডিআইও-১ আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়াছিনুল হক, রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায়, জেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, সাংবাদিকবৃন্দ এবং জেলার বিভিন্ন ইউনিটের পুলিশ সদস্যগণ।
এছাড়াও জেলার সব থানায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে ২০২২ উপলক্ষ্যে নিজ নিজ থানা এলাকায় র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

মৌলভীবাজারে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালি

আপডেট সময় : ০৯:১২:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :
‘কমিউনিটি পুলিশিং এর মূলমন্ত্র শান্তি-শৃঙ্খলা সর্বত্র’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২২ পালিত হয়েছে। শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিকালে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের উদ্যোগে পৌর জনমিলন কেন্দ্র প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরেরর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। উক্ত র‌্যালিতে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া, জনপ্রতিনিধিবৃন্দ এবং জেলা পুলিশের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

পরে পৌর জনমিলন কেন্দ্রে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) সুদর্শন কুমার রায়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলার কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি এডভোকেট শান্তিপদ ঘোষ। অত্র জেলায় কমিউনিটি পুলিশিং এর ইতিহাস, গুরুত্ব এবং আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ ও জনগণের সম্পর্ক নিয়ে তথ্যপূর্ণ আলোচনা করা হয়।

এরপর উন্মুক্ত আলোচনায় বিভিন্ন পেশার প্রতিনিধিদের পক্ষে শিক্ষক, ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য, সাংবাদিক, অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা, ডাক্তারগণ বক্তব্য রাখেন। তারা তাদের বক্তব্যে কমিউনিটি পুলিশিং নিয়ে তাদের অভিজ্ঞতা এবং চাওয়া-পাওয়া তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ কমিউনিটি পুলিশিং অফিসার নির্বাচিত হন বড়লেখা থানার এসআই মোঃ হাবিবুর রহমান পিপিএম এবং শ্রেষ্ঠ কমিউনিটি পুলিশিং সদস্য নির্বাচিত হন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল হান্নান। অতিথিগণ তাদের হাতে সম্মাননা স্বারক এবং সনদপত্র তুলে দেন।

সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া কমিউনিটি পুলিশিং প্রসঙ্গে বলেন, ‘বাংলাদেশে পুলিশের পাশাপাশি সবাইকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে হবে। আমাদের সবাইকে একেকজন যোদ্ধার মত হতে হবে। জনগণকে পুলিশের সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করতে হবে। পুলিশ জনগণের সেবায় সবসময় আছে, থাকবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, ‘জনসম্পৃক্ততাই কমিউনিটি পুলিশিং এর মূল কথা। আমাদের সফলতা জনগণ এবং পুলিশের সমন্বয়েই সম্ভব। মাদক, মানব পাচার, জঙ্গিবাদসহ সকল অনাচার রোধে জনগণ এবং পুলিশ এক হয়ে কাজ করলেই শান্তি আসবে।’

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) হাসান মোহাম্মদ নাসের রিকাবদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহসিন, জেলা বিশেষ শাখার ডিআইও-১ আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়াছিনুল হক, রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায়, জেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, সাংবাদিকবৃন্দ এবং জেলার বিভিন্ন ইউনিটের পুলিশ সদস্যগণ।
এছাড়াও জেলার সব থানায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে ২০২২ উপলক্ষ্যে নিজ নিজ থানা এলাকায় র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।