ঢাকা ১০:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মুসলিমদের বের করে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০২:০৯:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৪৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাংলাদেশসহ তিন প্রতিবেশি দেশ থেকে অনুপ্রবেশ করে বসবাসরত মুসলিমদের বের করে দেওয়ার প্রক্রিয়া আগামী মাস থেকে শুরু করতে যাচ্ছে ভারত। এতে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে অবৈধভাবে থাকা মুসলিম পরিবারগুলোর মধ্যে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ কার্যকর হলে ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে ভারতে অনুপ্রবেশ করা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান, জৈনসহ অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। আর বের করে দেওয়া হবে এই মানদণ্ডের বাইরে থাকা নিবন্ধনের সুযোগ বঞ্চিতদের। এতে নিশ্চিত হুমকিতে থাকা বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মুসলিমদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে আতঙ্ক।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, আইনের ধারাগুলো তৈরি হয়ে গেছে। নাম নথিভুক্ত করার অনলাইন পোর্টালও প্রস্তুত। অনলাইন নিবন্ধনে জানতে চাওয়া হবে, আবেদনকারী কবে ভারতে প্রবেশ করেছেন।

এ মাসের শুরুতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন, লোকসভা নির্বাচনের অনেক আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন চালু হবে। ভারতের নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী লোকসভা নির্বাচন হবে এ বছরের এপ্রিল থেকে মে মাসের মধ্যে। ২০১৯ সালে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় এসে বিতর্কিত এই আইনটি পাস করে নরেন্দ্র মোদী সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

মুসলিমদের বের করে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করছে ভারত

আপডেট সময় : ০২:০৯:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাংলাদেশসহ তিন প্রতিবেশি দেশ থেকে অনুপ্রবেশ করে বসবাসরত মুসলিমদের বের করে দেওয়ার প্রক্রিয়া আগামী মাস থেকে শুরু করতে যাচ্ছে ভারত। এতে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে অবৈধভাবে থাকা মুসলিম পরিবারগুলোর মধ্যে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ কার্যকর হলে ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে ভারতে অনুপ্রবেশ করা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান, জৈনসহ অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। আর বের করে দেওয়া হবে এই মানদণ্ডের বাইরে থাকা নিবন্ধনের সুযোগ বঞ্চিতদের। এতে নিশ্চিত হুমকিতে থাকা বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মুসলিমদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে আতঙ্ক।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, আইনের ধারাগুলো তৈরি হয়ে গেছে। নাম নথিভুক্ত করার অনলাইন পোর্টালও প্রস্তুত। অনলাইন নিবন্ধনে জানতে চাওয়া হবে, আবেদনকারী কবে ভারতে প্রবেশ করেছেন।

এ মাসের শুরুতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন, লোকসভা নির্বাচনের অনেক আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন চালু হবে। ভারতের নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী লোকসভা নির্বাচন হবে এ বছরের এপ্রিল থেকে মে মাসের মধ্যে। ২০১৯ সালে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় এসে বিতর্কিত এই আইনটি পাস করে নরেন্দ্র মোদী সরকার।