ঢাকা ০৬:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহাল চেয়ে কাজীপুরে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

কাজীপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৬:১৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৬০৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
সর্বক্ষেত্রে কোটা পুনর্বহালের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমাণ্ড। মঙ্গলবার সকালে কাজীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাজী মোহাম্মদ অনিক ইসলামের নিকট স্মারকলিপিটি জমাদেন সংসদের নেতৃবৃন্দ। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমাণ্ডের সভাপতি মুঞ্জুরুল ইসলাম শিবন চাকলাদার ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া খান মানিক স্বাক্ষরিত এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কাজীপুর উপজেলা শাখার সাবেক কমাণ্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউনুস উদ্দীন, সাবেক ডেপুটি কমাণ্ডার আব্দুস সালাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী, কেন্দ্রীয় সন্তান কমাণ্ডের সদস্য রাসেল রানা, কাজীপুর উপজেলা কমাণ্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক সুমন, ক্রীড়া সম্পাদক সেলিম রেজা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রিক্তা খাতুন, সদস্য সালমা খাতুন, লিপি খাতুন, নূর আলম প্রমুখ।
স্মারকলিপি সূত্রে জানা গেছে, স্বাধীনতার পূর্বে কেন্দ্রীয় সরকারের পদে আঞ্চলিক ও মেধা কোটার অনুপাত ছিল ৮০ঃ২০। বাংলাদেশের সংবিধান পরিবর্তনের পূর্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তা অপরিবর্তিত রেখেছিলেন। বাংলাদেশে কোন প্রদেশ না থাকায় পক্ষপাতহীন প্রতিনিধিত্বের লক্ষ্যে ৮০% আঞ্চলিক বা জেলা কোটার মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৩০% ও মহিলা কোটা ১০% ছিল। ১৯৭২ সালের ডিসেম্বরে অনুমোদিত সংবিধানেও তা স্থান পায়।
তবে ৭৫ ‘র পট পরিবর্তনের পর থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ২২ বছর মুক্তিযোদ্ধাদের কোন কোটা দেয়া হয়নি। শুধুমাত্র ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত মাত্র ৩.০৯% কোটা দেয়া হয়েছিল। ১৯৭৬ ও ১৯৮৫ সালে যথাক্রমে ২০% ও ০৫% জেলা কোটা কমানো সংবিধান পরিপন্থী। তদ্রুপ মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগে ১ম ও ২য় শ্রেণির চাকরিতে কোটা প্রয়োগ না করাও সংবিধান পরিপন্থী। ১৯৭২ এ বঙ্গবন্ধু সরকার ঘোষিত ৮০% জেলা কোটা বাস্তবায়ন করার জোর দাবি জানান মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমাণ্ডরা।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহাল চেয়ে কাজীপুরে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

আপডেট সময় : ০৬:১৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর ২০২৩
সর্বক্ষেত্রে কোটা পুনর্বহালের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমাণ্ড। মঙ্গলবার সকালে কাজীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাজী মোহাম্মদ অনিক ইসলামের নিকট স্মারকলিপিটি জমাদেন সংসদের নেতৃবৃন্দ। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমাণ্ডের সভাপতি মুঞ্জুরুল ইসলাম শিবন চাকলাদার ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া খান মানিক স্বাক্ষরিত এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কাজীপুর উপজেলা শাখার সাবেক কমাণ্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউনুস উদ্দীন, সাবেক ডেপুটি কমাণ্ডার আব্দুস সালাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী, কেন্দ্রীয় সন্তান কমাণ্ডের সদস্য রাসেল রানা, কাজীপুর উপজেলা কমাণ্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক সুমন, ক্রীড়া সম্পাদক সেলিম রেজা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রিক্তা খাতুন, সদস্য সালমা খাতুন, লিপি খাতুন, নূর আলম প্রমুখ।
স্মারকলিপি সূত্রে জানা গেছে, স্বাধীনতার পূর্বে কেন্দ্রীয় সরকারের পদে আঞ্চলিক ও মেধা কোটার অনুপাত ছিল ৮০ঃ২০। বাংলাদেশের সংবিধান পরিবর্তনের পূর্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তা অপরিবর্তিত রেখেছিলেন। বাংলাদেশে কোন প্রদেশ না থাকায় পক্ষপাতহীন প্রতিনিধিত্বের লক্ষ্যে ৮০% আঞ্চলিক বা জেলা কোটার মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৩০% ও মহিলা কোটা ১০% ছিল। ১৯৭২ সালের ডিসেম্বরে অনুমোদিত সংবিধানেও তা স্থান পায়।
তবে ৭৫ ‘র পট পরিবর্তনের পর থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ২২ বছর মুক্তিযোদ্ধাদের কোন কোটা দেয়া হয়নি। শুধুমাত্র ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত মাত্র ৩.০৯% কোটা দেয়া হয়েছিল। ১৯৭৬ ও ১৯৮৫ সালে যথাক্রমে ২০% ও ০৫% জেলা কোটা কমানো সংবিধান পরিপন্থী। তদ্রুপ মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগে ১ম ও ২য় শ্রেণির চাকরিতে কোটা প্রয়োগ না করাও সংবিধান পরিপন্থী। ১৯৭২ এ বঙ্গবন্ধু সরকার ঘোষিত ৮০% জেলা কোটা বাস্তবায়ন করার জোর দাবি জানান মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমাণ্ডরা।
বাখ//আর