ঢাকা ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মারিউপোলে বিশাল সেনা ঘাঁটি গড়ছে রাশিয়া

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৪০:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪৫০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
ইউক্রেনের দখলে থাকা বন্দর নগরী মারিউপোলে একটি বড় সামরিক ঘাঁটি তৈরি করে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী এই অঞ্চলে তাদের উপস্থিতি সুসংহত করছে। জিওস্পেশিয়াল কোম্পানি ম্যাক্সারের স্যাটেলাইট ছবিতে সেটাই উঠে এসেছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিত্তিটি ইংরেজি অক্ষর ‘ইউ’ এর আকারে। এটি শহরের কেন্দ্রের কাছাকাছি নির্মিত হচ্ছে। ঘাঁটির স্থাপনার ছাদে লাল, সাদা এবং নীল তারা দিয়ে আঁকা হয়েছে, যা রাশিয়ান সেনাবাহিনীর প্রতীক। এতে আরও লেখা আছে ‘মারিওপোলের জনগণের প্রতি রাশিয়ান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে’।

মস্কোর অনুগত বাহিনী এই বছরের শুরুতে শহরটি অবরোধ করে। নগর দখলের লড়াইয়ে ব্যাপক গোলাবর্ষণ করা হয়। এতে স্থানীয় অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। লড়াই চলাকালে মারিউপোলের ২৫ হাজার বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে গত মাসে দাবি করেন ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা।

জাতিসংঘ মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৩৪৮ বলে জানিয়েছে। তবে প্রকৃত সংখ্যা আরও হাজার খানেক বেশি হতে পারে বলেও উল্লেখ করা হয়। শহরের ক্ষতিগ্রস্ত প্রেক্ষাগৃহের চারপাশে অস্থায়ী দেয়াল বসানো হয়েছে। গত ১৮ মার্চ এখানে এক ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কয়েকশ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে ইউক্রেনের অভিযোগ।

মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এই হামলাকে রাশিয়ার ‘স্পষ্ট যুদ্ধাপরাধ’ বলে অভিহিত করেছে। ইউক্রেনের কর্মকর্তাদের অনুমান, শহরটির ৯০ শতাংশ অবকাঠামো রাশিয়ান গোলাবর্ষণে ধ্বংস হয়ে গেছে।

স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে দেখা যায়, রুশ বাহিনী মেরামত না করে এ ধরনের ভবন ভাঙতে শুরু করেছে। অন্য কয়েকটি ছবিতে মারিউপোল শহরের মেট্রো স্টেশনে বিপুল পরিমাণ রসদের স্তূপ দেখা যায়। রাশিয়ান কর্তৃপক্ষ এখান থেকে নগরবাসীকে খাদ্য ও অন্যান্য নিত্য পণ্য সরবরাহ করছে।

ছবিতে রসদ নিতে আসা বেসামরিক নাগরিকদের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতেও দেখা যায়। দক্ষিণ ও পূর্ব দিকের ইউক্রেনীয় পাল্টা আক্রমণ অভিযানে শহরটিতে রুশ বাহিনীর দখল হুমকির মুখে পড়েছিল। এই প্রেক্ষাপটে রাশিয়া ধীরে ধীরে মারিউপোলে প্রতিরক্ষামূলক অবকাঠামো তৈরি করছে। বেশ কিছু দিন ধরেই বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে এ কথা বলা হচ্ছিল। এরপর এসব স্যাটেলাইট ছবি প্রকাশ করে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

গত মাসে ইউক্রেনের একজন সামরিক কর্মকর্তা জানান, রাশিয়া মারিউপোলের দুইটি কারখানায় ট্যাঙ্ক ও সাঁজোয়া যান চলাচলে বাধা দিতে ব্যবহৃত ‘ড্রাগন টিথ’ নামে কংক্রিট ব্লক তৈরি করছে। মারিউপোল রাশিয়ার জন্য কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ। রাশিয়ার বাহিনী এই বন্দর শহরের মাধ্যমে অধিকৃত ক্রিমিয়া উপদ্বীপের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মারিউপোলে বিশাল সেনা ঘাঁটি গড়ছে রাশিয়া

আপডেট সময় : ০২:৪০:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
ইউক্রেনের দখলে থাকা বন্দর নগরী মারিউপোলে একটি বড় সামরিক ঘাঁটি তৈরি করে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী এই অঞ্চলে তাদের উপস্থিতি সুসংহত করছে। জিওস্পেশিয়াল কোম্পানি ম্যাক্সারের স্যাটেলাইট ছবিতে সেটাই উঠে এসেছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিত্তিটি ইংরেজি অক্ষর ‘ইউ’ এর আকারে। এটি শহরের কেন্দ্রের কাছাকাছি নির্মিত হচ্ছে। ঘাঁটির স্থাপনার ছাদে লাল, সাদা এবং নীল তারা দিয়ে আঁকা হয়েছে, যা রাশিয়ান সেনাবাহিনীর প্রতীক। এতে আরও লেখা আছে ‘মারিওপোলের জনগণের প্রতি রাশিয়ান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে’।

মস্কোর অনুগত বাহিনী এই বছরের শুরুতে শহরটি অবরোধ করে। নগর দখলের লড়াইয়ে ব্যাপক গোলাবর্ষণ করা হয়। এতে স্থানীয় অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। লড়াই চলাকালে মারিউপোলের ২৫ হাজার বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে গত মাসে দাবি করেন ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা।

জাতিসংঘ মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৩৪৮ বলে জানিয়েছে। তবে প্রকৃত সংখ্যা আরও হাজার খানেক বেশি হতে পারে বলেও উল্লেখ করা হয়। শহরের ক্ষতিগ্রস্ত প্রেক্ষাগৃহের চারপাশে অস্থায়ী দেয়াল বসানো হয়েছে। গত ১৮ মার্চ এখানে এক ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কয়েকশ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে ইউক্রেনের অভিযোগ।

মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এই হামলাকে রাশিয়ার ‘স্পষ্ট যুদ্ধাপরাধ’ বলে অভিহিত করেছে। ইউক্রেনের কর্মকর্তাদের অনুমান, শহরটির ৯০ শতাংশ অবকাঠামো রাশিয়ান গোলাবর্ষণে ধ্বংস হয়ে গেছে।

স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে দেখা যায়, রুশ বাহিনী মেরামত না করে এ ধরনের ভবন ভাঙতে শুরু করেছে। অন্য কয়েকটি ছবিতে মারিউপোল শহরের মেট্রো স্টেশনে বিপুল পরিমাণ রসদের স্তূপ দেখা যায়। রাশিয়ান কর্তৃপক্ষ এখান থেকে নগরবাসীকে খাদ্য ও অন্যান্য নিত্য পণ্য সরবরাহ করছে।

ছবিতে রসদ নিতে আসা বেসামরিক নাগরিকদের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতেও দেখা যায়। দক্ষিণ ও পূর্ব দিকের ইউক্রেনীয় পাল্টা আক্রমণ অভিযানে শহরটিতে রুশ বাহিনীর দখল হুমকির মুখে পড়েছিল। এই প্রেক্ষাপটে রাশিয়া ধীরে ধীরে মারিউপোলে প্রতিরক্ষামূলক অবকাঠামো তৈরি করছে। বেশ কিছু দিন ধরেই বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে এ কথা বলা হচ্ছিল। এরপর এসব স্যাটেলাইট ছবি প্রকাশ করে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

গত মাসে ইউক্রেনের একজন সামরিক কর্মকর্তা জানান, রাশিয়া মারিউপোলের দুইটি কারখানায় ট্যাঙ্ক ও সাঁজোয়া যান চলাচলে বাধা দিতে ব্যবহৃত ‘ড্রাগন টিথ’ নামে কংক্রিট ব্লক তৈরি করছে। মারিউপোল রাশিয়ার জন্য কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ। রাশিয়ার বাহিনী এই বন্দর শহরের মাধ্যমে অধিকৃত ক্রিমিয়া উপদ্বীপের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছে।