ঢাকা ০১:২০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মানুষ দিশেহারা, ক্ষমতার মোহে অন্ধ মন্ত্রীদের তা জানা নেই: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০২:৪৪:১০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৬৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধিতে মধ্য ও নিম্ন আয়ের মানুষ যে দিশেহারা ক্ষমতার মোহে অন্ধ মন্ত্রীদের তা জানা নেই। স্বর্গে বাস করেন বলেই মন্ত্রীরা বিদ্যুতের প্রকৃত চিত্র জানতে পারেন না।

রোববার (৩ মার্চ) নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ প্রভুদের কাছে নতজানু। সার্বভৌমত্ব বিকিয়ে দেয়ার চক্রান্ত করছে। প্রভুদের মোসাহেবি করতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও নাগরিকদের অধিকার হরণ করেছে।

তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘জনগণ দ্বারা বারবার প্রত্যাখাত হয়ে বিএনপি নেতারা তাদের বিদেশি প্রভুদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে’। ওবায়দুল কাদের ডিমেনশিয়াতে নয়, তিনি অ্যামনেসিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ রোগে ভুগছেন।

তলে তলে কোনো বিপদ আঁচ করছে বলে মন্ত্রীরা প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছেন অভিযোগ করে রিজভী বলেন- মন্ত্রীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। ডামি সরকারের অনর্গল মিথ্যা বক্তব্য জনগণ গ্রাহ্য করছে না। ক্ষমতাসীনরা জনগণের সঙ্গে নির্দয় আচরন করছে।

এবারও ডামি নির্বাচনের আগে আওয়ামী প্রভুদের অসৎ তৎপরতা আবারও প্রমাণিত হয়েছে বলে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং নাগরিকদের ভোটাধিকারকে থোড়াই কেয়ার করে। আওয়ামী লীগ তাদের প্রভুর দ্বারে দ্বারে নয়, বরং পদতলে বসে মোসাহেবি করেছে।

ঢাকাসহ মফস্বলে ভয়াবহ লোডশেডিং হচ্ছে বলে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধিতে মানুষ প্রান্তিক পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। অনেক ক্ষেত্রে বাসা ভাড়ার চেয়েও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হয় অনেক বেশি। ওবায়দুল কাদেররা ক্ষমতার স্বর্গে বাস করেন বলে বিদ্যুতের প্রকৃত চিত্র জানতে পারেন না। বিদ্যুতের নিচের দিকে ৫ শতাংশ বৃদ্ধি আর উপরের দিকে ৮ শতাংশ বৃদ্ধি কি চরম বৃদ্ধি নয়? অবৈধ শাসকগোষ্ঠীর এতে কোনো যায় আসে না।

রিজভী আরো বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন বিএনপি নাকি ইসরাইলের দোসর এবং গণহত্যার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। বরাবরই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথাবার্তা আদিযুগের গল্পের মতো। হাছান মাহমুদ মিথ্যা কথা বলেন। সারা দেশের মানুষ জানে, বিরোধী দল নিধনের জন্য ইসরাইল থেকে স্পাইওয়্যার কেনা হয়েছে, যা দিয়ে মোবাইল ফোনে আড়িপাতা সম্ভব। আওয়ামী লীগের ক্ষমতালাভের আগে পরে এরা কখনোই ন্যায়নীতির নির্দেশ গ্রাহ্য করেনি। এরা মুখে যা বলে, করে তার বিপরীত।

নিউজটি শেয়ার করুন

মানুষ দিশেহারা, ক্ষমতার মোহে অন্ধ মন্ত্রীদের তা জানা নেই: রিজভী

আপডেট সময় : ০২:৪৪:১০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধিতে মধ্য ও নিম্ন আয়ের মানুষ যে দিশেহারা ক্ষমতার মোহে অন্ধ মন্ত্রীদের তা জানা নেই। স্বর্গে বাস করেন বলেই মন্ত্রীরা বিদ্যুতের প্রকৃত চিত্র জানতে পারেন না।

রোববার (৩ মার্চ) নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ প্রভুদের কাছে নতজানু। সার্বভৌমত্ব বিকিয়ে দেয়ার চক্রান্ত করছে। প্রভুদের মোসাহেবি করতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও নাগরিকদের অধিকার হরণ করেছে।

তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘জনগণ দ্বারা বারবার প্রত্যাখাত হয়ে বিএনপি নেতারা তাদের বিদেশি প্রভুদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে’। ওবায়দুল কাদের ডিমেনশিয়াতে নয়, তিনি অ্যামনেসিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ রোগে ভুগছেন।

তলে তলে কোনো বিপদ আঁচ করছে বলে মন্ত্রীরা প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছেন অভিযোগ করে রিজভী বলেন- মন্ত্রীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। ডামি সরকারের অনর্গল মিথ্যা বক্তব্য জনগণ গ্রাহ্য করছে না। ক্ষমতাসীনরা জনগণের সঙ্গে নির্দয় আচরন করছে।

এবারও ডামি নির্বাচনের আগে আওয়ামী প্রভুদের অসৎ তৎপরতা আবারও প্রমাণিত হয়েছে বলে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং নাগরিকদের ভোটাধিকারকে থোড়াই কেয়ার করে। আওয়ামী লীগ তাদের প্রভুর দ্বারে দ্বারে নয়, বরং পদতলে বসে মোসাহেবি করেছে।

ঢাকাসহ মফস্বলে ভয়াবহ লোডশেডিং হচ্ছে বলে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধিতে মানুষ প্রান্তিক পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। অনেক ক্ষেত্রে বাসা ভাড়ার চেয়েও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হয় অনেক বেশি। ওবায়দুল কাদেররা ক্ষমতার স্বর্গে বাস করেন বলে বিদ্যুতের প্রকৃত চিত্র জানতে পারেন না। বিদ্যুতের নিচের দিকে ৫ শতাংশ বৃদ্ধি আর উপরের দিকে ৮ শতাংশ বৃদ্ধি কি চরম বৃদ্ধি নয়? অবৈধ শাসকগোষ্ঠীর এতে কোনো যায় আসে না।

রিজভী আরো বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন বিএনপি নাকি ইসরাইলের দোসর এবং গণহত্যার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। বরাবরই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথাবার্তা আদিযুগের গল্পের মতো। হাছান মাহমুদ মিথ্যা কথা বলেন। সারা দেশের মানুষ জানে, বিরোধী দল নিধনের জন্য ইসরাইল থেকে স্পাইওয়্যার কেনা হয়েছে, যা দিয়ে মোবাইল ফোনে আড়িপাতা সম্ভব। আওয়ামী লীগের ক্ষমতালাভের আগে পরে এরা কখনোই ন্যায়নীতির নির্দেশ গ্রাহ্য করেনি। এরা মুখে যা বলে, করে তার বিপরীত।