ঢাকা ১০:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মন্ত্রী-এমপিদের সন্তানদের ভোট থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:১৪:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৭৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী-সংসদ সদস্যদের (এমপি) সন্তান, পরিবারের সদস্য এবং নিকটাত্মীয়রা ভোট করতে পারছে না। দলের এমন সিদ্ধান্ত উপজেলা নির্বাচনের চার পর্বের জন্যই প্রযোজ্য বলে আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্র জানিয়েছে।

প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নিজের ছেলেকে ভোট না দিলে উন্নয়ন বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দেন নোয়াখালী-৪ (সদর-সূবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) সূবর্ণচর উপজেলার একটি পথসভায় স্থানীয় ভোটাদের উদ্দেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে এমপি একরাম ওই ঘোষণা দেন।

এদিকে নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ভোট করবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ও নাটোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য জুনাইদ আহমেদ পলকের শ্যালক লুৎফুল হাবিব। তার বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ প্রার্থীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, এসব খবরসহ নানা বিভেদের তথ্য দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে এলে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ডেকে উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী–সংসদ সদস্যদের সন্তান, পরিবারের সদস্য ও নিকটাত্মীয়দের ভোট থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দেন।

দলের প্রধানের নির্দেশনা পেয়ে ওবায়দুল কাদের বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করেছেন বলে জানা গেছে। বৈঠকে সারাদেশে মন্ত্রী-সংসদ সদস্যদের মধ্যে যাদের স্বজন ও পরিবারের সদস্য নির্বাচন করছেন, তাদের তালিকা তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি মাদারীপুর সদরের সংসদ সদস্য ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খান এবং নোয়াখালীর একরামুল করিম চৌধুরীকে ফোন করে দলীয় সিদ্ধান্তের কথা জানান জানানো হয়।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক, দপ্তর সম্পাদক ও উপদপ্তর সম্পাদক।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্ত্রী-এমপিদের সন্তানদের ভোট থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশনা

আপডেট সময় : ০৪:১৪:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী-সংসদ সদস্যদের (এমপি) সন্তান, পরিবারের সদস্য এবং নিকটাত্মীয়রা ভোট করতে পারছে না। দলের এমন সিদ্ধান্ত উপজেলা নির্বাচনের চার পর্বের জন্যই প্রযোজ্য বলে আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্র জানিয়েছে।

প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নিজের ছেলেকে ভোট না দিলে উন্নয়ন বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দেন নোয়াখালী-৪ (সদর-সূবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) সূবর্ণচর উপজেলার একটি পথসভায় স্থানীয় ভোটাদের উদ্দেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে এমপি একরাম ওই ঘোষণা দেন।

এদিকে নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ভোট করবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ও নাটোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য জুনাইদ আহমেদ পলকের শ্যালক লুৎফুল হাবিব। তার বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ প্রার্থীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, এসব খবরসহ নানা বিভেদের তথ্য দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে এলে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ডেকে উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী–সংসদ সদস্যদের সন্তান, পরিবারের সদস্য ও নিকটাত্মীয়দের ভোট থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দেন।

দলের প্রধানের নির্দেশনা পেয়ে ওবায়দুল কাদের বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করেছেন বলে জানা গেছে। বৈঠকে সারাদেশে মন্ত্রী-সংসদ সদস্যদের মধ্যে যাদের স্বজন ও পরিবারের সদস্য নির্বাচন করছেন, তাদের তালিকা তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি মাদারীপুর সদরের সংসদ সদস্য ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খান এবং নোয়াখালীর একরামুল করিম চৌধুরীকে ফোন করে দলীয় সিদ্ধান্তের কথা জানান জানানো হয়।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক, দপ্তর সম্পাদক ও উপদপ্তর সম্পাদক।