ঢাকা ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মধপ্রাচ্যের দেশগুলো যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে- জাতিসংঘ মহাসচিব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:৫৭:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৪০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মধপ্রাচ্যের দেশগুলো যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে, তাদের ফিরিয়ে আনতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ইরান ইসরাইলে হামলার পর এ বিষয়ে জরুরি বৈঠকের অনুরোধ করে ইসরাইল।

স্থানীয় সময় রোববার (১৪ই এপ্রিল) বিকেলে ইরানের হামলা নিয়ে সভা শুরু হয়। এতে নিজেদের দেশের অবস্থান উপস্থাপন করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরান ও ইসরাইলের রাষ্ট্রদূতরা।

এসময় সভা শুরুর আগে নিজ বক্তব্যে অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের শক্তিশালী সামরিক পক্ষগুলো সংঘাতে জড়িয়ে যেতে পারে এমন যে কোনো পদক্ষেপই উপেক্ষা করা জরুরি। পাশাপাশি সবাইকে এর পরিণতির কথা ভেবে যুদ্ধের প্রান্ত থেকে ফিরে আসার আহ্বান জানান।

তিনি এসময় গাজার নিরাপরাধ বেসামরিক নাগরিগদের ভোগান্তি ও যুদ্ধ বিরতির প্রয়োজন উল্লেখ করে জানান, গাজাবাসী ক্ষতি সম্মুখীন হয়ে চরম মূল্য দিচ্ছে। এসব সংঘাত যাতে আবারও ছড়িয়ে না যায়, তা নিশ্চিত করা সবার দায়িত্ব, সবাইকে সক্রিয়ভাবে এই দায়িত্বপালনের সঙ্গে যুক্ত হতে হবে। তিনি ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে সংঘাত বন্ধ ও লোহিত সাগরে নৌ-যান চলাচল পুনরায় স্বাভাবিক করা নিয়েও কথা বলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

মধপ্রাচ্যের দেশগুলো যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে- জাতিসংঘ মহাসচিব

আপডেট সময় : ০১:৫৭:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

মধপ্রাচ্যের দেশগুলো যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে, তাদের ফিরিয়ে আনতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ইরান ইসরাইলে হামলার পর এ বিষয়ে জরুরি বৈঠকের অনুরোধ করে ইসরাইল।

স্থানীয় সময় রোববার (১৪ই এপ্রিল) বিকেলে ইরানের হামলা নিয়ে সভা শুরু হয়। এতে নিজেদের দেশের অবস্থান উপস্থাপন করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরান ও ইসরাইলের রাষ্ট্রদূতরা।

এসময় সভা শুরুর আগে নিজ বক্তব্যে অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের শক্তিশালী সামরিক পক্ষগুলো সংঘাতে জড়িয়ে যেতে পারে এমন যে কোনো পদক্ষেপই উপেক্ষা করা জরুরি। পাশাপাশি সবাইকে এর পরিণতির কথা ভেবে যুদ্ধের প্রান্ত থেকে ফিরে আসার আহ্বান জানান।

তিনি এসময় গাজার নিরাপরাধ বেসামরিক নাগরিগদের ভোগান্তি ও যুদ্ধ বিরতির প্রয়োজন উল্লেখ করে জানান, গাজাবাসী ক্ষতি সম্মুখীন হয়ে চরম মূল্য দিচ্ছে। এসব সংঘাত যাতে আবারও ছড়িয়ে না যায়, তা নিশ্চিত করা সবার দায়িত্ব, সবাইকে সক্রিয়ভাবে এই দায়িত্বপালনের সঙ্গে যুক্ত হতে হবে। তিনি ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে সংঘাত বন্ধ ও লোহিত সাগরে নৌ-যান চলাচল পুনরায় স্বাভাবিক করা নিয়েও কথা বলেন।