ঢাকা ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মণিরামপুরে আবারো বসতবাড়িতে আগুন 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৩০:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩
  • / ৪৫১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মণিরামপুর  (যশোর) প্রতিনিধি :

মঙ্গলবার রাতে মণিরামপুরে কাশিপুর গ্রামের ভ্যানচালক শরিফুল ইসলামের বসতবাড়ি আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। গোয়াল ঘরে দেয়া সাজালের আগুন থেকে পুরো বসতবাড়িটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। সেই সাথে দু’টি ছাগলও পুড়ে মারা যায়।

ক্ষতিগ্রস্থ শরিফুল ইসলাম গতকাল কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, ৩ সন্তানসহ পাঁচজনের পরিবার ভ্যান চালিয়ে জীবনযপন করছিলাম। পৈত্রিকসূত্রে পাওয়া মাত্র দু’শতক জমিই তার অবলম্বন। এই দু’শতক জমির উপর ঘর বেঁধে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলাম। মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাতে স্ত্রী গোয়াল ঘরের মশা তাড়াতে সাজালে আগুন দেয়। কোন এক সময় অজান্তেই দাউ দাউ করে আগুনে পুড়ে ছাই হয় তার বসতঘর।

মণিরামপুর মহিলা আলীম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মহসিন আলী জানান, শরিফুল ইসলাম তার প্রতিবেশী। বর্তমান যে অবস্থা তার এই মুহুর্তে কোথায় বসবাস করবেন সে অবস্থাও তার নেই। দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির এই বাজারে ভ্যান চালিয়ে না সংসার চালাবে না ওই ভিটেতেই আবার বসতঘর নির্মাণ করবে, এসব নিয়ে চরম হতাশা ও দুশ্চিন্তাগ্রস্থ পরিবারটি।

সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম জিন্নাহ জানান, খবরটা শুনেছি, যদি কোন সুযোগ-সুবিধা হয়, তাকে সহযোগিতার চেষ্টা করব।

উল্লেখ্য, দু’দিন পূর্বে উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের আশ্রয়ণ প্রকল্পের দশটি বাড়ি আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়।

বা/খ : এসআর।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

মণিরামপুরে আবারো বসতবাড়িতে আগুন 

আপডেট সময় : ০৯:৩০:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩

মণিরামপুর  (যশোর) প্রতিনিধি :

মঙ্গলবার রাতে মণিরামপুরে কাশিপুর গ্রামের ভ্যানচালক শরিফুল ইসলামের বসতবাড়ি আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। গোয়াল ঘরে দেয়া সাজালের আগুন থেকে পুরো বসতবাড়িটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। সেই সাথে দু’টি ছাগলও পুড়ে মারা যায়।

ক্ষতিগ্রস্থ শরিফুল ইসলাম গতকাল কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, ৩ সন্তানসহ পাঁচজনের পরিবার ভ্যান চালিয়ে জীবনযপন করছিলাম। পৈত্রিকসূত্রে পাওয়া মাত্র দু’শতক জমিই তার অবলম্বন। এই দু’শতক জমির উপর ঘর বেঁধে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলাম। মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাতে স্ত্রী গোয়াল ঘরের মশা তাড়াতে সাজালে আগুন দেয়। কোন এক সময় অজান্তেই দাউ দাউ করে আগুনে পুড়ে ছাই হয় তার বসতঘর।

মণিরামপুর মহিলা আলীম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মহসিন আলী জানান, শরিফুল ইসলাম তার প্রতিবেশী। বর্তমান যে অবস্থা তার এই মুহুর্তে কোথায় বসবাস করবেন সে অবস্থাও তার নেই। দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির এই বাজারে ভ্যান চালিয়ে না সংসার চালাবে না ওই ভিটেতেই আবার বসতঘর নির্মাণ করবে, এসব নিয়ে চরম হতাশা ও দুশ্চিন্তাগ্রস্থ পরিবারটি।

সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম জিন্নাহ জানান, খবরটা শুনেছি, যদি কোন সুযোগ-সুবিধা হয়, তাকে সহযোগিতার চেষ্টা করব।

উল্লেখ্য, দু’দিন পূর্বে উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের আশ্রয়ণ প্রকল্পের দশটি বাড়ি আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়।

বা/খ : এসআর।